লেভান্তের কাছে হেরেও বার্সাকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে কুটিনহোর গোল

118

মাদ্রিদ, ১১ জানুয়ারি, ২০১৯ (বাসস/এএফপি) : কোপা দেল রে’র শেষ ষোলর লড়াইয়ে লেভান্তের কাছে হেরে গেছে বার্সেলোনা। বিষ্ময়কর ভাবে ২-১ গোলে খর্ব শক্তির দলের কাছে হেরে গেছে কাতালান জায়ান্টরা। তবে এ্যাওয়ে ম্যাচে ফিলিপ কুটিনহোর গুরুত্বপূর্ণ একটি গোল টর্নুামেন্টে ঘুরে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখাচ্ছে বার্সাকে। আগামী বৃহস্পতিবার ফিরতি লেগে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়া থেকে মুক্ত হবার লড়াইয়ে নামবে আর্নেস্টো ভালভার্দের শিষ্যরা।
লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেজ, মার্স আন্দ্রে টের স্টেগান সহ দলের বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে বিশ্রামে রেখে এদিন মাঠে নেমেছিল বার্সা। আর ওই সুযোগটা ভালভাবেই কাজে লাগায় লেভান্তে। সিটি অব ভ্যালেন্সিয়া স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে এরিক ক্যাবাকো এবং বোরিয়া মায়োরালের গোলে ২-০ গোলের লীড নিয়ে নেয় স্বাগতিকরা। তবে দীর্ঘ এক মাস পর মুল একাদশের হয়ে মাঠে নামা কুটিনহো পেনাল্টি থেকে একটি গোল পরিশোধ করেন। ৮৫তম মিনিটে তার ওই গোলটি বার্সেলোনাকে টুর্নামেন্টে টিকে থাকার স্বপ্ন দেখাচ্ছে। আগামী সপ্তাহে ক্যাম্প ন্যুতে অনুষ্ঠিত হবে ফিরতি লেগের ম্যাচ।
ইনজুরির কারণে গত নভেম্বর থেকে অনেকগুলো ম্যাচে অংশগ্রহন থেকে বঞ্চিত হবার কারণে ভালভার্দের নিয়মিত একাদশে জায়াগা হারায় কুটিনহো। তবে ওই গোলে প্রমানিত হয়েছে তার আত্মবিশ্বাস অটুট আছে।
খেলা শেষে বার্সা কোচ বলেন, ‘যখন ওসমানে ডেম্বেলে খেলেননা তখন তার বিষয়ে প্রশ্নবানে জর্জরিত করে। এখন কুটিনহো না খেলাতেও একই অবস্থা। যখনই আপনি খেলতে পারবেননা তখনই নাখোশ হয়ে যাবেন। আপনাকে এই মনোভাব পরিবর্তনের জন্য লড়াই করতে হবে।’
আগের মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে বার্সার বিদায় নেবার ঘটনাটি ব্যথিত করেছে ভালভার্দেকে। কারণ ওই সময় তিনি দলের সেরা খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিতে পারেননি। তবে কোপা দেল রে ও লা লীগার শিরোপা জয় করেছিল তার দল। পরীক্ষিত স্ট্রাইকারদের অনুপস্থিতি পূরনের জন্য তিনি ওসমানে ডেম্বেলে, ম্যালকম ও কুটিনহোকে কাজে লাগাতে চেয়েছিলেন।
কিন্তু গতকালের ম্যাচের মাত্র চতুর্থ মিনিটেই লীড পেয়ে যায় স্বাগতিক লেভান্তে। রুবেন রচিনার ইনসুইং ক্রসের বলে দর্শনীয় এক হেডের সাহায্যে গোল করেন ক্যাবাকো (১-০)। এ সময় স্বগতিকদের আগ্রাসন সামাল দিতে সংগ্রাম করতে হয়েছে বার্সাকে। ম্যাচের ১৮তম মিনিটে ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়ে কাতালান জায়ান্টরা। ইমানুয়েল বোয়েটেংয়ের পাস ফাকায় পেয়ে যান বোরিয়া। বল পেয়ে তিনি মুরিলো এবং চুমির প্রতিবন্ধকতাকে ফাকি দিয়ে বল জালে পাঠিয়ে দেন (২-০)। বার্সার সঙ্গে ৩-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাবার সুযোগ পেয়েছিল লেভান্তে। তবে বোরিয়ার এবারের নেয়া শটটি ফিরে আসে পোস্টে লেগে।
দ্বিতীয়ার্ধে গোল পরিশোধের আপ্রান চেস্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয়েছে বার্সেলোনা। শেষ পর্যন্ত ৮৫তম মিনিটে গিয়ে একটি গোল পরিশোধের সুযোগ পায় বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। দুর্বার গতিতে বল নিয়ে স্বাগতিক শিবিরে ঢুকে পড়া কুটিনহোকে বিধি বহির্ভুত ভাবে বাঁধা দেনে কোক। এতেই পেনাল্টি পেয়ে যায় সফরকারীরা। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি কুটিনহো (২-১)।
এর আগে এ্যাওয়ে ম্যাচে অ্যাথলেটিক বিলবাওকে ৩-১ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে এক পা দিয়ে রেখেছে সেভিয়া। রিয়াল বেতিস ও রিয়াল সোসিদাঁদের মধ্যে অনুষ্ঠিত অপর ম্যাচটি ড্র হয়েছে গোল শুন্য ভাবে।

image_printPrint