ঢাকা, সোমবার, ফেব্রুয়ারী ১৯, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

রাষ্ট্রপতি : প্রেস কাউন্সিল পুরস্কার-২০১৮ পেলেন সাংবাদিক গাফফার চৌধুরীসহ ৫ জন *দেশে গণতন্ত্র ও সাংবিধানিক ধারা সংহত রাখতে আরো তৎপর হতে সাংবাদিকদের প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান   |   খেলাধুলার সংবাদ : টি-২০ সিরিজ হারলো বাংলাদেশ *সিলেটে অভিষেক স্মরণীয় করে রাখতে পারলো না বাংলাদেশ   |    জাতীয় সংবাদ : আগামীকাল ৪জি যুগে প্রবেশ করবে বাংলাদেশ * যুক্তরাজ্যের নিঃশর্তভাবে কার্গো নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার * রোহিঙ্গা সমস্যা মোকাবেলায় যুক্তরাষ্ট্রের সমর্থন অব্যাহত রাখার আশ্বাস   |    অর্থনীতি : গালফ ফুড ফেয়ারে ষষ্ঠবারের মতো প্রাণ * সানেমের তৃতীয় বার্ষিক অর্থনীতিবিদ সম্মেলন শুরু : রাজনৈতিক কারণে দক্ষিণ এশীয়ায় আঞ্চলিক বাণিজ্য বাড়ছে না   |   জাতীয় সংসদ : বিএনপি রাজনীতির বিষ বৃক্ষ : তথ্যমন্ত্রী *দেশের কারাগারসমূহে সাজাপ্রাপ্ত ১৫ হাজার ৯১৯ কয়েদি রয়েছে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী *   |   শিক্ষা : লন্ডনস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের ১০৩ জন কৃতি ছাত্র-ছাত্রীকে অ্যাওয়ার্ড প্রদান   |   প্রধানমন্ত্রী : প্রধানমন্ত্রীর ইতালি সফর নিয়ে কাল সংবাদ সম্মেলন * প্রধানমন্ত্রী রাজশাহীতে ২৯টি প্রকল্প উদ্বোধন করবেন * চায়ের বহুমুখী ব্যবহারের ওপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : গ্রন্থমেলায় তিন শতাধিত শিশু-কিশোর নতুন বই প্রকাশ    |    জাতীয় সংবাদ : বিএনপি আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ রাজনৈতিক দল : ওবায়দুল কাদের *মধু উৎপাদন বৃদ্ধি ও মৌমাছির নতুন প্রজাতি উদ্ভাবনে গবেষণা করুন : কৃষিমন্ত্রী * মাতৃভাষা দিবসে শহীদ মিনারে যাতায়াতের রুট নির্ধারণ *প্রবাসীদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হচ্ছে   |   আবহাওয়া : আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ইরানে বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ৬৬ জন নিহত * লিবিয়ায় সরকারি বাহিনীর সামরিক মহড়া *মেক্সিকোয় ভূমিকম্প অঞ্চলে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত : নিহত ১৩ *তিব্বতের জোখাং মঠে অগ্নিকাণ্ড   |    বিভাগীয় সংবাদ : ভোলায় হাঁস পালনের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি *চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জে ৯ বছরে বিদ্যুৎ পেয়েছে ৪৮ হাজার ৯৬৭ জন গ্রাহক * হবিগঞ্জে হাওরের উন্নয়নে ৫০ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ   |   

হালাল শিল্পের বিকাশ ঘটিয়ে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয় সম্ভব : আমু

ঢাকা, ১৯ জুন ২০১৭ (বাসস) : অভ্যন্তরীণ চাহিদা পূরণের পাশাপাশি হালাল খাদ্য ও পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটিয়ে বিপুল পরিমাণে বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব বলে মন্তব্য করেছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।
তিনি বলেন, হালাল শিল্প বিশ্বব্যাপী একটি উদীয়মান শিল্পখাত। নিরাপদ ও স্বাস্থ্যসম্মত হওয়ায় জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে বিশ্বব্যাপী হালাল খাদ্য ক্রমেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠছে। মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশ হালাল খাদ্য ও পর্যটন শিল্পের বিকাশ ঘটিয়ে বিশ্ববাজারে রপ্তানি বাড়াতে পারে।
শিল্পমন্ত্রী রোববার ঢাকায় বাংলাদেশ হালাল এক্সপো-২০১৭ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে রাজধানীর বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ প্রাঙ্গণে তিন দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
ইসলামিক ফউন্ডেশনের মহাপরিচালক সামীম মোহাম্মদ আফজালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে প্রতিষ্ঠানের সাবেক পরিচালক আবু হেনা মোস্তফা কামাল বক্তব্য রাখেন।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, হালাল শিল্প এখন বিশ্ব ইসলামিক অর্থনীতির গুরুত্বপূর্ণ অনুসঙ্গে পরিণত হয়েছে। ২০১৪ সালে বিশ্বে হালাল শিল্পের পরিমাণ ছিল ৭শ ৯৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। বর্তমানে প্রতিবছর হালাল খাদ্য ও পণ্যের চাহিদা ১০.৮ শতাংশ হারে বাড়ছে। ২০১৯ সাল নাগাদ বিশ্বে হালাল শিল্পের পরিমাণ ৩.৭ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হবে। হালাল খাদ্যের মত বিশ্বে হালাল পর্যটন শিল্পখাতও দ্রুত বিকশিত হচ্ছে। বর্তমানে বিশ্ব পর্যটন শিল্পখাতের শতকরা ১১.৬ ভাগ হালাল পর্যটন শিল্পের আওতাভূক্ত। ২০১৯ সাল নাগাদ এ শিল্প ২শ ৩৮ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে উন্নীত হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
শিল্পমন্ত্রী বলেন, খাদ্য নিরাপত্তা জোরদারে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের অনুকরণীয় মডেল। কৃষি উৎপাদনে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে ব্যাপক সাফল্য অর্জন করেছে। সবজি উৎপাদনে বাংলাদেশ বর্তমানে বিশ্বে তৃতীয় এবং চাল, মিঠে পানির মাছ ও ছাগল উৎপাদনে চতুর্থ স্থানে রয়েছে। তৈরি পোশাকের পর বাংলাদেশ রপ্তানি পণ্য বহুমুুখীকরণ ও রপ্তানির জন্য নতুন বাজার খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে। এ লক্ষ্যে উদ্যোক্তাদের নগদ প্রণোদনাসহ সরকারি নীতিসহায়তা জোরদার করা হয়েছে। এ সুযোগ কাজে লাগিয়ে তিনি রপ্তানিমুখী হালাল খাদ্য ও পর্যটন শিল্প গড়ে তুলতে তরুণ উদ্যোক্তাদের প্রতি আহবান জানান।
ইসলামিক ফাউন্ডেশন ২০০৭ সাল থেকে হালাল সনদ বিভাগ চালু করেছে। এর আওতায় এ পর্যন্ত বাংলাদেশে উৎপাদিত শতাধিক খাদ্য, ভোগ্য পণ্য, প্রসাধন সামগ্রী, ফার্মাসিউটিক্যাল ও অন্যান্য পণ্যের অনুকূলে হালাল সনদ ইস্যু করা হয়েছে।
তিন দিনব্যাপী এ প্রদর্শনীতে হালাল সনদপ্রাপ্ত ১৬টি খাদ্য ও পণ্য উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। বাংলাদেশে প্রথমবারের মত আয়োজিত এ প্রদর্শনী হালাল খাদ্যের পরিচিতি বৃদ্ধির পাশাপাশি বাজার প্রসারে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে।