ঢাকা, মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ২০, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

প্রধানমন্ত্রী : ২১ বিশিষ্ট নাগরিককে প্রধানমন্ত্রীর একুশে পদক প্রদান   |   আবহাওয়া : রাত এবং দিনের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধি পেতে পারে   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : বিজয় সরকারের ১১৬তম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে তিনদিনব্যাপী উৎসব শুরু   |    বিভাগীয় সংবাদ : জয়পুরহাটে স্কাউটিং বিষয়ক ওরিয়েন্টেশন কোর্স অনুষ্ঠিত *চুয়াডাঙ্গা সাহিত্য সম্মাননা পদক পাচ্ছেন ইবি শিক্ষক ড. রবিউল * জয়পুরহাটে অমর একুশে উদযাপনে কর্মসূচি গ্রহণ *সিলেট নগরীর বর্জ্য ব্যবস্থাপনায় গ্রীন ভ্যালিসহ নতুন পরিকল্পনা   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : ফিলিপাইনে ডায়রিয়ায় ১০ জনের মৃত্যু   |   

দেশপ্রেম, সততা ও আন্তরিকতা দিয়ে দেশের উন্নয়নে শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসার আহবান

ঢাকা, ৩১ জানুয়ারি, ২০১৮ (বাসস) : শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ দেশপ্রেম, সততা ও আন্তরিকতা নিয়ে দেশের উন্নয়নে শিক্ষার্থীদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, আমরা নতুন এক প্রজন্ম চাই, যারা হবে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে উন্নত, জাতীয় মূল্যবোধ সম্পন্ন, দেশপ্রেম ও দেশের মানুষের প্রতি দায়িত্বশীল।
মন্ত্রী আজ বুধবার মিরপুর সেনানিবাসে মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজির (এমআইএসটি) বিএসসি ইন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রি অর্জনকারী ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে মেডেল ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ আহ্বান জানান।
শিক্ষামন্ত্রী উপস্থিত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশের সামগ্রিক কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধির ব্যাপারে তোমরা নিরলস কাজ করে যাবে বলে আমার দৃঢ় বিশ্বাস। প্রযুক্তির দ্রুত সম্প্রসারণ বৈপ্লবিকভাবে বিশ্বায়নে অভূতপূর্ব পরিবর্তন এনেছে এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন,নিরলস প্রচেষ্টা এবং কর্মক্ষেত্রের অভূর্তপূর্ব সাফল্য ভবিষ্যৎ প্রজন্মের পাথেয় হয়ে থাকবে। নিরলস জ্ঞান চর্চার মাধ্যমে তোমরা আত্মশুদ্ধির অভ্যাস গড়ে তোলো।
মন্ত্রী একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে ছাত্রছাত্রীদের দায়িত্বপূর্ণ নাগরিক হওয়ার বিষয়ে গুরুত্ব আরোপ করেন।
তিনি সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে দেশের সকল প্রযুক্তি ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানকে আন্তরিক হবার আহ্বান জানান।
এমআইএসটিকে একটি রোল মডেল উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীদেরকে দক্ষ, বিবেকবান ও দায়িত্ব-কর্তব্যে সচেতন হিসেবে গড়ে তোলার আহ্বান জানান। মেধা ও মননের পরিপূর্ণ বিকাশ ঘটিয়ে নতুন প্রজন্মের অগ্রসেনানী হবার আশাবাদ ব্যক্ত করেন ।
উল্লেখ্য,চলতি বছর গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেন ৫১৪ জন শিক্ষার্থী। এর মধ্যে ৪৩৭ জন বেসামরিক, ৭৬ জন সামরিক এবং এক জন বিদেশী শিক্ষার্থী রয়েছেন।
অনুষ্ঠানে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আবু বেলাল মোহাম্মদ শফিউল হক, প্রতিরক্ষা সচিব আখতার হোসেন ভুইয়া, সেনাবাহিনীর ইঞ্জিনিয়ার-ইন-চীফ মেজর জেনারেল মো: ছিদ্দিকুর রহমান সরকার, এমআইএসটির কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল মো: আবুল খায়ের, কূটনীতিকবৃন্দ, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।