ইন্দো-বাংলা যৌথ প্রশিক্ষণ সম্প্রীতি-৮ সমাপ্ত

ঢাকা, ১৪ মার্চ, ২০১৯ (বাসস) : বাংলাদেশ ও ভারতীয় সেনাবাহিনীর মধ্যকার প্রতিরক্ষা সহযোগিতা উন্নয়নের অংশ হিসেবে আয়োজিত ইন্দো-বাংলাদেশ যৌথ প্রশিক্ষণ “সম্প্রীতি-৮” এর সমাপনী অনুষ্ঠান আজ বৃহস্পতিবার টাঙ্গাইলের বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার রিভা গাঙ্গুলি দাস প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। তিনি অনুশীলনে অংশগ্রহণকারী সকল সদস্যকে সফলতার সাথে অনুশীলন সম্পন্ন করায় আন্তরিক অভিনন্দন জানান।
আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ একথা জানানো হয়।
ভারত ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর মধ্যে সন্ত্রাস দমন ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পারস্পরিক সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গত ১ মার্চ হতে ১৪ মার্চ পর্যন্ত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১৯ পদাতিক ডিভিশনের অন্তর্গত বঙ্গবন্ধু সেনানিবাসে “এক্সারসাইজ সম্প্রীতি-৮” অনুষ্ঠিত হয়।
সন্ত্রাস দমন ও দুর্যোগ মোকাবেলা বিষয়ে জাতীয় কর্ম পরিকল্পনা, সমন¡য় ও তৃণমূল পর্যায়ে বাস্তবায়ন বিষয়ে তাত্ত্বিক বিষয়সমূহ কমান্ড পোস্ট এক্সারসাইজ (সিপিএক্স) এর অনুশীলন করা হয়।
পরবর্তীতে এসকল তাত্ত্বিক বিষয়সমূহ ফিল্ড ট্রেনিং এক্সারসাইজ (এফটিএক্স) এ ব্যবহারিক প্রয়োগের মাধ্যমে ভূমিতে বাস্তবতার নিরিখে যাচাই করা হয়।
এই প্রশিক্ষণে উভয় দেশের সর্বমোট ৬০ জন অফিসার, ২০ জন জেসিও এবং ২৬০ জন অন্য পদবীর সেনাসদস্য অংশগ্রহণ করেন।
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ১৯ পদাতিক ডিভিশনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এ প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়। জেনারেল অফিসার কমান্ডিং, ১৯ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও ঘাটাইল এরিয়া কমান্ডার মেজর জেনারেল মিজানুর রহমান শামীম অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
এবারের যৌথ প্রশিক্ষণের মূল প্রতিপাদ্য ছিল সন্ত্রাস দমন ও দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা। বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার প্রতিরক্ষা সহযোগিতা উন্নয়নের অংশ হিসেবে এই যৌথ অনুশীলন “এক্সারসাইজ সম্প্রীতি-৮” অনুষ্ঠিত হয়েছে।