সকলের জন্য সমান সুযোগ তৈরির মাধ্যমেই ডাকসু নির্বাচন : ঢাবি উপাচার্য

207

ঢাকা, ৩১ জানুয়ারি, ২০১৯ (বাসস) : ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেছেন, কোনো নিদির্ষ্ট গোষ্ঠীকে সুযোগ প্রদান নয় বরং সকলের জন্য সমান সুযোগ তৈরির মাধ্যমেই আমরা ডাকসু নির্বাচন সম্পন্ন করতে চাই।
তিনি বলেন, ডাকসুর যে গঠনতন্ত্র আছে, সেটি অনুমোদিত হয়েছে, কোড অব কন্ডাক্ট অনুমোদিত হয়েছে, আমরা ওই দুটি দলিলকে সামনে রেখেই ডাকসু নির্বাচনের দিকে এগিয়ে যাব।
উপাচার্য আজ রাজধানীর তেজগাঁওস্থ জাতীয় চলচিত্র উন্নয়ন কর্পোরেশনে (এফডিসি) ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র আয়োজনের ইউসিবি পাবলিক পার্লামেন্ট নামে এক ছায়া সংসদ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
অধ্যাপক আখতারুজ্জামান বলেন, বর্তমান শিক্ষার্থীরাও ডাকসুর গুরুত্ব অনুধাবন করছে। আমরা এ নির্বাচনকে সুষ্ঠু করার লক্ষ্যে আন্তরিক প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছি।
তিনি বলেন, ঢাবি ভিন্নমত ও বিভিন্ন মহলের মতাদর্শকে সম্মান দেয়। আমরা সেই আদর্শকে বাস্তবায়ন করতে চাই। আজকের বিতার্কিকরা ডাকসুর গুরুত্ব তুলে ধরতে গিয়ে প্রায় ১শ’ বছর আগে প্রতিষ্ঠিত ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের গৌরব গাথাঁ ও ইতিহাস তুলে ধরেছে।
অনুষ্ঠানে উপাচার্য বলেন, পাবলিক বিশ^বিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার পদ্ধতি নিয়ে আজকের প্রতিযোগিতার বিতার্কিকরা যে চিন্তা চেতনা ও যুক্তি তুলে ধরেছে তা আমাদের ভবিষ্যত নীতি নির্ধারণে সহায়ক হবে।
তিনি জানান, আগামীতে ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতির সংস্কারের চিন্তা-ভাবনা চলছে। ২০১৯-২০ সালে যারা ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিবে তারা নতুন পদ্ধতিতেই পরীক্ষা দিবে।
প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ^বিদ্যালয়কে পরাজিত করে ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি বিজয়ী হয়। এতে বিচারক ছিলেন অধ্যাপক আবু মোহাম্মদ রইস, সাংবাদিক মাঈনুল আলম, সাংবাদিক সাব্বির নেওয়াজ, সাংবাদিক মোস্তফা মল্লিক ও সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম।

image_printPrint