ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৭

সংবাদ শিরোনাম 

খেলাধুলার সংবাদ : পাকিস্তান সফরে যাবে না লংকান কোচ   |    বিভাগীয় সংবাদ : জয়পুরহাটে গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণে ১ হাজার ১৭৮টি প্রকল্প বাস্তবায়ন *নিষেধাজ্ঞা শেষ : পদ্মা মেঘনায় ইলিশ ধরা শুরু *কচা নদীর ওপর নির্মিত হবে বেকুটিয়া সেতু   |   আবহাওয়া : সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকবে   |    আন্তর্জাতিক সংবাদ : নাইজেরিয়ায় ত্রয়ী আত্মঘাতী হামলায় ১৩ জন নিহত *জাপানে ঘূর্ণিঝড়ের আঘাতে ২ জনের প্রাণহানি   |    জাতীয় সংবাদ : জামায়াত নেতা আজিজসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে রায় যে কোন দিন *সৈয়দ আশরাফের স্ত্রীর ইন্তেকাল   |   

আবুল কালাম আজাদ

ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক

বিশিষ্ট সাংবাদিক আবুল কালাম আজাদ বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক পদে সচিব পদমর্যাদায় তিন বছরের জন্য ৩ ফেব্রুয়রি, ২০১৪ তারিখে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগপ্রাপ্ত হন। মেয়াদ শেষে আরও তিন বছরের জন্য অর্থাৎ ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত তাকে পুনঃনিয়োগ দেয়া হয়৤

আবুল কালাম আজাদ ২০০৯ সাল হতে জানুয়ারি, ২০১৪ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রেস সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে তিনি ওয়াশিংটনে বাংলাদেশ দুতাবাসে প্রেস মিনিস্টার ছিলেন।

২০০২ সালে দেশে ফিরে তিনি আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সংসদে তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা শেখ হাসিনার প্রেস সচিব হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। একটানা এই দায়িত্ব পালন শেষে ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করার পরপরই তাকে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব নিযুক্ত করা হয়৤

আবুল কালাম আজাদ ১৯৭৩ সালে দৈনিক ইত্তেফাকে তার সাংবাদিকতা জীবন শুরু করেন। দেশের এই প্রধান বাংলা দৈনিক পত্রিকায় তিনি দীর্ঘদিন গুরুত্বপূর্ণ পেশাগত দায়িত্ব পালন করেন। একই সময়ে তিনি সাংবাদিকতা পেশার উৎকর্ষ ও মর্যাদা বৃদ্ধির ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখেন। সাংবাদিকতা জীবনে তিনি বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি, মহাসচিব ও কোষাধ্যক্ষ এবং ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক ছিলেন। তিনি সাংবাদিক-কর্মচারিদের জন্য গঠিত পঞ্চম ওয়েজ বোর্ডেরও সদস্য ছিলেন।

আবুল কালাম আজাদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্য ছিলেন৤ তিনি প্রেস ইন্সটিটিউট অব বাংলাদেশ (পিআইবি)-’র পরিচালনা বোর্ডের, চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের এবং বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সদস্য ছিলেন।

ঢাকা বিশ্বদ্যিালয়ের সাবেক ছাত্র আবুল কালাম আজাদ মস্কো থেকে উন্নয়ন সাংবাদিকতা বিষয়ে ডিপ্লোমা ডিগ্রী লাভ করেন। শিক্ষাজীবনে তিনি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ছিলেন। এছাড়াও তিনি ১৯৬৯ সালের ঐতিহাসিক গণঅভ্যুত্থানের সময়ে গঠিত সর্বদলীয় ছাত্রসংগ্রাম পরিষদের ঢাকা বিভাগীয় কোষাধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

তিনি বর্তমানে বঙ্গবন্ধু পরিষদের জাতীয় কমিটির সদস্য এবং এ সংগঠনের মুন্সিগঞ্জ জেলা শাখার সভাপতি। তিনি বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথেও যুক্ত রয়েছেন।