ময়মনসিংহ সংস্কৃতির সমৃদ্ধ বিশাল ভান্ডারকে কাজে লাগাতে হবে : মোস্তাফা জব্বার

384

ঢাকা, ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ (বাসস) : ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী এবং বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে ঐতিহ্যবাহী ময়মনসিংহ সংস্কৃতির সমৃদ্ধ বিশাল ভান্ডারকে জাতীয় সংস্কৃতির বিকাশে কাজে লাগাতে হবে।
তিনি বলেন, পৃথিবীব্যাপী বাংলাদেশের সংস্কৃতি এক অনন্য জায়গায় স্থান করে নিয়েছে। বাংলাদেশের সমৃদ্ধ এই সংস্কৃতিতে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সংস্কৃতির অবদান বিশাল মহীরুহ হিসেবে বিরাজ করছে।
আজ ঢাকায় জিপিও মিলনায়তনে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের উপদেষ্টা মন্ডলী, জাতীয় কমিটি ও কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদের যৌথ সভায় সভাপতির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে সাংস্কৃতিক বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী একেএম খালিদ প্রধান অতিথির বক্তৃতা করেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব ও বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরাম নেতা আবদুস সামাদ, দুদক সচিব ও বৃহত্তর ময়মনসিংহ ফোরাম নেতা ড.শামসুল আরেফিন সাংবাদিক নেতা মোল্লা জালাল ও কুদ্দুস আফ্রাদ বক্তব্য রাখেন।
বৃহত্তর ময়মনসিংহ সাংস্কৃতিক ফোরামের সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান শেলী অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন।
সাংস্কৃতিক বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী দেশের সংস্কৃতি বিকাশে বৃহত্তর ময়মনসিংহ সংস্কৃতি ফোরামের অবদান তুলে ধরে বলেন, একটি জাতির বড় পরিচয় তার সংস্কৃতি। বৃহত্তর ময়মনসিংহের সমৃদ্ধ সংস্কৃতির সংরক্ষণ ও বিকাশে তিনি ফোরামের ভুমিকার প্রশংসা করেন।
মোস্তাফা জব্বার বলেন, বৃহত্তর ময়মনসিংহের তথা বাংলার লোকসংস্কৃতি জাতীয় গন্ডি ছাড়িয়ে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে পৌঁছেছে। বাংলা লোকসাহিত্যের অমর কীর্তি মৈমনসিংহ গীতিকার প্রকাশ, বিতরণ ও এর অন্তস্থ সাহিত্য-সংস্কৃতিকে বিশ্ববাসীর কাছে তুলে ধরার জন্য ফোরাম নেতৃবৃন্দকে আরও তৎপর হওয়ার তাগিদ দেন।