ঢাকা, শুক্রুবার, জানুয়ারী ১৯, ২০১৮

সংবাদ শিরোনাম 

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি : এখন থেকে দেশেই উৎপাদন হবে কম্পিউটার   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : আফগানিস্তানে সরকারি বাহিনীর অভিযানে ৮ জঙ্গি নিহত * ক্যালিফোর্নিয়ায় ১৩ শিশুকে আটকে রাখা দম্পতিকে আদালতে তোলা হচ্ছে * মুক্ত হওয়ার এক মাস পর ইরাকে আইএসের হুমকি * অস্ট্রেলিয়ার উলুরুর কাছে হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত : আহত ৪   |    জাতীয় সংবাদ : বেসরকারি মেডিকেল কলেজের নীতিমালাকে আইনে রূপান্তরিত করার প্রক্রিয়া দ্রুত সম্পন্ন করার নির্দেশ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর * মেধাসম্পদের অনলাইন নিবন্ধন সেবা চালু * জ্ঞানভিত্তিক সমাজ ও দেশপ্রেমিক মানুষ গড়ার তাগিদ দিলেন শিক্ষামন্ত্রী   |   জাতীয় সংসদ : ডিসেম্বর নাগাদ পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হবে : সেতু মন্ত্রী * ছয় মাসে ১২২.৬৪ একর রেলভূমি দখলমুক্ত করা হয়েছে : রেলপথ মন্ত্রী * দেশে সাক্ষরতার হার শতকরা ৭১ ভাগ : পরিকল্পনামন্ত্রী   |   প্রধানমন্ত্রী : প্রধানমন্ত্রীকে সেনাবাহিনীর এসডব্লিউও কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন দুটি প্রকল্প সম্পর্কে অবহিতকরণ   |    জাতীয় সংবাদ : মরতুজা আহমদ নতুন প্রধান তথ্য কমিশনার * মুন সিনেমা হলের মালিককে ৯৯ কোটি টাকা দেয়ার নির্দেশ * রিট করেছে বিএনপি, দোষ পড়েছে আওয়ামী লীগের : ওবায়দুল কাদের * প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ মর্যাদার আসনে অধিষ্ঠিত হয়েছে : তোফায়েল আহমেদ   |   বিনোদন ও শিল্পকলা : ঝিনাইদহে ১৫ দিনব্যাপী যাত্রা উৎসব শুরু   |    বিভাগীয় সংবাদ : বরগুনায় দুদকর আয়োজনে শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ *জয়পুরহাটে প্রবীণদের কম্বল, বয়স্ক ভাতা, উপকরণ প্রদান *হবিগঞ্জে ১১ জন আসামি গ্রেফতার * ভোলায় ৫টি বদ্ধভূমির সংস্কার ও উন্নয়ন করা হচ্ছে   |   খেলাধুলার সংবাদ : পিএসজির আট গোলের বিশাল জয়ে নেইমারের চার গোল *কোপা ডেল রে : মেসির পেনাল্টি মিসে বার্সেলোনার হার * হাথুরুসিংহের পরিকল্পনা ভুলে গেছে বাংলাদেশ : মাশরাফি * শ্রীলংকার বিপক্ষেও জয়ের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামবে বাংলাদেশ * বর্ষসেরা ক্রিকেটার নির্বাচিত হলেন কোহলি   |   আবহাওয়া : দেশের কিছু স্থানে শৈত্যপ্রবাহ কেটে যেতে পারে   |    জাতীয় সংবাদ : বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব আগামীকাল থেকে শুরু * নির্বাচন বন্ধের জন্য বিএনপিকে অভিযুক্ত করা উচিত * জ্ঞান ও প্রযুক্তি রপ্তানিতেও সক্ষমতা অর্জন করতে হবে : শিক্ষামন্ত্রী * শিশু আলপনা হত্যা মামলায় ২ আসামির ফাঁসির রায় বহাল   |   প্রধানমন্ত্রী : রংপুর সিটি কর্পোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শপথ গ্রহণ * প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিলে ২০ প্রতিষ্ঠানের অনুদান প্রদান * ওপেক বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক সম্প্রসারণে আগ্রহী   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : কাজাখস্তানে বাস দুর্ঘটনায় ৫২ জন নিহত * নির্ধারিত সময়ে কম্বোডিয়ার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে : কম্বোডিয়ার প্রধানমন্ত্রী * কান্দাহারে অনলাইনে শিক্ষা নিচ্ছে আফগান তরুণীরা * ট্রাম্পের এক বছরে যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া সম্পর্কোন্নয়নে ব্যর্থ   |   

আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলেই দেশে শিক্ষাসহ সর্বক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয় : শিল্পমন্ত্রী

