ঢাকা, শনিবার, জানুয়ারী ২০, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : আসাদের আত্মত্যাগে স্বাধীনতা আন্দোলন আরো গতিশীল হয় : প্রধানমন্ত্রী * মাইকেল মধুসূদন দত্ত বাংলা সাহিত্যের আকাশে এক উজ্জ্বল নক্ষত্র : প্রধানমন্ত্রী * সাস্থ্যবান প্রজন্ম গড়তে প্রাণিসম্পদ খাতের গুরুত্ব অপরিসীম : শেখ হাসিনা   |   রাষ্ট্রপতি : শহীদ আসাদের সর্বোচ্চ অবদান তরুণ প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা যোগাবে : রাষ্ট্রপতি * প্রাণিস্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিতের মাধ্যমে ২০৩০ সালে এসডিজি বাস্তবায়ন সম্ভব হবে : রাষ্ট্রপতি * মধুসূদন দত্ত বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী ছিলেন : রাষ্ট্রপতি   |    জাতীয় সংবাদ : শহীদ আসাদ দিবস কাল * বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় ধাপেও পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে : আসাদুজ্জামান খাঁন * এমপিও ভূক্তির জন্য শিক্ষকদের আন্দোলনের প্রয়োজন নেই : আইনমন্ত্রী   |    বিভাগীয় সংবাদ : যশোরের সাগরদাঁড়িতে আগামীকাল শুরু হচ্ছে সপ্তাহব্যাপী মধুমেলা * মাগুরায় ১০ কিলোমিটার মহাসড়কে চার লেনের কাজ এগিয়ে চলছে   |   শিক্ষা : ঢাবি সিনেটে রেজিস্টার্ড গ্র্যাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচনে ঢাকা কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ আগামীকাল   |    জাতীয় সংবাদ : বিশ্ব ইজতেমার ২য় পর্ব শুরু, লাখো মুসুল্লির জুমার নামাজ আদায় * নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে বিএনপি জনপ্রিয়তা যাচাই করতে পারে : হানিফ * তারুণ প্রজন্মকেই আধুনিক সমাজ বিনির্মাণে এগিয়ে আসতে হবে : শিরীন শারমিন * আইভীকে দেখতে হাসপাতালে ওবায়দুল কাদের   |   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : ড্রোন প্রযুক্তি ব্যবহারে উড়োজাহাজ তৈরি করেছে গোপালগঞ্জের কিশোর আরমানুল ইসলাম   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : দ.কোরিয়ায় অগ্রবর্তী বাদকদল পাঠাবে উ.কোরিয়া * আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর অভিযানে ৮ জঙ্গি নিহত * ইরানের পারমাণু চুক্তির শর্ত কঠিন করাই মার্কিন আইনপ্রণেতাদের লক্ষ্য   |   আবহাওয়া : আবহাওয়া শুষ্ক এবং রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে   |   খেলাধুলার সংবাদ : রেকর্ড ব্যবধানে শ্রীলংকাকে হারিয়ে ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে বাংলাদেশ *তামিমের ১১, সাকিবের ১০ ও সাব্বিরের ১ হাজার রান *৩শ ম্যাচের মাইলফলক স্পর্শ করলেন মুশফিকুর রহিম   |   

আগামীকাল পীরগঞ্জ মুক্ত দিবস

রংপুর, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৫ (বাসস) : আগামীকাল ৬ ডিসেম্বর পীরগঞ্জ থানা মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে পীরগঞ্জ থানা মুক্ত হয়।
শত্রু পক্ষের অন্ধকার যবনিকা কেটে গিয়ে সূর্যোদয়ের পরপরই বহু প্রতিক্ষিত এই সংবাদ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে চারিদিকে। পরদিন ৬ ডিসেম্বর হাজার হাজার স্বাধীনতাকামী নারী-পুরুষ দীর্ঘদিনের কষ্ট-ক্লেদ ভুলে গিয়ে বিজয় মিছিলে অংশ নেয়। তাই ৬ ডিসেম্বরকে পীরগঞ্জ থানা শত্রু মুক্ত দিবস হিসেবে পালন করা হয়।
এলাকার মুক্তিযোদ্ধারা জানান, পাক সেনাদের আস্তানা ছিল পীরগঞ্জ থানা সদরে। ৫ ডিসেম্বর বিকেলে মিত্র বাহিনীর জলপাই রং এর ট্যাং বহর ছুটে আসে দিনাজপুরের হিলি সীমান্ত পেরিয়ে। নবাবগঞ্জ উপজেলার দাউদপুর হয়ে করতোয়া নদী পেরিয়ে মিত্র বাহিনী ও মুক্তিযোদ্ধারা পীরগঞ্জ থানার পশ্চিমাঞ্চলের খালাশপীর, কাদিরাবাদ ও ত্রি-মহোনী ব্রীজের আশপাশে অবস্থান নিয়ে সূর্যাস্তের পূর্বেই পাক সেনাদের আস্থানার উপর আক্রমণ চালায়। এতে এক পর্যায়ে ছত্রভঙ্গ হয়ে পাক সেনারা পিছু হটতে শুরু করে। পাক সেনাদের একটি গ্রুপ রংপুর-ঢাকা মহা সড়কের বড়দগাহ্ নামক স্থানে মিত্র বাহিনীর কাছে বাধাপ্রাপ্ত হয় এবং অপর একটি গ্রুপ গাড়ি বহর নিয়ে মহাসড়ক ধরে বগুড়া সেনা নিবাসের উদ্দেশ্য পালিয়ে যায়। বিচ্ছিন্ন একটি গ্রুপ অস্ত্র ও পোশাক খুলে পায়ে হেঁটে মিঠিপুর ইউনিয়নের গ্রামীণ পথ ধরে পূর্বাঞ্চলে পালিয়ে যায়। পরে তারা মাদারগঞ্জের কাছাকাছি গিয়ে জনগণের হাতে ধরা পড়ে নাজেহাল হয়। এদিকে গর্বভরে বীর বীক্রমে ধীর গতিতে এগিয়ে আসে মিত্র বাহিনীর সাঁজোয়া বাহিনী।
গভীর রাতেই জলপাই রং এর ট্যাংক বহর নিয়ে মিত্র বাহিনী ও মুক্তিবাহিনীর সার্থক জোয়ানরা পীরগঞ্জ থানা সদরে প্রবেশ করে বিজয়ের বেশে। পীরগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং সংগঠন এই দিনটি প্রতি বছরই মর্যাদার সাথে পালন করে আসছে। এবারও বেশ কয়েকটি সংগঠন এই দিবসটি পালনে শোভযাত্রাসহ নানা কর্মসুচি গ্রহণ করেছে।