নীলফামারীতে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে ভুট্টার আবাদ

243

নীলফামারী, ১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ (বাসস) : জেলায় লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে ভুট্টার আবাদ। আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষক।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ সূত্র জানায়, চলতি মৌসমে জেলায় ১৮ হাজার ৩৯৫ হেক্টর জমিতে ভুট্টা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছিল। আবাদ হয়েছে ২০ হাজার ৫২৫ হেক্টর জমিতে। বীজ, সারের সহজ প্রাপ্যতা ও আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় অতিরিক্ত দুই হাজার ১৩০ হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে। গড় ফলন ধরা হয়েছে এক লাখ ৮৬ হাজার ৯৮৩ মেট্রিক টন।
জেলায় গত বছর ভুট্টার আবাদ হয়েছিল ১৯ হাজার ৪৫০ হেক্টর জমিতে। ফলন হয়েছিল এক লাখ ৬৭ হাজার ৫৭৮ মেট্রিক টন। এতে প্রতি হেক্টরে গড় উৎপাদন হয়েছিল প্রায় ১০ মেট্রিকটন। ফসল উঠা পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে ওই উৎপাদনের পরিমাণ ছাড়িয়ে যাবে।
সদর উপজেলার হাড়োয়া গ্রামের কৃষক মো. মোকছেদ আলী (৫৩) বলেন, অল্প খরচে লাভজনক ফসল হওয়ায় কৃষকরা তামাক চাষের বিকল্প হিসেবে ভুট্টার দিকে ঝঁকে পড়ছেন।
টুপামারী ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়া গ্রামের শাহ আলম বলেন, আমার দুই বিঘা জমির মধ্যে গত বছর এক বিঘায় ভুট্টা এবং এক বিঘায় তামাক আবাদ করেছিলাম। সেবার তামাকের চেয়ে ভুট্টায় বেশী লাভ হওয়ায় এবার দুই বিঘা জমিতেই ভুট্টার আবাদ করেছি।
জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক মো. আবুল কাসেম আযাদ বলেন, এবার পেসিফিক-১১ ও পাইওনিয়ার-৯২ জাতের ভূট্টার বেশী আবাদ হয়েছে। ওই দুই জাত উচ্চ ফলনশীল। কম খরছে বেশী উৎপাদনে কৃষকরা লাভবান হচ্ছেন। এ কারণে ক্ষতিকর তামাক আবাদের পরিবর্তে ভুট্টার আবাদ বেছে নিচ্ছেন কৃষক।

image_printPrint