২০২৩ সালের মধ্যে ২৫,৫০০ শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হবে : মোস্তাফা জব্বার

306

সংসদ ভবন, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ (বাসস) : ২০২৩ সালের মধ্যে ডিজিটাল সংযোগ স্থাপন প্রকল্পের মাধ্যমে ২৫ হাজার ৫শ’ শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপনের পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে।
আজ সংসদে সরকারি দলের সদস্য মো. নজরুল ইসলাম বাবুর এক তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এ কথা বলেন।
বিরোধীদলের অপর সদস্য মো. মুজিবুল হকের তারকা চিহ্নিত এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এলআইসিটি প্রকল্পের আওতায় বিশ্বমানের প্রশিক্ষণে ৩১ হাজার ৯৩০ জন আইটি প্রশিক্ষিত দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি করা হয়েছে। প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের মধ্যে টপ-আপ আইটিতে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছে ১০ হাজার ৫৮৫ জন, ফাউন্ডেশন স্কিলসে ২০ হাজার ৩৬৯ জন এবং ফাস্ট ট্র্যাক ফিউচার লিডার-এ ৯৭৬ জনকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। অর্থ্যাৎ সর্বমোট ৩১ হাজার ৯৩০ জন তরুণ-তরুণীর প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে। যার মধ্যে ৮ হাজার ১৫১ জনের কর্মসংস্থান হয়েছে।
তিনি বলেন, প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের সক্ষমতা উন্নয়নে এ পর্যন্ত ৬৭১ জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। প্রতিবছর ১ জানুয়ারি আইসিটি প্রশিক্ষিত প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের জন্য চাকরি মেলার আয়োজন করা হয়। অংশগ্রহণকারী প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের মধ্যে এ পর্যন্ত ৩৮৩ জনের চাকুরির ক্যবস্থা করা হয়েছে।
সরকারি দলের আরেক সদস্য ওয়ারেসাত হোসেন বেলালের এক তারকা চিহ্নিত প্রশ্নের জবাবে মোস্তাফা জব্বার বলেন, বর্তমানে দেশে ফোরজি টাওয়ারের সংখ্যা ১৫ হাজার ৫০৯টি এবং দেশের প্রায় ৬৫ শতাংশ এলাকা ফোরজি কাভারেজভূক্ত।
তিনি বলেন, ফোরজি সেবা প্রবর্তনের ধারাবাহিকতায় এবং উন্নত বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বর্তমান সরকার নির্বাচনী ইশতেহারে ইতোমধ্যে ফাইভজি সেবা প্রবর্তনের ঘোষণা দিয়েছে। বিশ্বে এখনো কোন দেশে বাণিজ্যিকভাবে ফাইভজি সেবা চালু হয়নি। বিশ্বে ফাইভজি সেবা চালু হলে বাংলাদেশেও এই সেবা চালু হবে।

image_printPrint