ঢাকা, মঙ্গলবার, জানুয়ারী ১৬, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

জাতীয় সংবাদ : ঝড়-বৃষ্টির মৌসুমে স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ৫ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা শিশু : ইউনিসেফ   |   জাতীয় সংসদ : শিগগিরই তিস্তা নদীর পানি বন্টন চুক্তি সম্পাদন : পানি সম্পদ মন্ত্রী * বিচারাধীন মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিতে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে : আইনমন্ত্রী * সরকারি শূন্য পদ দ্রুত পূরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে : জন প্রশাসন মন্ত্রী   |   প্রধানমন্ত্রী : একনেকে ১৪ প্রকল্প অনুমোদন : তিন হাজার বিদ্যালয়ে একাডেমিক ভবন নির্মাণ করা হবে * আবুল খায়েরের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক   |   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : ঢাকা শহরের ছাদ ব্যবহার করে ১ হাজার মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব : নসরুল হামিদ   |    অর্থনীতি : নওগাঁয় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ৬ মাসে ৯২ কোটি ৩০ লাখ টাকার ঋণ বিতরণ    |    জাতীয় সংবাদ : ২ বছরের মধ্যে রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন সম্পন্নে রূপরেখা চূড়ান্ত * ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলা : আরো দুই আসামীর পক্ষে যুক্তিতর্ক পেশ * পীরগঞ্জের শীতার্তদের জন্য কম্বল হস্তান্তর করেছেন স্পিকার * জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভা আগামীকাল   |   খেলাধুলার সংবাদ : পুলিশ বর্ষসেরা খেলোয়াড় দ্বীন ইসলাম, লতা পারভীন ও আকলিমা *মাঠে খারাপ আচরণের জন্য কোহলিকে জরিমানা   |   শিক্ষা : বাংলাদেশের জন্মের পেছনে ঢাবির অবদান রয়েছে : ঢাবি উপাচার্য   |    বিভাগীয় সংবাদ : জয়পুরহাটে বোরো ধানের চারা রক্ষা করতে পলিথিনে ঢেকে রাখার পরামর্শ * নীলফামারীতে কৃষক নেমেছে বোরো আবাদের মাঠে : লক্ষ্যমাত্রা ৮৪ হাজার হেক্টর জমি   |   আবহাওয়া : আগামীকাল থেকে দক্ষিণাঞ্চলের শৈতপ্রবাহ কেটে যেতে পারে   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ট্রানজিট বিষয়ে সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর * আফগানিস্তানে আইএসের ২১ যোদ্ধা নিহত * জাপানের জলসীমায় ভেসে আসা নৌকা থেকে ৮ জনের লাশ উদ্ধার * লিবিয়ার পশ্চিম উপকূল থেকে অবৈধ ৩৬০ শরণার্থী উদ্ধার   |   

বিজয়ের পথে : মিত্র বাহিনী ঢাকার চারদিক ঘিরে ফেলেছে, সাগরে সেভিয়েত ও যুক্তরাষ্ট্রের শক্তি প্রদর্শনের মহড়া

