ঢাকা, সোমবার, এপ্রিল ২৩, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

রাষ্ট্রপতি : রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ মঙ্গলবার দ্বিতীয় মেয়াদে রাষ্ট্রপতি হিসেবে শপথগ্রহণ করবেন * বাংলাদেশ স্বাস্থ্য ও পুষ্টিখাত উন্নয়নে বিশ্বে রোল মডেল : রাষ্ট্রপতি * নিষ্ঠার সঙ্গে নিজ নিজ দায়িত্ব পালনে বিজেএসসির প্রতি রাষ্ট্রপতির আহ্বান   |    জাতীয় সংবাদ : তারেক রহমানকে লন্ডন থেকে ফিরিয়ে আনতে আলোচনা চলছে : আইনমন্ত্রী * ভারতে গেলেন আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি দল * পাহাড়ের ঢালে অবৈধ বসবাসকারীদের কঠোরভাবে প্রতিরোধের আহবান মায়ার   |   প্রধানমন্ত্রী : প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল দেশে ফিরছেন * পুষ্টিক্ষেত্রে কাঙ্খিত লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সমন্বিত কার্যক্রমের বিকল্প নেই : শেখ হাসিনা * বিএনপি-জামায়াতের অপপ্রচারের উপযুক্ত জবাব দিন : প্রধানমন্ত্রী * প্রধানমন্ত্রীকে লেখা চিঠির উত্তর পেয়ে ছোট্ট সেঁজুতি অভিভূত   |   খেলাধুলার সংবাদ : দ্বিতীয় খেলোয়াড় হিসেবে পাঁচটি কোপা ফাইনালে গোল করলেন মেসি * সেভিয়াকে বিধ্বস্ত করে ৩০তম কোপা ডেল রে শিরোপা জিতলো বার্সেলোনা   |    জাতীয় সংবাদ : সরকারের কার্যকরী পদক্ষেপের ফলেই বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ : শিক্ষামন্ত্রী * পদ্মা সেতুর ওপর রেল সংযোগ প্রকল্পের ঋণ চুক্তি আগামী ২৮ এপ্রিল সই হবে : রেলমন্ত্রী * প্রশিক্ষিত মানবসম্পদই দেশকে উন্নত ও সমৃদ্ধ দিকে নিয়ে যেতে পারে : নুরুল ইসলাম বিএসসি   |   আবহাওয়া : দেশের কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলাবৃষ্টি হতে পারে   |    অর্থনীতি : ভোলায় বোরোর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা   |    বিভাগীয় সংবাদ : নড়াইলে উচ্ছে চাষে ঝুকছেন কৃষকরা   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : আফগানিস্তানে সংঘর্ষে ১১ জন নিহত * চীনের দক্ষিণাঞ্চলে নৌকাডুবিতে ১৭ জনের মৃত্যু * সিরিয়ার রাকায় গণকবরে ২শটি লাশ পাওয়া গেছে * সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে দাগেস্তানে ৯ জন নিহত   |   

