ঢাকা, বুধবার, মে ২৩, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

শিক্ষা : চুয়েটে পিএইচডি এমফিল ও মাস্টার্স কোর্সে ভর্তি শুরু   |    জাতীয় সংবাদ : সাংবাদিক কামাল উদ্দিনের ইন্তেকাল *বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত   |   প্রধানমন্ত্রী : ছাত্র বৃত্তি সঠিকভাবে বিতরণের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর * বিপন্ন রোহিঙ্গারা স্থানীয় জনগণের সহযোগিতা পাচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী   |   খেলাধুলার সংবাদ : লিভারপুলের আক্রমণভাগকে সমীহ করলেও নিজেদেরই সেরা ভাবছেন রোনাল্ডো * ইংল্যান্ডের অধিনায়ক হিসেবে বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্ন দেখেন কেন * আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপ অনুশীলনে যোগ দিয়েছেন মেসি   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : বিতর্কিত ভোটে নির্বাচিত মাদুরোকে এরদোগানের অভিনন্দন * ইরানের সরকার পরিবর্তেনের পক্ষে যুক্তরাষ্ট্র * স্কুলে বন্দুক হামলা প্রতিরোধে বিশেষজ্ঞ ও রাজনীতিবিদদের সঙ্গে টেক্সাস গভর্নরের বৈঠক   |    বিভাগীয় সংবাদ : সাতক্ষীরার মুক্তামণি আর নেই * কুষ্টিয়ায় পুলিশের সঙ্গে পৃথক বন্দুুকযুদ্ধে দুই মাদক বিক্রেতা নিহত * জয়পুরহাটে বোরো ধান কাটা-মাড়াই উৎসব চলছে   |   

খেলোয়াড়ের মৃত্যুকে অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে ব্যবহার করছেন ট্রাম্প

ওয়াশিংটন, ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ (বাসস ডেস্ক) : মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সড়ক দুর্ঘটনায় একজন এনএফএল খেলোয়াড়ের মৃত্যুকে সীমান্ত সুরক্ষা কঠোর করার পক্ষে ব্যবহার করেছেন। মঙ্গলবার তিনি এ ঘটনার জন্য অনিবন্ধিত অভিবাসীদের দায়ী করেছেন।
ইন্ডিয়ানাপোলিস কোল্টস খেলোয়াড় এডউইন জ্যাকসন ও অপর এক ব্যক্তির মৃত্যুর দুই দিন পর ট্রাম্প সন্দেহভাজন অপরাধী মাতাল গাড়ি চালকের বিষয়টি তুলে ধরলেন।
খবর বার্তা সংস্থা এএফপির।
ওই গাড়ি চালককে দুইবার যুক্তরাষ্ট্র থেকে বের করে দেয়া হয়। লোকটি আবার অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করে।
ট্রাম্প টুইটারে বলেন, এটা অত্যন্ত লজ্জাজনক যে এক ব্যক্তি অবৈধভাবে আমাদের দেশে প্রবেশ করে এডউইন জ্যাকসনকে মেরে ফেলেছে। এটা এ ধরনের প্রতিরোধযোগ্য অনেক মর্মান্তিক ঘটনার মাঝে একটি ঘটনা মাত্র। আমাদের অবশ্যই খুব তাড়াতাড়ি সীমান্ত সুরক্ষা জোরদার এবং অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে আরো কঠোর হতে হবে।
৩৭ বছর বয়সী গুয়াতেমালার নাগরিক ম্যানুয়েল ওরেগো জাভালার কালো রঙের ফোর্ড এফ-১৫০ পিকআপ গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে জ্যাকসনের গাড়িকে ধাক্কা দেয়। এতে তিনি ও তার গাড়ির চালক নিহত হন। তারা দুজন এ সময় তাদের গাড়িকে মহাসড়কের পাশে দাঁড় করিয়ে তার পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন।
এ বিষয়ে অভিবাসন কর্তৃপক্ষ স্থানীয় পুলিশের সঙ্গে কাজ করছে।