ঢাকা, শুক্রুবার, ফেব্রুয়ারী ২৩, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : ইলিশ সংরক্ষণে সরকারের পাশাপাশি সংশ্লিষ্ট সকলে এগিয়ে আসুন : শেখ হাসিনা   |   শিক্ষা : জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স শেষপর্ব পরীক্ষা আগামীকাল থেকে শুরু   |    বিভাগীয় সংবাদ : গাজীপুরে ১৪তম স্কাউট সমাবেশের উদ্বোধন * দেশে দারিদ্র্যের হার শতকরা ১২ ভাগে নেমে এসেছে : মন্ত্রিপরিষদ সচিব * মাদারীপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রী নিহত   |    জাতীয় সংবাদ : আওয়ামী লীগকে পুনরায় নির্বাচিত করুন : ডেপুটি স্পিকার *এডিবির প্রেসিডেন্ট আসছেন ২৭ ফেব্রুয়ারি * প্রশ্ন ফাঁস রোধে সকলের সহযোগিতা চাইলেন শিক্ষামন্ত্রী   |   রাষ্ট্রপতি : রোহিঙ্গাদের ফেরাতে সিঙ্গাপুরের সহযোগিতা চাইলেন রাষ্ট্রপতি * জাটকা সংরক্ষণ কার্যক্রম গ্রহণের ফলে দেশে ইলিশের উৎপাদন বেড়েছে : রাষ্ট্রপতি   |    জাতীয় সংবাদ : এ বছর আরও ১০ হাজার চিকিৎসক নিয়োগ দেওয়া হবে : নাসিম * বিএনপি বিপর্যয়ের মুখে অপ্রাসঙ্গিক কথাবার্তা বলছে : হানিফ * সরকারের ভিত কারো কথায় নড়ে না : ইনু * ময়মনসিংহে বাস খাদে পড়ে ৪ জনের প্রাণহানি, আহত ২০   |   আবহাওয়া : সারাদেশে আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে   |   খেলাধুলার সংবাদ : আইসিসির অনুমোদন পেল কানাডার টি-২০ লীগ * কেনিয়া ক্রিকেট দলের অধিনায়ক, কোচ ও বোর্ড সভাপতির পদত্যাগ   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : পদত্যাগ করছেন অস্ট্রেলিয়ার উপপ্রধানমন্ত্রী * আর্জেন্টিনার রুশ দূতাবাস থেকে ৪০০ কিলো কোকেন উদ্ধার * মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রস্তাব প্রায় প্রস্তুত : জাতিসংঘে মার্কিন দূত   |   

অমর একুশের গ্রন্থমেলার পরিসর ও প্রকাশনা সংস্থা বেড়েছে

ঢাকা, ২৪ জানুয়ারি, ২০১৮ (বাসস) : বাংলা একাডেমি আয়োজিত মহান একুশের গ্রন্থমেলার ইতিহাসে অতীতের যে কোন মেলার চেয়ে এবারের মেলায় পরিসর বাড়ছে। অংশগ্রহণকারী স্টল ও প্রকাশনা সংস্থার সংখ্যাও বৃদ্ধি পাচ্ছে।
গতবছর মেলায় মোট পাঁচ লাখ ১৩ হাজার বর্গফুট এলাকায় মেলা বসেছিল। এবার তা দাঁড়াচ্ছে সাড়ে পাঁচ লাখ বর্গফুটে। স্টলের ইউনিট এবার বেড়েছে ৪১টি। গত বছর মেলায় ইউনিট ছিল ৬৫৯টি। এবার ৪৬০টি প্রতিষ্ঠানকে ৭০০ ইউনিট বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রকাশনা সংস্থার সংখ্যা বেড়েছে মোট ৬০টি। এর মধ্যে নতুন প্রকাশনা ৩৪ এবং লিটল ম্যাগ ও অন্যান্য সংস্থার সংখ্যা বেড়েছে ২৬টি। প্যাভিলিয়ন বেড়েছে ১২টি। গতবার প্যাভিলিয়ন ছিল ১১। এবার হচ্ছে ২৩টি।
বাংলা একাডেমির সংশ্লিষ্ট বিভাগ থেকে বাসসকে মঙ্গলবার এ তথ্য জানানো হয়। মেলা আয়োজনের জন্য সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে স্টল ও প্যাভিলিয়ন নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে। আজ উভয়স্থান পরিদর্শনকালে দেখা যায়, বিপুলসংখ্যক নির্মাণকর্মী স্টল তৈরির কাজে ব্যস্ত রয়েছেন। কাঠমিস্ত্রী, নির্মাণ শ্রমিক, মাটি ভরাটের শ্রমিকরা কাজ করছেন। একাডেমির লোকদের সাথে নিয়ে মেলার অবকাঠামো নির্মাণ সংস্থার লোকজন দিনরাত অবিরাম ব্যস্ত সময় পার করছেন।
এবারের মেলায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করা হচ্ছে। নিরাপত্তাকর্মীর সংখ্যাও বাড়বে। পুলিশ,র‌্যাবসহ অন্যান্য ফোর্সের কর্মীদের জন্য অস্থায়ী ক্যাম্পের সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি ও দোয়েল চত্বরের কাছে নিরাপত্তা বেষ্টনী জোরদার হচ্ছে। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রবেশপথেও নিরাপত্তার অবস্থা বাড়বে বলে সংশ্লিষ্টরা জানান।
বাংলা একাডেমির পরিচালক ও একুশের গ্রন্থমেলা কমিটির সদস্য সচিব ড. জালাল আহমেদ আজ বাসসকে বলেন, এবার ৮৩টি নতুন প্রকাশনা সংস্থা আবেদন করেছিল। তাদের মধ্যে ৬০টিকে স্টল দেয়া হয়েছে। ফলে এবারের মেলায় অংশগ্রহণের জন্য পাবলিশার্সদের সংখ্যা বেড়েছে। বৃদ্ধি পাচ্ছে মেলার পরিসর। সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গতবারের চেয়ে বেশকিছু বেশি জায়গায় স্টল হচ্ছে অংশগ্রহণকারী সংস্থা বৃদ্ধির কারণে।
তিনি জানান, এ ছাড়াও মেলায় এবার বাড়তি আকর্ষণ থাকছে। এবারই প্রথমবারের মতো সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের মেলায় লেখক, সাহিত্যিক, কবি, বিভিন্ন অঙ্গনের সিনিয়র ব্যক্তিত্ব, বুদ্ধিজীবীসহ বিশিষ্ট নাগরিকদের প্রবেশের জন্য আলাদা একটি গেট স্থাপন করা হচ্ছে। এই গেইট দিয়ে শুধুমাত্র লেখকদেরই প্রবেশ করতে দেয়া হবে।
আগামী পয়লা ফেব্রুয়ারি এবারের অমর একুশের গ্রন্থমেলা শুরু হবে। গ্রন্থমেলায় মাসব্যাপী থাকছে বিভিন্ন অনুষ্ঠানমালা। এর মধ্যে রয়েছে সেমিনার,বইয়ের মোড়ক উন্মোচন, প্রকাশনা উৎসব, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হবে আন্তর্জাতিক সাহিত্য সম্মেলন। এতে দশটি দেশের লেখকরা অংশগ্রহণ করবেন।