ঢাকা, বুধবার, জানুয়ারী ১৭, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

বিনোদন ও শিল্পকলা : বাচ্চাদের বই পড়ায় আগ্রহী করে তুলতে হবে : সংস্কৃতি মন্ত্রী   |    জাতীয় সংবাদ : আতিকুল ইসলাম ঢাকা উত্তর সিটি কার্পোরেশন উপ-নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী * বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী শাম্মী আক্তার আর নেই   |    জাতীয় সংবাদ : বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চ শিক্ষায় নতুন মাত্রা যোগ করেছে : শিক্ষামন্ত্রী * সুন্দরবন অঞ্চল নিরাপদ রাখতে আরো ৪টি র‌্যাব ক্যাম্প স্থাপন করা হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী * ঝড়-বৃষ্টির মৌসুমে স্বাস্থ্য ও নিরাপত্তা ঝুঁকিতে ৫ লক্ষাধিক রোহিঙ্গা শিশু : ইউনিসেফ   |   জাতীয় সংসদ : একই পরিবারের চারজন পরিচালক রাখার বিধান করে সংসদে ব্যাংক কোম্পানী সংশোধন বিল পাস * বিচারাধীন মামলা দ্রুত নিষ্পত্তিতে কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে : আইনমন্ত্রী * সরকারি শূন্য পদ দ্রুত পূরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে : জন প্রশাসন মন্ত্রী   |   প্রধানমন্ত্রী : প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ উন্নয়ন ফোরামের উদ্বোধন করবেন আগামীকাল * একনেকে ১৪ প্রকল্প অনুমোদন : তিন হাজার বিদ্যালয়ে একাডেমিক ভবন নির্মাণ করা হবে * আবুল খায়েরের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক   |   বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : ঢাকা শহরের ছাদ ব্যবহার করে ১ হাজার মেগাওয়াট সৌরবিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব : নসরুল হামিদ   |    অর্থনীতি : নওগাঁয় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংকের ৬ মাসে ৯২ কোটি ৩০ লাখ টাকার ঋণ বিতরণ    |    জাতীয় সংবাদ : এই অঞ্চলের স্বাধীনতার নেতাদের হত্যার কারণ খুুঁজে বের করতে হবে : প্রণব মুখোপাধ্যায় * ২ বছরের মধ্যে রোহিঙ্গা প্রত্যাবর্তন সম্পন্নে রূপরেখা চূড়ান্ত * ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলা : আরো দুই আসামীর পক্ষে যুক্তিতর্ক পেশ    |   খেলাধুলার সংবাদ : পুলিশ বর্ষসেরা খেলোয়াড় দ্বীন ইসলাম, লতা পারভীন ও আকলিমা *মাঠে খারাপ আচরণের জন্য কোহলিকে জরিমানা   |   শিক্ষা : বাংলাদেশের জন্মের পেছনে ঢাবির অবদান রয়েছে : ঢাবি উপাচার্য   |    বিভাগীয় সংবাদ : জয়পুরহাটে বোরো ধানের চারা রক্ষা করতে পলিথিনে ঢেকে রাখার পরামর্শ * নীলফামারীতে কৃষক নেমেছে বোরো আবাদের মাঠে : লক্ষ্যমাত্রা ৮৪ হাজার হেক্টর জমি   |   আবহাওয়া : আগামীকাল থেকে দক্ষিণাঞ্চলের শৈতপ্রবাহ কেটে যেতে পারে   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ট্রানজিট বিষয়ে সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষর * আফগানিস্তানে আইএসের ২১ যোদ্ধা নিহত * জাপানের জলসীমায় ভেসে আসা নৌকা থেকে ৮ জনের লাশ উদ্ধার * লিবিয়ার পশ্চিম উপকূল থেকে অবৈধ ৩৬০ শরণার্থী উদ্ধার   |   

