চাঁদপুরে এসএসসি ও সমমানে ৭০ কেন্দ্রে ৩৯ হাজার ৯৭২ পরীক্ষার্থী

224

চাঁদপুর, ২৯ জানুয়ারি, ২০১৯ (বাসস) : জেলায় এসএসসি ও সমমানে এবার ৭০টি কেন্দ্রে ৩৯ হাজার ৯৭২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। যা গত বছরের চেয়ে ৩টি কেন্দ্রে ৪ হাজার ১৮৭ জন পরীক্ষার্থী বেশি। আগামী ২ ফেব্রুয়ারি শনিবার মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট, দাখিল ও এসএসসি ভোকেশনাল সমমানের পরীক্ষা সকাল ১০টায় শুরু হয়ে দুপুর ১টায় শেষ হবে।
চাঁদপুর জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের শিক্ষা শাখা সূত্রে জানা যায়, চাঁদপুরের ৮ উপজেলায় ৭০টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩৯ হাজার ৯৭২। এর মধ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩১ হাজার ২৬৩ জন ও কেন্দ্র ৪২টি, দাখিল পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭ হাজার ৩৩০ জন এবং কেন্দ্র ১৮টি ও এসএসসি ভোকেশনাল ১০ টি কেন্দ্রে ১ হাজার ৩৭৯ জন।
এরমধ্যে এসএসসিতে চাঁদপুর সদরে ৬টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৬ হাজার ৮৪ জন, হাজীগঞ্জের ৭টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ৫৫৭ জন, মতলব উত্তরে ৭টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ৫৬২ জন, মতলব দক্ষিণে ৪টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২ হাজার ৬১৭ জন, ফরিদগঞ্জে ৫টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ৮৬ জন, শাহারাস্তির ৫টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩ হাজার ৪২৩ জন, কচুয়ার ৭টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪ হাজার ৯৪৪ জন এবং হাইমচরের ১ টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৯৯০ জন।
দাখিলে চাঁদপুর সদরে ৩টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ৬৯ জন, হাজীগঞ্জের ৩টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ১৬১ জন, মতলব উত্তরে ১টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩৬২ জন, মতলব দক্ষিণে ২টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৩১৭ জন, ফরিদগঞ্জে ৩টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ৫৮৮ জন, শাহারাস্তির ২টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭০৬ জন, কচুয়ার ৩টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১ হাজার ৩৯১ জন, হাইমচরের ১টি কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৪১৬ জন।
এসএসসি ভোকেশনালের ১০ কেন্দ্রে পরীক্ষার্থী সংখ্যা ১ হাজার ৩৭৯ জন।
চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শওকত ওসমান জানান, এবারের নির্দেশনাগুলোর মধ্যে রয়েছে কেন্দ্র সচিব ব্যতীত কোনো কক্ষ পর্যবেক্ষক মোবাইল ফোন ব্যবহার করতে পারবে না। ১ বা ২ এর অধিক কোনো সাংবাদিক কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবে না ও এ ক্ষেত্রে কেন্দ্র সচিবের সাথে যোগাযোগ করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ব্যবস্থা নিশ্চিতকরণ, জেড পদ্ধতিতে পরীক্ষার্থীদের আসন বিন্যাস, বিষয়ভিত্তিক শিক্ষক সংশ্লিষ্ট বিষয়ের দিন পর্যবেক্ষণ কাজ থেকে বিরত রাখা ইত্যাদি।

image_printPrint