ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

রাষ্ট্রপতি : বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের চমৎকার সম্পর্ক রয়েছে : রাষ্ট্রপতি   |    বিভাগীয় সংবাদ : দিনাজপুরে নাশকতার মামলায় ৪ জেএমবি সদস্যের জামিন আবেদন নামঞ্জুর   |   জাতীয় সংসদ : বঙ্গবন্ধু সেতুতে ডুয়েলগেজ রেললাইনসহ পৃথক রেল সেতু নির্মাণ প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে : প্রধানমন্ত্রী * আগামী বাজেটে বেসরকারি বিদ্যালয়ের এমপিও অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সরকার সিদ্ধান্ত নিবে : প্রধানমন্ত্রী *সকল জেলায় হাইটেক পার্ক স্থাপন করা হবে : প্রধানমন্ত্রী   |   জাতীয় সংসদ : সরকার প্রতিবন্ধী শিশুদের শিক্ষার প্রতি অত্যন্ত যত্নশীল : প্রধানমন্ত্রী * ২০০৯ সাল থেকে অদ্যাবধি রেলওয়ের বিভিন্ন পদে ১০ হাজার ৩৯১ জনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে : রেলপথ মন্ত্রী * কিছু রাজনীতিবিদ নির্বাচন এলে বক্রপথে ক্ষমতায় যাবার স্বপ্ন দেখে : প্রধানমন্ত্রী   |   শিক্ষা : শর্ত পূরণ না করা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : প্রাচ্যনাটের অ্যাকটিং স্কুলের নতুন নাটক নৈশভোজ মঞ্চস্থ হলো   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ট্রাম্পের স্বাস্থ্যগত জটিলতা নেই : চিকিৎসক   |   প্রধানমন্ত্রী : উন্নত দেশগুলোকে বাংলাদেশের পাশে দাঁড়ানোর আহবান প্রধানমন্ত্রীর   |   আবহাওয়া : দেশের কিছু স্থানে শৈত্যপ্রবাহ কমবে   |   খেলাধুলার সংবাদ : মিরপুর স্টেডিয়ামের শততম ওয়ানডে ম্যাচে শ্রীলংকাকে ২৯১ রানের টার্গেট দিলো জিম্বাবুয়ে *আমাদের পেস বোলাররাই সেরা : রুবেল   |    জাতীয় সংবাদ : ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন বন্ধে সরকারের কোন হাত নেই : ওবায়দুল কাদের *ঢাকা উত্তর সিটির উপ-নির্বাচন স্থগিত * নবম ওয়েজ বোর্ডে সাংবাদিকদের স্বার্থ গুরুত্ব পাবে: তারানা হালিম * আপিল শুনানির কার্যতালিকায় যুদ্ধাপরাধী আজহার-কায়সার-সুবহানের মামলা   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ফিলিস্তিনের জন্য জাতিসংঘ সংস্থা থেকে বরাদ্দকৃত অর্থ প্রত্যাহার যুক্তরাষ্ট্রের * মিয়ানমারে রাখাইন বৌদ্ধদের ওপর পুলিশের হামলা ॥ নিহত ৭ * পেরুর সাবেক প্রেসিডেন্টের হাসপাতাল ত্যাগ * মেক্সিকোয় গণকবর থেকে ৩২টি লাশ উদ্ধার    |   

জাপানে কিশোর হত্যাকারীসহ ২ জনের মৃত্যুদন্ড কার্যকর

টোকিও, ১৯ ডিসেম্বর, ২০১৭ (বাসস ডেস্ক) : জাপানে মঙ্গলবার দুই হত্যাকারীর মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়েছে। এদের মধ্যে একজন কিশোর বয়সে এ অপরাধ করে। সর্বোচ্চ এ সাজা বন্ধে আন্তর্জাতিক মানবাধিকর গ্রুপের আহবান উপেক্ষা করে তাদের সাজা কার্যকর করা হয়েছে। বিচার মন্ত্রণালয় একথা জানায়। খবর এএফপির।
রক্ষণশীল প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবে ২০১২ সালে ক্ষমতায় আসার পর থেকে এ নিয়ে জাপানে মোট ২১ জনের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হল। মঙ্গলবার ফাঁসি দিয়ে তারুহিকো সেকি ও কিয়োশি মাতসুইয়ের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হয়।
মন্ত্রণালয় জানায়, ১৯৯২ সালে টোকিওর দক্ষিণপূর্ব চিবায় চারজনকে হত্যা করায় সেকিকে (৪৪) দোষী সাব্যস্ত করা হয়। এ অপরাধ সংঘটনের সময় তার বয়স ছিল ১৯ বছর।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, ১৯৯৭ সালের পর এই প্রথমবারের মতো কিশোর বয়সে অপরাধ করা কোন আসামির মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হলো।
জাপানে ২০ বছর বয়সী কোন মানুষকে প্রাপ্ত বয়স্ক বিবেচনা করা হয়।
১৯৯৪ সালে মেয়ে বন্ধু ও তার বাবা-মাকে হত্যা করার দায়ে মাতসুইকে (৬৯) মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, উভয় জনই সাজা পুনর্বিবেচনার আবেদন করেছিল।
উন্নত দেশগুলোর মধ্যে কেবলমাত্র জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রে এখনো সর্বোচ্চ শাস্তি বহাল রয়েছে।