জীবনযুদ্ধে আহত এক মুক্তিযোদ্ধা

॥ জাহিদুল হক ॥
খুলনা, ২ ডিসেম্বর, ২০১৪ (বাসস) : মুক্তিযুদ্ধের সময় এই মাটির এক সাহসী সন্তান রাজাকার ও আল-বদর বাহিনীর সঙ্গে প্রচ- যুদ্ধ করতে-করতে বুলেট বিদ্ধ হওয়ার পর মৃত্যুর মুখ থেকে জীবিত ফিরে এলেও, এখন বন্দর নগরীতে তার একটি জীর্ণ কুটিরে লড়ছেন নিদারুণ জীবন যুদ্ধে।
জেলার পাইকগাছা উপজেলার বাগুরারচক গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. আব্দুল খালেক সানা (৬৫) কপিলমনি গ্রামে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর সহযোগিদের বিরুদ্ধে তার অন্যান্য সহযোগী মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে একটি সম্মুখ যুদ্ধে সামিল ছিলেন।
কিন্তু সানা ও তার সহ-যোদ্ধাদের কয়েকজন বুলেট বিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হওয়ার পর তিনি স্থানীয় ডাক্তারের কাছ থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নেন এবং স্বাধীনতার পর তিনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের দুটি হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করেন।
১৯৭২ সালের ১৩ মে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মুক্তিযুদ্ধে মো. আব্দুল খালেক সানার ভূমিকার স্বীকৃতি হিসেবে তাকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা সম্বলিত একটি পত্র সহ পাঁচশ টাকার চেক পাঠিয়েছিলেন।
সানাকে পাঠানো চিঠিতে বঙ্গবন্ধু বলেছেন, আপনি আপনার জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সত্যিকার দেশপ্রেমের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করার জন্য আমি আপনাকে আমার আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।
এই বীর, এখন দৈনন্দিন খাবারের অভাবে অপুষ্টি ও চিকিৎসা করতে না পারায় তার দুই উরুর অসহনীয় যন্ত্রনা নিয়ে নগরীর সোনাডাঙ্গার থানার ১, বি কে রায় রোডে মৃত্যুর প্রহর গুনছেন।
আমার দুই উরুর মধ্যে অসহনীয় যন্ত্রনার চিকিৎসার জন্য টাকা নেই এবং টাকার অভাবে ভালো খাবার খেতে পারি না, সানা জানান, তিনি এখন তার ডান চোখের দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছেন, বাম চোখও একই পথ অনুসরণ করছে।
আহত মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সানা সরকারের কাছ থেকে স্বল্প পরিমাণের অর্থ সাহায্য পেয়ে থাকেন যা দিয়ে তিনি কোনো রকমে জীবন যাপন করে আসছেন। গত আট বছর ধরে তার স্ত্রী পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে শয্যাশায়ী ছিলেন, কিন্তু তাকে চিকিৎসা করানোর সামর্থ্য ছিলো না।
অশ্রুসিক্ত কন্ঠে এই বীর বলেন, আহত মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে সরকারের কাছ থেকে আমি প্রতি মাসে ১৬ হাজার টাকা করে পাচ্ছি, নয় সদস্য বিশিষ্ট পরিবারের জন্য এটি যথেষ্ট নয়।
গত ৩০ নভেম্বর তার স্ত্রী হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। এখন তিনি তার পরিবারের ভবিষ্যৎ নিয়ে খুবই উদ্বিগ্ন, কারণ তার রয়েছে তিনটি অবিবাহিত কন্যা ।
সানা জানান, বঙ্গবন্ধুর আহ্বানে তিনি মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন।
সানা ও তার সহকর্মী মুক্তিযোদ্ধা গাজী রহমতুল্লাহ, শেখ এস এম বাবর আলী, শেখ ইউনুস আলী ইনু, আব্দুস সালাম, শেখ আব্দুল কাইয়ূম, এস এম আলাউদ্দিন এবং কে এম আহাদ ১৯৭১ সালের ৫ ডিসেম্বরের মধ্যরাতে পাইকগাছা উপজেলার কপিলমনিতে রাজাকার ও আল-বদর বাহিনীর একটি ক্যাম্প অতর্কিতে হামলা চালায়। মুক্তিযোদ্ধাদের উপস্থিতি টের পেয়ে রাজাকার এবং আল-বদর বাহিনীও তাদের উপর গুলি চালায়, । এক পর্যায়ে বুলেট এসে আমার দুই উরুতে আঘাত করে এবং আমি এক ঘন্টার জন্য অজ্ঞান হয়ে পড়ি, সানা বলেন, এর তিনদিনের মাথায় এই রাজাকার ও আল-বদর বাহিনী আত্মসমর্পণ করেছিল।

সম্পর্কিত সংবাদ