ঢাকা, ১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ (বাসস) : শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলেই দেশে শিক্ষাসহ সর্বক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বেসরকারী রেজিস্টার্ড ও কমিউনিটি মিলিয়ে ২৬ হাজারের বেশি প্রাথমিক বিদ্যালয় সরকারী করেছেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও স্বাধীনতার পর ৩৭ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর নীতির আলোকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই সাহসী উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন। আওয়ামী লীগ ছাড়া অন্য কোন সরকার দেশে এ ধরনের কোন উদ্যোগ নেয়নি।
শিল্পমন্ত্রী রোববার দুপুরে রাজধানীর মতিঝিলে অবস্থিত বিসিআইসি মিলনায়তনে মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
মুসলিম এইড-ইউকে বাংলাদেশের ফিল্ড অফিসের উদ্যোগে ও এডুকেশনাল, চ্যারিটেবল এন্ড হিউম্যানিটেরিয়ান অর্গানাইজেশান (ইসিএইচও)-এর সহযোগিতায় ঢাকা অঞ্চলের মেধাবী শিক্ষার্থীদের মাঝে এই বৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
মুসলিম এইড-ইউকে বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর মো. মাহফুজুর রহমান অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ও সভায় সভাপতিত্ব করেন। মেধাবী শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থী তাসলিমা সুলতানা মিতু প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন।
এসময় বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ড্রাট্রিজ-এর চেয়ারম্যান শাহ মো. আমিনুল হকসহ মুসলিম এইড-ইউকে বাংলাদেশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ ও মেধাবী শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, আজকের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে ঢাকা অঞ্চলের কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পড়য়া ১০৬ জন মেধাবী শিক্ষার্থীর মাঝে ৭ লাখ টাকার বৃত্তির চেক হস্তান্তর করা হয়।
আমির হোসেন আমু বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে দরিদ্র মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে তাদের জন্য বিভিন্ন ভাতা প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণ করেন। ২০০৮ ও ২০১৪ সালে আবারও ক্ষমতায় এসে এসব ভাতা ও সুবিধা বাড়ানো হয়েছে।
আমির হোসেন আমু শিক্ষা বাংলাদেশের সংবিধান স্বীকৃত একটি মৌলিক অধিকার উল্লেখ করে বলেন, বর্তমান সরকার সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করতে বদ্ধপরিকর। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমাদের সরকার ২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের এবং ২০৪১ সাল নাগাদ উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে কাজ করছে। এ লক্ষ্য অর্জনের জন্য দেশে দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনগোষ্ঠি গড়ে তোলা প্রয়োজন।
শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ হচ্ছে এ লক্ষ্য অর্জনের কার্যকর হাতিয়ার উল্লেখ করে শিল্পমন্ত্রী বলেন, এটি বিবেচনায় এনে বর্তমান সরকার শিক্ষাখাতে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে চলেছে। আমরা আজকের শিক্ষার্থীকে ভবিষ্যতের জন্য হিউম্যান ক্যাপিটাল হিসেবে বিবেচনা করে থাকি। শিশুদের উপযুক্ত শারীরিক ও মানসিক বিকাশ ঘটিয়ে তাদেরকে দক্ষ জনশক্তিতে পরিণত করাই আমাদের লক্ষ্য।
আমির হোসেন আমু বলেন, গুণগত শিক্ষার প্রসারের লক্ষ্যে আমাদের সরকারের গত মেয়াদে জাতীয় শিক্ষানীতি-২০১০ প্রণয়ন করা হয়েছে। এ শিক্ষানীতির আলোকে শিক্ষার্থীদের জন্য উপবৃত্তি প্রদান, বিনামূল্যে বই বিতরণ, াতক পর্যন্ত মেয়েদের অবৈতনিক শিক্ষা, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার অবকাঠামো উন্নয়ন, শিক্ষকদের মর্যাদা ও বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, প্রথম শ্রেণীতে ভর্তির ক্ষেত্রে লটারি পদ্ধতি চালু করা হয়েছে।
তিনি আরও বলেন, এছাড়া নতুন কারিক্যুলাম প্রণয়ন, দেশে-বিদেশে শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ, গরীব ও মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তি, উচ্চ শিক্ষার মানোন্নয়নের লক্ষ্যে গবেষণার সুযোগ বৃদ্ধি, নতুন পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় এবং মেডিকেল করেজ স্থাপনের অনুমোদন দেয়া হয়েছে। সরকারের এসব উদ্যোগ দেশে গুণগত শিক্ষার প্রসার, জ্ঞানভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণ এবং বিশ্ব প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে সক্ষম দক্ষ ও প্রশিক্ষিত জনবল সৃষ্টির প্রয়াস জোরদার করবে বলে আমার বিশ্বাস।
আমির হোসেন আমু বলেন, বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে শতকরা ৬০ থেকে ৭০ ভাগ শিক্ষার্থী কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হচ্ছে। এখন বাংলাদেশে এর পরিমাণ দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। শিল্পোন্নত জার্মানিতে শতকরা ৬৬ ভাগ, সিঙ্গাপুরে শতকরা ৬৫ ভাগ শিক্ষার্থী টেকনিক্যাল এডুকেশন লাভ করছে। ফলে তাদের শিক্ষার্থীরা একদিনের জন্যও বেকার থাকে না। অথচ বাংলাদেশে প্রতিবছর বিপুল সংখ্যক শিক্ষিত তরুণ চাকুরির বাজারে আসছে। কিন্তু আমাদের দেশে ম্যানেজারিয়াল জব এর পরিমাণ খুবই সীমিত। অন্যদিকে টেকনিক্যাল পদে বিস্তর কর্মসংস্থানের সুযোগ থাকলেও দক্ষ ও উপযুক্ত ডিগ্রিধারী প্রার্থীর তীব্র সংকট দেখা যাচ্ছে। কেবলমাত্র কারিগরি জ্ঞানে প্রাজ্ঞ, দক্ষ ও অভিজ্ঞ জনসম্পদ তৈরির মাধ্যমে এ ক্ষতি পূরণ করা সম্ভব।