ঢাকা, বুধবার, মে ২৩, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

রাষ্ট্রপতি : শিল্প প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে দেশী বিদেশী বিনিয়োগ বাড়াতে হবে : রাষ্ট্রপতি   |    অর্থনীতি : রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পদক পেলেন রানার গ্রুপের চেয়ারম্যান   |    অর্থনীতি : রাষ্ট্রপতির শিল্প উন্নয়ন পদক পেলেন রানার গ্রুপের চেয়ারম্যান   |   প্রধানমন্ত্রী : প্রধানমন্ত্রী শুক্রবার কলকাতা যাচ্ছেন * একনেকে ৩৯ হাজার ২৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের অনুমোদন   |   আবহাওয়া : ঢাকাসহ দেশের দক্ষিণাঞ্চলে আরও ২ থেকে ৩ দিন বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকতে পারে    |    বিভাগীয় সংবাদ : লোহাগড়া ইতনা গণহত্যা দিবস আগামীকাল * নাটোরে দুই জেএমবি সদস্য গ্রেফতার   |    জাতীয় সংবাদ : বাংলাদেশ ও অস্ট্রিয়ার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বিমান চলাচল চুক্তি স্বাক্ষরিত * রাজীবের ভাইদের ক্ষতিপূরণে আদেশ স্থগিত, তদন্তের নির্দেশ * স্থায়ী প্রতিনিধির সঙ্গে মিয়ানমারে নিযুক্ত জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ দূতের সৌজন্য সাক্ষাৎ   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : করাচিতে হিটস্ট্রোকে ৬৫ জনের মৃত্যু * পুতিন ও মোদি কৌশলগত অংশীদারিত্ব নিয়ে আলোচনা করেছেন : লাভরভ *রাশিয়ায় দাবানলে ২৩ হাজার হেক্টর বনাঞ্চল ধ্বংস   |   

সংগীত সন্ধ্যায় শিল্পী রেবেকা সুলতানা মুগ্ধ করলেন শ্রোতাদের

ঢাকা, ২৩ জানুয়ারি ২০১৮ (বাসস): এক সাগর রক্তের বিনিময়ে বাংলার স্বাধীনতা আনলো যারা, আমরা তোমাদের ভুলব না এই কালজীয় গানের শিল্পী রেবেকা সুলতানা একক সংগীত সন্ধ্যায় গান পরিবেশন করে মুগ্ধ করলেন শ্রোতাদের।
জাতীয় জাদুঘরের উদ্যোগে আয়োজিত গানের আসরে শিল্পী রেবেকা সুলতানার গাওয়া বিভিন্ন ঘরানার গানের সুরের মুর্ছনায় বিমোহিত হন বিপুল শ্রোতা।
শিল্পী প্রথমেই গেয়ে শোনান মহান মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের স্বরণে মুক্তির মন্দির সোপানো তলে,কত প্রাণ হলো বলিদান, লেখা আছে অশ্রু জলে। পরে জবে তুলসি তলায় প্রিয় সন্ধ্যা বেলায়সহ তিনটি নজরুল সংগীত, দুয়ারে আইসাছে পালকি, তুমি ডেকে লও সেই দেশেসহ পরে একটার পর একটা দেশগান, রবীন্দ্র সংগীত, লোকগীতি, আধুনিক, লালন, হাছন রাজার গান পরিবেশন করেন।
জাতীয় জাদুঘরের কবি সুফিয়া কামাল মিলনায়তনে রোববার রাতের এই সংগীত সন্ধ্যা নগরীর বিশিষ্টজনসহ প্রচুর শ্রোতা উপভোগ করেন। জাদুঘরের নিয়মিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। শুরুতে শিল্পীকে ফুলের তোড়া দিয়ে স্বাগত জানানো হয় জাতীয় জাদুঘরের পক্ষ থেকে।
শিল্পী রেবেকা সুলতানা গান শুরুর আগে সংক্ষিপ্ত কথামালায় বলেন, আমাদের পারিবারিক পরিবেশ ছিল সংস্কৃতি চর্চার অনুকূলে। বাবা শখ করে বেহালা বাজাতেন। গানে আগ্রহ ছিল তার। আমাদের আত্মীয়-স্বজনদের মধ্যেও সংগীত রসিক অনেকে। এই পরিবেশই আমাকে ও বোনদের সংগীত চর্চায় উৎসাহিত করেছে। তিনি পরিবারের সবাইকে স্বরণ করেন।
জাতীয় জাদুঘরের কিপার ড. শিহাব শাহরিয়ার শিল্পীর পরিচিতি তুলে ধরে বলেন, পরিবাারে বড় বোন হিসেবে রেবেকা প্রথমে গান গাওয়া শুরু করেন। পরে তার অনুজ বোনেরার এ জগতে সামিল হয়ে খ্যাতিমান শিল্পী হয়েছেন দেশে। নজরুল গীতি শিল্পী হিসেবে তিনি টেলিভিশন ও বেতারে শুরু থেকে গান করেন। পরে নিয়মিত বেতার-টিভিতে এবং দেশে ও দেশের বাইরেও তার সুনাম ছড়িয়ে পড়ে। পরবর্তীতে শিল্পী বিভিন্ন ঘরানার গানেও কণ্ঠ দেন। কূটনৈতিক স্বামীর চাকুরীর সুবাদে শিল্পী নেপাল, অস্ট্রেলিয়া, সুইডেন, আবুধাবি,লিবিয়া, তিউনিশিয়াসহ বিভিন্ন দেশে প্রবাস জীবনেও ওইসব দেশে সংগীত পরিবেশন করে খ্যাতিলাভ করেন।