ঢাকা, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৪ (বাসস) : একদিন আগেই টাঙ্গাইলে ভারতীয় ছত্রীসেনারা অবতরণ করেছে, সারারাত ধরে ভারতীয় সেনারা মাঠ পর্যয়ের কাজে ব্যস্ত ছিল।
বিকেল সাড়ে পাঁচটায় মারাঠা রেজিমেন্ট লে. কর্নেল কে এস পান্নুর নেতৃত্বে পরিচালিত ২য় ছত্রীসেনার দলের সঙ্গে বংশী নদীতে গিয়ে মিলিত হয়।
সারারাত হেঁটে এসে তারা ঢাকার আশেপাশে এসে অবস্থান নেয়।
এদিকে পাকিস্তানকে সহযোগিতা করার জন্যে বঙ্গোপসাগরে সপ্তম নৌ-বহর এসে পৌঁছে যাওয়ার কথা স্বীকার করে যুক্তরাষ্ট্রের প্রশাসনিক মুখপাত্র জানান, যুক্তরাষ্ট্রের নিজস্ব উদ্যোগে এটি উদ্বাসন করা হয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের সেনারা অবাক হয়ে গেল যখন দেখতে পেলো সাগরে তাদের প্রবেশ পথ ঘেরাও করে রেখেছে সেভিয়েত বহর।
এই প্রথম দুই পরাশক্তি একে অপরের দিকে এমনভাবে মুখোমুখি হলো, তাতে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ বেধে যাওয়ার একটি সম্ভবনা দেখা দিয়েছিল।
ওয়শিংটন ডিসিতে নিরাপত্তা সচিব উইলিয়াম হেইগ যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সনকে জানান, আমি শুনেছি চীনের যে উদ্যোগ, তাতে মনে হয় না তারা সৈন্য দিয়ে যুদ্ধ করতে পাকিস্তানকে সহযোগিতা করবে। বরং ১০ ডিসেম্বর জাতিসংঘে কিসিঞ্জারের বৈঠকে আলোচিত যৌথবাহিনী প্রত্যাহার ও যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবকে হুয়াঙ হুয়া সমর্থন দেবে।
জাতিসংঘে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত জর্জ ডব্লিও বুশ (সিনিয়র) একটি প্রস্তাব দিয়ে ওখানে বলেছে, দ্রুত যুদ্ধ বিরতি, ভারত ও পাকিস্তানের নিজ নিজ সশস্ত্র সৈন্য প্রত্যাহার, যুদ্ধের কারণে জীবন বাঁচাতে যারা শরনার্থী হয়েছে তাদের নিরাপদে স্বদেশে ফিরিয়ে নেয়ার।
অবশেষে বুশের এই প্রস্তাবটি সিকিউরিটি কাউন্সিলের ভোটে (১১-২) সেভিয়েত ইউনিয়নের ভেটোর করণে পাশ করা হয়নি।
জাতিসংঘে বুশ ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শরণ সিং-এর সঙ্গে মিলিত হয়ে তার আলোচনার বিষয়টি অবতারণা করেন।
জাতিসংঘের ভূমিকা : এমতাবস্থায় জাতিসংঘ কোনো কার্যকরি ব্যবস্থা নিতে পারছে না, তাদের মতে বিষয়টি বিতর্কিত হয়ে উঠলে পরিস্থিতি আরো কঠিন হয়ে যাবে এবং দ্বন্ধ আরো বাড়বে।
দ্বি-পাক্ষিক আলোচনায় এর সমাধান আসবে না, বাংলাদেশকে নিয়েই ত্রি-পাক্ষিক আলোচনা প্রয়োজন।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক সহকারী হেনরি কিসিঞ্জারের প্রস্তাব অনুযায়ী-
পাক-ভারত উদ্বাস্তু সমস্যা : চার ধরণে উদ্বাস্তু আছে/ সম্ভবত যুদ্ধবিগ্রহের পথ অনুসরণ করতে হলে একটি আন্তর্জাতিক ভিত্তির সহয়তার প্রয়োজন হবে। ১. ভারতে এক কোটির উপরে পূর্ব পাকিস্তানের উদ্বাস্তু রয়েছে। ২. পূর্ব পাকিস্তানে ছয় লাখেরও বেশী অ-বাঙালী মুসলিম আছে, যারা পশ্চিম পাকিস্তানে যেতে চায়, যেমন পশ্চিম পাকিস্তানি সরকারি কর্মকর্তা ও সৈনিক। ৩. পশ্চিম পাকিস্তানেও ৫০ হাজার থেকে এক লাখের মত বাঙালী রয়েছে, যারা পূর্ব পাকিস্তানে ফিরতে চায়। ৪. একটি অনির্ধারিত সংখ্যা যারা পূর্ব পাকিস্তানে যুদ্ধের কারণে গৃহহারা হয়েছে।
এদিকে মিত্র বাহিনী কুষ্টিয়া মুক্ত করে। পাকিস্তানিরা যেন আবার ফিরে না আসতে পারে তাই পদ্মা নদীর উপরের হার্ডিঞ্জ ব্রিজটি ট্যাংক দিয়ে উড়িয়ে দেয়া হয়েছিল।