ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

আন্তর্জাতিক সংবাদ : আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর অভিযানে ৮ জঙ্গি নিহত * ক্যালিফোর্নিয়ায় ১৩ শিশুকে আটকে রাখা দম্পতিকে আদালতে তোলা হচ্ছে * মুক্ত হওয়ার এক মাস পর ইরাকে আইএসের হুমকি * অস্ট্রেলিয়ার উলুরুর কাছে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত : আহত ৪   |    জাতীয় সংবাদ : বেসরকারি মেডিকেল কলেজের নীতিমালাকে আইনে রূপান্তরিত করার প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করার নির্দেশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর * মেধাসম্পদের অনলাইন নিবন্ধন সেবা চালু * জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ও দেশপ্রেমিক মানুষ গড়ার তাগিদ দিলেন শিক্ষামন্ত্রী   |   জাতীয় সংসদ : ছয় মাসে ১২২.৬৪ একর রেলভূমি দখলমুক্ত করা হয়েছে : রেলপথ মন্ত্রী * দেশে সাক্ষরতার হার শতকরা ৭১ ভাগ : পরিকল্পনামন্ত্রী   |   প্রধানমন্ত্রী : প্রধানমন্ত্রীকে সেনাবাহিনীর এসডব্লিউও কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন দুটি প্রকল্প সম্পর্কে অবহিতকরণ   |    জাতীয় সংবাদ : মরতুজা আহমদ নতুন প্রধান তথ্য কমিশনার * মুন সিনেমা হলের মালিককে ৯৯ কোটি টাকা দেয়ার নির্দেশ * রিট করেছে বিএনপি, দোষ পড়েছে আওয়ামী লীগের : ওবায়দুল কাদের * প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছে : তোফায়েল আহমেদ   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : ঝিনাইদহে ১৫ দিনব্যাপী যাত্রা উৎসব শুরু   |    বিভাগীয় সংবাদ : বরগুনায় দুদকর আয়োজনে শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ *জয়পুরহাটে প্রবীণদের কম্বল, বয়স্ক ভাতা, উপকরণ প্রদান *হবিগঞ্জে ১১ জন আসামি গ্রেফতার * ভোলায় ৫টি বদ্ধভূমির সংস্কার ও উন্নয়ন করা হচ্ছে   |   খেলাধুলার সংবাদ : পিএসজির আট গোলের বিশাল জয়ে নেইমারের চার গোল *কোপা ডেল রে : মেসির পেনাল্টি মিসে বার্সেলোনার হার * হাথুরুসিংহের পরিকল্পনা ভুলে গেছে বাংলাদেশ : মাশরাফি * শ্রীলংকার বিপক্ষেও জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ * বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হলেন কোহলি   |   আবহাওয়া : দেশের কিছু স্থানে শৈত্যপ্রবাহ কেটে যেতে পারে   |    জাতীয় সংবাদ : বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব আগামীকাল থেকে শুরু * নির্বাচন বন্ধের জন্য বিএনপিকে অভিযুক্ত করা উচিত * জ্ঞান ও প্রযুক্তি রপ্তানিতেও সক্ষমতা অর্জন করতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী * শিশু আলপনা হত্যা মামলায় ২ আসামির ফাঁসির রায় বহাল   |   প্রধানমন্ত্রী : রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ * প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলে ২০ প্রতিষ্ঠানের অনুদান প্রদান * ওপেক বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক সম্প্রসারণে আগ্রহী   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : কাজাখস্তানে বাস দুর্ঘটনায় ৫২ জন নিহত * নির্ধারিত সময়ে কম্বোডিয়ার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে : কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী * কান্দাহারে অনলাইনে শিক্ষা নিচ্ছে আফগান তরুণীরা * ট্রাম্পের এক বছরে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া সম্পর্কোন্নয়নে ব্যর্থ   |   

ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্প বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে: আন্তর্জাতিক সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী

