উপকূলীয় এলাকা ও সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই

161
image_printPrint

ঢাকা, ৩০ মে ২০১৮ (বাসস) : উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের উপর দিয়ে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের সর্বশেষ খবরে একথা বলা হয়েছে, মিয়ানমারের রাখাইন উপকূলে অবস্থানরত গভীর নিম্নচাপটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে স্থল নিম্নচাপ আকারে মিয়ানমারের মধ্যাঞ্চলে অবস্থান করছে। এটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে যেতে পারে।
চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মংলা ও পায়রা সমূদ্র বন্দরসমূহকে সতর্ক সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে।
এর আগে আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝড়োহাওয়া ও বিজলী চমকানোসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে।
সেই সাথে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।
পূর্বাভাসে বলা হয়, পরবর্তী তিন দিন দক্ষিণ-পূর্ব মৌসুমী বায়ু টেকনাফ উপকূল পর্যন্ত অগ্রসর হতে পারে এবং বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টির প্রবণতা বৃদ্ধি পেতে পারে।
সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।
এদিকে সৃষ্ট নিম্নচাপ কেন্দ্রের কাছাকাছি সাগর উত্তাল রয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগর, বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা এবং সমুদ্র বন্দরসমূহের ওপর দিয়ে ঝড়োহাওয়া বয়ে যেতে পারে।
ঢাকায় বাতাসের গতি ও দিক দক্ষিণ/দক্ষিণ-পূর্ব দিক থেকে ঘন্টায় (১০-১৫) কি. মি যা অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়ায় ঘন্টায় ৩০ থেকে ৪০ কি. মি.।
আগামীকাল ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৫টা ১১ মিনিটে।