ঢাকা, সোমবার, জুন ২৬, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

খেলাধুলার সংবাদ : ঈদ উদযাপনের জন্য সাতক্ষীরায় মুস্তাফিজ * কুম্বলে নিজেই সরে গিয়েছে : গাঙ্গুলী   |   প্রধানমন্ত্রী : প্রধানমন্ত্রী কাল গণভবনে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করবেন * ঈদ শান্তি, সহমর্মিতা ও ভ্রাতৃত্ববোধের অনুপম শিক্ষা দেয় : প্রধানমন্ত্রী   |   রাষ্ট্রপতি : ইসলাম সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না : রাষ্ট্রপতি   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : সৌদি আরবকে দুটো দ্বীপ দেয়া নিয়ে উত্তাল মিসর * ব্রিটেনে ঈদের নামাজিদের ওপর গাড়ি, আহত ৬   |    জাতীয় সংবাদ : কাল পবিত্র ঈদুল ফিতর * মক্কায় সন্ত্রাসী হামলা চেষ্টায় ঢাকার নিন্দা * প্রধানমন্ত্রী মায়ের মতো দেশের মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন : ভূমিমন্ত্রী * জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় ঈদের জামাত হবে   |    বিভাগীয় সংবাদ : নীলফামারীতে ৪ লাখ পরিবারের মাঝে ভিজিএফ বিতরণ *চাঁদপুরে ৪০ গ্রামে উদযাপিত হচ্ছে ঈদুল ফিতর *শরীয়তপুরের ৩০ গ্রামে আজ ঈদুল ফিতর উদ্যাপিত হচ্ছে*   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : পাকিস্তানে তেলবাহী ট্যাংকারে অগ্নিকান্ডে ১২৩ জনের মৃত্যু * কলম্বিয়ায় খনিতে বিস্ফোরণে ৮ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ ৫ * জাপানের মধ্যাঞ্চলে ৫.২ মাত্রার ভূমিকম্প * মেক্সিকোয় সহিংসতায় ৩ পুলিশসহ নিহত ৯ * ইন্দোনেশিয়ায় আইএস জঙ্গি হামলায় পুলিশ কর্মকর্তা নিহত *    |   

হালাল শিল্পের বিকাশ ঘটিয়ে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয় সম্ভব : আমু

ঢাকা, ১৯ জুন ২০১৭ (বাসস) : অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণের পাশাপাশি হালাল খাদ্য ও পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটিয়ে বিপুল পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।
তিনি বলেন, হালাল শিল্প বিশ্বব্যাপী একটি উদীয়মান শিল্পখাত। নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত হওয়ায় জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বিশ্বব্যাপী হালাল খাদ্য ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠছে। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ হালাল খাদ্য ও পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটিয়ে বিশ্ববাজারে রপ্তানি বাড়াতে পারে।
শিল্পমন্ত্রী রোববার ঢাকায় বাংলাদেশ হালাল এক্সপো-২০১৭ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
ইসলামিক ফউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে প্রতিষ্ঠানের সাবেক পরিচালক আবু হেনা মোস্তফা কামাল বক্তব্য রাখেন।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, হালাল শিল্প এখন বিশ্ব ইসলামিক অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ অনুসঙ্গে পরিণত হয়েছে। ২০১৪ সালে বিশ্বে হালাল শিল্পের পরিমাণ ছিল ৭শ ৯৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বর্তমানে প্রতিবছর হালাল খাদ্য ও পণ্যের চাহিদা ১০.৮ শতাংশ হারে বাড়ছে। ২০১৯ সাল নাগাদ বিশ্বে হালাল শিল্পের পরিমাণ ৩.৭ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হবে। হালাল খাদ্যের মত বিশ্বে হালাল পর্যটন শিল্পখাতও দ্রুত বিকশিত হচ্ছে। বর্তমানে বিশ্ব পর্যটন শিল্পখাতের শতকরা ১১.৬ ভাগ হালাল পর্যটন শিল্পের আওতাভূক্ত। ২০১৯ সাল নাগাদ এ শিল্প ২শ ৩৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা জোরদারে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের অনুকরণীয় মডেল। কৃষি উৎপাদনে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে। সবজি উৎপাদনে বাংলাদেশ বর্তমানে বিশ্বে তৃতীয় এবং চাল, মিঠে পানির মাছ ও ছাগল উৎপাদনে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। তৈরি পোশাকের পর বাংলাদেশ রপ্তানি পণ্য বহুমুুখীকরণ ও রপ্তানির জন্য নতুন বাজার খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। এ লক্ষ্যে উদ্যোক্তাদের নগদ প্রণোদনাসহ সরকারি নীতিসহায়তা জোরদার করা হয়েছে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে তিনি রপ্তানিমুখী হালাল খাদ্য ও পর্যটন শিল্প গড়ে তুলতে তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রতি আহবান জানান।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন ২০০৭ সাল থেকে হালাল সনদ বিভাগ চালু করেছে। এর আওতায় এ পর্যন্ত বাংলাদেশে উৎপাদিত শতাধিক খাদ্য, ভোগ্য পণ্য, প্রসাধন সামগ্রী, ফার্মাসিউটিক্যাল ও অন্যান্য পণ্যের অনুকূলে হালাল সনদ ইস্যু করা হয়েছে।
তিন দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীতে হালাল সনদপ্রাপ্ত ১৬টি খাদ্য ও পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। বাংলাদেশে প্রথমবারের মত আয়োজিত এ প্রদর্শনী হালাল খাদ্যের পরিচিতি বৃদ্ধির পাশাপাশি বাজার প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।