নয়াদিল্লী, ৩০ নভেম্বর, ২০১৭ (বাসস) : শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্প বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। এ কারণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পের উন্নয়নে সম্ভাব্য সকল সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে।
আমির হোসেন আমু বলেন, বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা সত্ত্বেও বাংলাদেশে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পের প্রসার ঘটছে। মোট কর্মসংস্থানের ৮০ থেকে ৮৫ ভাগই হয়ে থাকে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্পে।
তিনি বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প বর্তমান বিশে^ দারিদ্র দূরীকরণ, প্রাকৃতিক পরিবেশের উন্নয়ন এবং অর্থনৈতিক উন্নয়নের চালিকা শক্তি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে।
ভারত সফররত শিল্পমন্ত্রী বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লীতে ২১তম আন্তর্জাতিক ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। ওয়ার্ল্ড অ্যাসোসিয়েশন ফর স্মল অ্যান্ড মিডিয়াম এন্টারপ্রাইজেজ- এর উদ্যোগে নয়াদিল্লীর ইন্ডিয়া হ্যাবিটেট সেন্টারে দুদিনব্যাপী এ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ভারতের উপ-রাষ্ট্রপতি এম. ভেনকাইয়া নাইডু। আরও বক্তব্য রাখেন- ভারতের মাইক্রো, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পবিষয়ক মন্ত্রী গিরিরাজ সিং, বাণিজ্য ও শিল্পমন্ত্রী সুরেশ প্রভু, মরিশাসের বাণিজ্য, শিল্প ও সমবায়মন্ত্রী সোমিলদূত ভোলা।
ভেঙ্কাইয়া নাইডু বলেন, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প এখন বিশ^ অর্থনীতির মেরুদন্ড। বিশে^র প্রতিটি দেশই এখন অর্থনৈতিক বৈষম্য এবং দারিদ্র্যতা দূরীকরণের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। এক্ষেত্রে ক্ষুদ্র ও মাঝারী শিল্প দিন দিন উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখছে।
সম্মেলনের সাইড লাইনে আমির হোসেন আমু মরিশাসের বাণিজ্য, শিল্প ও সমবায়মন্ত্রী সোমিলদূত ভোলার সাথে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে মিলিত হন। এ সময় তারা দুদেশের মধ্যে বাণিজ্য বৃদ্ধি, শিল্পখাতে যৌথ বিনিয়োগ, এসএমইখাতে অভিজ্ঞতা বিনিময় ও প্রযুক্তি স্থানান্তরের বিষয়ে আলোচনা করেন। শিল্পমন্ত্রী বাংলাদেশ থেকে তৈরি পোশাক, ওষুধ, প্লাস্টিক, সিরামিক, চামড়া ও চামড়াজাত পণ্য আমদানির জন্য মরিশাসের মন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি এ বিষয়ে সম্মতি প্রকাশ করেন।
এদিকে শিল্প মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ জানানো হয়, নয়াদিল্লীতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প সম্মেলনের শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, বিশ্ব বাণিজ্যের প্রতিযোগিতায় টিকে থাকার সক্ষমতা বাড়াতে এসএমই শিল্পখাতে নতুন উদ্ভাবন ও সৃজনশীলতার ওপর বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে।
তিনি বলেন, বিশ্বায়নের প্রেক্ষাপটে এখন গোটা পৃথিবীতে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাতকে অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ও কর্মসংস্থানের অন্যতম চালিকাশক্তি হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। এখাতে দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক সহায়তার সুযোগ কাজে লাগিয়ে এশিয়া অঞ্চলের দেশগুলো টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে এগিয়ে আসতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
এসএমই খাতে দ্রুত নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি, দারিদ্র্য বিমোচন এবং জনকল্যাণ নিশ্চিতের সুযোগ রয়েছে উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, দ্রুত পরিবর্তনশীল বিশ্বের সাথে তাল মেলাতে এসএমইখাতে নতুন উদ্ভাবন ও সৃষ্টিশীলতার প্রয়োগ বাড়াতে হবে। এজন্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পখাতে অভিজ্ঞতা বিনিময়ের পাশাপাশি গবেষণা জোরদার করতে হবে। এখাতে বিনিয়োগ বাড়াতে আইনী ও নিয়ন্ত্রণ কাঠামো, কর ব্যবস্থা, প্রতিযোগিতামূলক নীতি ও অর্থায়নের সুযোগ অবারিত করতে হবে।
বিশ্বের উন্নত ও উন্নয়নশীল দেশগুলোর জিডিপিতে এসএমই খাতের অবদান সবচেয়ে বেশি উল্লেখ করে আমির হোসেন আমু বলেন, চীনের দ্রুত অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির শতকরা ৪০ ভাগ এসএমইখাত যোগান দিচ্ছে। অস্ট্রেলিয়ার শতকরা ৯৮ ভাগ ব্যবসা এসএমইখাতের আওতাভূক্ত এবং এখাত থেকে দেশটিতে ৪ দশমিক ৮ মিলিয়ন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়েছে। এ অভিজ্ঞতার আলোকে এশিয়ার উন্নয়নশীল দেশগুলোতেও এসএমইখাতের কার্যকর বিকাশ ঘটাতে হবে।
তিনি এসএমইখাতে বিদ্যমান দুর্বল অবকাঠামো, ব্যাংক ঋণ প্রদানে অনীহা, সনাতন প্রযুক্তি, নি উৎপাদনশীলতা, জনবলের অদক্ষতা, আধুনিক বিপণন পদ্ধতির অভাব, মেধা সম্পদের পাইরেসিসহ অন্যান্য চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণের পরামর্শ দেন।