বিজয় ৭১ : ঢাকার ওপর চাপ সৃষ্টি করতে টাঙ্গাইলে ছত্রীসেনার অবতরণ

ঢাকা, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৪ (বাসস) : জাতিসংঘ যখন উপ-মহাদেশে যুদ্ধ বন্ধের সম্ভাব্য বিভিন্ন উপায় নিয়ে আলোচনা করছিল, তখন ঢাকায় চূড়ান্ত অভিযান পরিচালনার জন্য রাজধানী থেকে ১শ মাইল দূরে টাঙ্গাইলে ছত্রীসেনা অবতরণ করে।
১১ ডিসেম্বর বিকেল সাড়ে ৪টায় ছত্রীসেনা অবতরণ করে। ৫০ প্যারাসুট ব্রিগেডের কমান্ডার লে. কর্নেল কুলবন্ত সিংয়ের অধীনে প্রায় ১ হাজার ছত্রীসেনা নামানো হয়। এলাকার গ্রামবাসী তাদের বিপুল উৎসাহ নিয়ে স্বাগত জানায় এবং তাদের অস্ত্র, গোলাবারুদ বহনে সহায়তা করে।
ছাত্রসেনারা দ্রুত তাদের অবস্থান সংহত করে এবং বংশী নদীর উপর একটি সেতুর নিয়ন্ত্রণ নেয়। অধিকৃত নগরীর পূর্ব পশ্চিম দিকে থেকে মিত্রবাহিনীর ঢাকামুখী সড়ক নিরাপদ করার চেষ্টা করে তারা।
এদিকে অবরুদ্ধ ঢাকা থেকে জাতিসংঘ মহাসচিব উ থাণ্ট-এর কাছে একটি বার্তা পাঠান পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ড প্রধান জেনারেল নিয়াজীর বেসামরিক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল রাও ফরমান আলী। পূর্ব পাকিস্তান প্রশাসন ও সামরিক কমান্ডের পক্ষ থেকে তিনি পূর্ব পাকিস্তানে আটকে পড়া পাকিস্তানী সেনা ও বেসামরিক নাগরিকদের প্রত্যাবসনে জাতিসংঘের সহায়তা চান।
তার এই বার্তা থেকে এটা পরিস্কার যে পাকিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় কমান্ড প্রতিরোধের সব আশা-ভরসা ত্যাগ করেছে।
বিষয়টি নিয়ে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে আলোচনা হয়। কিন্তু পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট ইয়াহিয়া খান প্রত্যাবসনের কথা অস্বীকার করেন। তিনি বলেন, আমরা যুদ্ধবিরতি চাই, পূর্ব পাকিস্তান থেকে সৈন্য প্রত্যাহার চাই।
ওদিকে ওয়াশিংটন ডি সিতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের জাতীয় নিরাপত্তা বিষয়ক সহকারী হেনরি কিসিঞ্জার প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সনকে উপমহাদেশের সর্বশেষ পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করেন। তিনি বলেন, ১৬টি সোভিয়েত নৌ ইউনিট এখন ভারত মহাসগর এলাকায় অবস্থান করছে। তাতে তিনটি স্পেস সাপোর্ট জাহাজও রয়েছে। এর অর্ধেকই যুদ্ধজাহাজ।
হেনরি কিসিঞ্জার পাকিস্তানের উপ-প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী জুলফিকার আলী ভুট্টোর সঙ্গেও টেলিফোনে কথা বলেন। তিনি বলেন, আমাদের মূল প্রস্তুাব পরাজিত হয়েছে। এখন আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে আপনি যুদ্ধবিরতি প্রস্তাবে রাজি কিনা। এর মানে এই নয় যে আমরা আপনাকে সহায়তা করতে চাই না। বরং আমরা আপনাকে রক্ষা চাইল।
এদিকে মিত্রবাহিনী এদি পার্বত্য অঞ্চল, ময়মনসিংহ, কুষ্টিয়া ও নোয়াখালী মুক্ত করে।