বিদেশী পর্যবেক্ষকরা বলেছেন বিশ্বমানের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে

2394

ঢাকা, ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : বিদেশী একটি দল ও স্থানীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষকগণ বলেছেন, ১১তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন বিশ্বমান বজায় রেখে নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
অর্গানাইজেশন অফ ইসলামীক কো-অপারেশন (ওআইসি) এর অ্যাসিসটেন্ট সেক্রেটারি জেনারেল (ইকোনোমিক অ্যাফেয়ার্স) অ্যাম্ব. হামিদ এ. ওপেলোয়েরু বাংলাদেশের সামগ্রিক নির্বাচনের পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের পরে রাজধানীর একটি হোটেলে সাংবাদিকদের জানান, ‘খুবই শান্তিপূর্ণভাবে বিশ্ব মানের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।’
তিনি বলেন, নির্বাচনের পর্যবেক্ষক দলের সদস্য হিসেবে তিনি দলের সঙ্গে ঢাকা, মুন্সীগঞ্জ ও নারায়ণগঞ্জের অনেক ভোটকেন্দ্র পরিদর্শন করেন, যেখানে তারা প্রতিটি বুথে সব প্রধান রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের উপস্থিতি এবং শান্তিপূর্ণ পরিবেশের মধ্যে ভোটারদের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ দেখতে পেয়েছেন।
বিশ্বাসযোগ্য নির্বাচনের ব্যাপারে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওআইসি’র এই পর্যবেক্ষক সেেন্তাষ প্রকাশ করে বলেন, ‘বাংলাদেশের সংসদীয় নির্বাচনে এমন পরিবেশ দেখে আমরা খুবই খুশি।’
এর আগে কানাডা থেকে আসা পর্যবেক্ষক তানিয়া ফস্টার বলেন, সবাই কেন্দ্রগুলোতে গিয়ে নিজ হাতে তাদের ব্যালট পেপারে ভোট দিতে পেরেছে এবং সকল নির্বাচনী কর্মকর্তা তাদের ওপর আরোপিত দায়িত্ব অসাধারণভাবে পালন করেছেন।
ভিকারুন্নিসা নুন স্কুল এন্ড কলেজ ভোটকেন্দ্রে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি বলেন, সবাই ভোট কেন্দ্রে এসে ভোট দিয়েছে এবং নির্বাচন নির্বিঘœ ও শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
তানিয়া ফস্টার বলেন, তিনি পাঁচটি ভোট কেন্দ্র এবং বেশ কয়েকটি বুথ পরিদর্শন করেছেন।’
তিনি বলেন, ‘আমি একটি বিষয় বিশেষভাবে দেখেছি যে, ভোটাররা ভোট দিতে সক্ষম হওয়ায় নিজেদেরকে ক্ষমতায়ন ভাবতে পারার অনুভূতির পাশাপশি উৎসাহ বোধ করছে।’
ভারতের পর্যবেক্ষক ড. গৌতম ঘোষ বলেন, ‘খুবই স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোট হয়েছে। সবাই সম্পূর্ণ শান্তিপূর্ণভাবে ভোট প্রয়োগ করেছেন এবং আমি এখন পর্যন্ত সবকিছু সন্তোষজনক বলেই মনে করছি।’
নেপালের পর্যবেক্ষক দীপেন্দ্র কান্দেল বলেছেন, নির্বাচন শান্তিপূর্ণ পরিবেশে জনগণের স্বতঃস্ফূর্ত অংশ্র্রহণের সঙ্গেই অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এদিকে, নির্বাচনের পর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে ব্রিফিংয়ে দাবি করেছে যে, নির্বাচনে কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনার পাশাপাশি শান্তিপূর্ণভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির কাছে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ ছিলেন একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন উপহার দেয়ার এবং আমরা তা করতে পেরেছি।’
বিদেশি সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক এবং শান্তিপূর্ণ ছিল।
তিনি বলেন, ভোটের দিনে দেশের বিভিন্ন স্থানে সংঘর্ষে ১৪ জন নিহত হয়েছে। ‘সংঘর্ষে আওয়ামী লীগেরই ১০ জনকে হত্যা করা হয়েছে।’
ব্রিফিংয়ে সাবেক রাষ্ট্রদূত শাহেদ রেজা, আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আক্তার, আওয়ামী লীগের নির্বাচন পর্যবেক্ষক দলের সদস্য, বিদেশী পর্যবেক্ষক দলের সদস্য ও স্থানীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষকগণ উপস্থিত ছিলেন।

image_printPrint