ঢাকা, বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ১৯, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : উৎসব কেন্দ্রিক পর্যটন গড়ে তোলা এখন সময়ের দাবি : বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী * এক মাসের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা শুরু : মোজাম্মেল হক * ২০২০ সালের মধ্যে দেশের বনাঞ্চল ২০ শতাংশে উন্নীত করা হবে   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : আর্মেনিয়ায় সরকার বিরোধী বিক্ষোভকারী আটক   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : রাসায়নিক অস্ত্র বিশেষজ্ঞদের নিরাপত্তা বিষয়ে সিরিয়া ও রাশিয়ার সাথে জাতিসংঘের আলোচনা * ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্পে ২ জনের মৃত্যু, আহত ২১ *উ.কোরিয়ায় আটক জাপানী নাগরিকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে সহযোগিতার অঙ্গীকার ট্রাম্পের   |   খেলাধুলার সংবাদ : আইপিএল : রানার অলরাউন্ড নৈপুণ্যে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠলো কলকাতা    |    বিভাগীয় সংবাদ : বানিয়াচংয়ে বাস খাদে, আহত ১০ * জয়পুরহাটে শিশু খাদ্য আইন ও বিধিমালা বিষয়ক অবহিতকরণ সভা *ভোলায় ভুট্টার বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা * নকলায় কৃষি ইকোপার্ক গড়ে উঠেছে   |   

কুমিল্লা মুক্ত দিবস পালন

কুমিল্লা, ৮ ডিসেম্বর ২০১৫ (বাসস) : বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে কুমিল্লা মুক্ত দিবস পালন করা হয়েছে। ১৯৭১ সালের ৮ ডিসেম্বর মহান বিজয়ের ৮ দিন পূর্বে কুমিল্লা পাকহানাদার মুক্ত হয়। দীর্ঘ ৯ মাস পাক হানাদার বাহিনীর সাথে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণে করে ৭ ডিসেম্বর রাতে কুমিল্লা বিমান বন্দর পাক হানাদার বাহিনীর ঘাঁটির পতন ঘটিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধারা ৮ ডিসেম্বর ভোরে কুমিল্লা শহরে প্রবেশ করে। কুমিল্লার সর্বস্তরের জনতা জয় বাংলার ধ্বনি দিয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বরণ করে নেয়। এদিন থেকে শহরের সকল স্থানে ভবনে স্বাধীন বাংলার পতাকা উড়তে থাকে। বিকালে টাউন হল মাঠে বীর মুক্তিযোদ্ধা ও মিত্র বাহিনীর উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিক ভাবে স্বাধীন বাংলার পতাকা এবং মুক্তিযোদ্ধা পতাকা উত্তোলন করা হয়।
কুমিল্লা মুক্ত দিবস উদযাপন উপলক্ষে আজ দিনব্যাপী জেলা প্রশাসন এবং জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের যৌথ উদ্যোগে বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালির উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য হাজী আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেব বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মোঃ হাসানুজ্জামান কল্লোল, পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সফিউল আহমেদ বাবুল। বর্ণাঢ্য র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। আনন্দ র‌্যালিতে জেলা উপজেলা পর্যায়ের বিপুলসংখ্যক মুক্তিযোদ্ধা শিক্ষক শিক্ষার্থী, সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তা বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
পরে বিকালে টাউন হল মাঠের মুক্ত মঞ্চে স্মৃতিচারণ সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং টাউন হল ক্যাম্পাসে মুক্তযুদ্ধ ভিত্তিক আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করা হয়। জেলা প্রশাসক মোঃ হাসানুজ্জামান কল্লোল মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।
মহান বিজয় দিবস পর্যন্ত ৯ দিনব্যাপী টাউন মাঠের মুক্ত মঞ্চে স্মৃতি চারণ সভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং টাউন হল ক্যাম্পাসে মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক আলোকচিত্র প্রদর্শিত হবে।