ঢাকা, রবিবার, ফেব্রুয়ারী ২৫, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : যুদ্ধাপরাধী ও স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তির বিরুদ্ধে দেশবাসীকে সতর্ক থাকার আহবান প্রধানমন্ত্রীর   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : শেষ পর্যায়ে বিক্রির ধুম লেগেছে একুশের গ্রন্থমেলায়   |    জাতীয় সংবাদ : বাংলাদেশের শিল্পখাতে প্রভূত অগ্রগতি হয়েছে : শিল্পমন্ত্রী * দুর্যোগ পরিস্থিতিতে ফসল ফলানোর উপযোগী জাত উদ্ভাবন করতে হবে : কৃষিমন্ত্রী * সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনের মতো মাদককে প্রতিরোধ করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী   |    অর্থনীতি : বাণিজ্য সহায়তার এডিবি ও ডিবিবিএলর মধ্যে ঋণচুক্তি স্বাক্ষর * চোরাচালানীকে হাতকড়া পরানোর অনুমতি চায় শুল্ক গোয়েন্দা   |   শিক্ষা : ইউজিসি প্রদত্ত প্রধানমন্ত্রী স্বর্ণপদক পাচ্ছেন ২৬৫ জন শিক্ষার্থী * জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স শেষপর্ব পরীক্ষা আগামীকাল থেকে শুরু   |    জাতীয় সংবাদ : দেশের মানুষ দুর্নীতিবাজ-সন্ত্রাসীদের কারাগারেই দেখতে চায় : হানিফ * বিএনপি অপরাধীদের দলে ভিড়িয়ে সমাজে হালাল করার রাজনীতি করে : ইনু * শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয় : তোফায়েল * তথ্য প্রযুক্তি খাতে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে সরকারের বিশেষ প্রকল্প   |   আবহাওয়া : রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুএক জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে    |   খেলাধুলার সংবাদ : বাংলাদেশ যুব গেমসের মশাল প্রজ্বলন করবেন আসিফ *প্রিমিয়ার ক্রিকেটে তৃতীয় জয় পেল মোহামেডান *শাইনপুকুরকে তৃতীয় জয় এনে দিলেন অল রাউন্ডার শুভাগত   |    বিভাগীয় সংবাদ : কেরানীগঞ্জে ট্রাক-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : মোগাদিশুতে বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৮ *উ.কোরিয়ার বিরুদ্ধে এ যাবতকালের সবচেয়ে কঠিন অবরোধ আরোপের ঘোষণা ট্রাম্পের *মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রাজধানীতে ৩টি বোমা বিস্ফোরণ   |   

যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোর মধ্যে নিরাপত্তা সহযোগিতা জোরদার

মেক্সিকো সিটি, ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ (বাসস ডেস্ক): মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসন শুক্রবার জোর দিয়ে বলেছেন, মাদক চোরাচালান বিরোধী লড়াইয়ে যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকো সহযোগিতা জোরদার করেছে। ডোনাল্ড ট্রাম্পের মেক্সিকো বিরোধী বক্তব্যের প্রভাব ঝেড়ে ফেলে তারা এ সহযোগিতা জোরদার করে। খবর এএফপির।
মেক্সিকান অভিবাসন, নর্থ আমেরিকান ফ্রি ট্রেড অ্যাগ্রিমেন্ট এবং সীমান্ত দেয়াল নির্মাণ করা বিষয়ে ট্রাম্পের কঠোর অবস্থানের ব্যাপারে তার আক্রমণাত্মক বক্তব্যের কারণে যুক্তরাষ্ট্র ও মেক্সিকোর মধ্যে সম্পর্কের অবনতি ঘটে।
সমালোচকরা বলছেন, তিনি মিত্র ও প্রতিবেশী দেশের সাথে বিপন্ন মার্কিন সম্পর্কের ঝুঁকি নিচ্ছেন। নিরাপত্তাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এ প্রতিবেশী দেশের সহযোগিতা প্রয়োজন ওয়াশিংটনের।
টিলারসন এই প্রথমবারের মতো তার গুরুত্বপূর্ণ ল্যাটিন আমেরিকা সফর শুরু করেছেন। এ সফরে তিনি ও মেক্সিকোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী দুদেশের মধ্যে থাকা যে কোন উত্তেজনা প্রশমনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন এবং তারা আন্তর্জাতিক মাদক বাণিজ্যের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের ওপর গুরুত্ব দেন।
মেক্সিকো সিটিতে দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী লুইস ভিদাগারে ও কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিশ্টিয়া ফ্রিল্যান্ডের সঙ্গে বৈঠকের পর টিলারসন বলেন, কোকেন, হিরোইনসহ সব ধরণের মাদকের ভয়ংকর প্রভাব রোধে আমরা ভিন্ন আঙ্গিকের সহযোগিতার ক্ষেত্র তৈরী করছি।
তিনি বলেন, এই মাদক আমেরিকা, মেক্সিকো ও কানাডার নাগরিকদের ওপর মারাত্মক নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে।
গত অক্টোবর মাসে ট্রাম্প ঘোষণা দেন যে আফিম যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় জনস্বাস্থ্যের জন্য একটি বড় হুমকি হিসেবে দেখা দিয়েছে।
এক্ষেত্রে পরস্পরকে দোষারোপ না করে সহযোগিতার একটি দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে হবে।
পরে টিলারসন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট এনরিক পেনা নিয়েতোর সঙ্গে সাক্ষাত করে বলেছেন, তারা দুদেশের মধ্যে থাকা সম্পর্ক জোরদারের ব্যাপারে সম্মত হয়েছেন।