ঢাকা, শনিবার, ফেব্রুয়ারী ২৪, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

শিক্ষা : ২০২১ সালের মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীকে স্বাস্থ্যবীমা প্রকল্পের আওতায় আনা হবে : উপাচার্য   |    জাতীয় সংবাদ : বিএনপি অপরাধীদের দলে ভিড়িয়ে সমাজে হালাল করার রাজনীতি করে : ইনু * শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয় : তোফায়েল * তথ্য প্রযুক্তি খাতে নারীর অংশগ্রহণ বাড়াতে সরকারের বিশেষ প্রকল্প   |   আবহাওয়া : রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের দুএক জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে    |   খেলাধুলার সংবাদ : দশ বছর পরে জিম্বাবুয়ে দলে ডাক পেলেন জুওয়াও *দুবাইয়ে খেলছেন না ফেদেরার   |    বিভাগীয় সংবাদ : কেরানীগঞ্জে ট্রাক-অটোরিকশার মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : মোগাদিশুতে বোমা হামলায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩৮ *উ.কোরিয়ার বিরুদ্ধে এ যাবতকালের সবচেয়ে কঠিন অবরোধ আরোপের ঘোষণা ট্রাম্পের *মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের রাজধানীতে ৩টি বোমা বিস্ফোরণ   |   

জেরুজালেম প্রশ্নে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠক শুক্রবার

জাতিসংঘ (যুক্তরাষ্ট্র), ৭ ডিসেম্বর ২০১৭ (বাসস ডেস্ক): জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ শুক্রবার জেরুজালেম প্রশ্নে জরুরি বৈঠক ডেকেছে। ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে স্বীকৃতি দেয়ার ব্যাপারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্ত নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হবে। বুধবার পরিষদের নেতা বৈঠকের এ ঘোষণা দেন।
পর্যায়ক্রমে প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করা দেশ জাপান জানায়, আটটি দেশের অনুরোধের প্রেক্ষিতে আহবান করা এ আলোচনা শুক্রবার সকাল ১০ টায় (গ্রিনিচ মান সময় ১৫০০ টা) শুরু হবে। এ বৈঠকের আলোচ্যসূচিতে আরো অনেক বিষয় রয়েছে।
বলিভিয়া, ব্রিটেন, মিশর, ফ্রান্স, ইতালি, সেনেগাল, সুইডেন ও উরুগুয়ের অনুরোধে এ বৈঠক আহবান করা হয়। তারা বৈঠকের শুরুতে জাতিসংঘ মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেসকে বক্তব্য দেয়ারও অনুরোধ জানিয়েছেন।
ট্রাম্পের এমন ঘোষণার পর গুতেরেস বলেন, ইসরাইল ও ফিলিস্তিনের মধ্যে সরাসরি আলোচনার মাধ্যমেই কেবলমাত্র জেরুজালেমের বিষয়ে চূড়ান্ত নিষ্পত্তি হতে পারে।
এক্ষেত্রে তিনি একতরফা কোন পদক্ষেপের কঠোর সমালোচনা করেন।
তিনি বলেন, ফিলিস্তিন ও ইসরাইলের ক্ষেত্রে দ্বি-রাষ্ট্র সমাধানের কোন বিকল্প নেই।
বলিভিয়ার রাষ্ট্রদূত সাচে সার্জিও লরেন্টি সোলিজ ট্রাম্পের এ সিদ্ধান্তকে অপরিণামদর্শী ও অনেক ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে অভিহিত করেন। তার এ সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক আইন ও নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব বিরোধী।
এ দূত আরো বলেন, ট্রাম্পের এ স্বীকৃতি কেবলমাত্র শান্তি প্রক্রিয়ার জন্যই হুমকি নয়, এটি আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তার ক্ষেত্রেও চরম হুমকি।
উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সরকার এ ধরণের পদক্ষেপের বিষয়ে ভোটাভুটি থেকে বিরত থেকেছে।