বাংলাদেশ বৈশ্বিক অর্থনীতির একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হতে যাচ্ছে : ডিলোটি

279

ঢাকা, ২ ডিসেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : টেকসই প্রবৃদ্ধি, তরুণ এবং উদ্যমী কর্মশক্তি ও অবকাঠামো উন্নয়ন বাংলাদেশকে শক্তিশালী অর্থনৈতিক ভিত্তি গড়ে তুলতে সহায়তা করছে। এ অবস্থা আগামী ১০ থেকে ২০ বছরের মধ্যে দেশটিকে আন্তর্জাতিক অর্থনীতির একটি বড় অংশ হিসাবে গড়ে তুলবে। আন্তর্জাতিক অ্যাডভাইজারি ফার্ম ডিলোটি এক পর্যবেক্ষণে এ কথা বলেছে।
এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশে গত এক দশকে লিঙ্গ বৈষম্য, শিশু মৃত্যুহার ও গড় আয়ূ বৃদ্ধির মতো সকল সামাজিক সূচকে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হয়েছে।
ডিলোটি বাংলাদেশ লিমিটেডের বোর্ড সদস্য জয়দীপ দত্ত গুপ্ত বাসস’র সঙ্গে আলাপকালে বলেন, বাংলাদেশ সকল আর্থ সামাজিক সূচকে খুবই ভাল করেছে। দেশটি ৭.৫ ভাগেরও বেশি প্রবৃদ্ধি অজর্ন করেছে। মাথাপিছু আয় বেড়েছে এবং সামাজিক সূচকগুলোর উন্নতি হয়েছে। তিনি বলেন, আমাদের অনেক গুরুত্বপূর্ণ আন্তর্জাতিক গ্রাহক বাংলাদেশে তাদের ব্যবসা করছে। বাংলাদেশী গ্রাহকদের ব্যবসাও বেড়েছে। তিনি আরো বলেন, স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা, অবকাঠামো এবং আর্থিক ও সামাজিক সূচকসহ নির্দিষ্ট কিছু খাতে সরকারি সংস্থা এবং দাতা সংস্থা থেকে বিনিয়োগ উল্লেখযোগ্য বেড়েছে।
তিনি বলেন, তৈরি পোশাক শিল্প দেশটির গুরুত্বপূর্ণ সেক্টর হলেও দেশের অন্যান্য সেক্টরেরও উন্নয়ন হচ্ছে। তিনি বলেন, উন্নয়ন দৃশ্যমান এবং সময় এখন বাংলাদেশের।
গুপ্ত বলেন, ডিলোটির গ্রাহকদের চাহিদার আলোকে অ্যাডভাইজারি ফার্মটি বাংলাদেশে অফিস করেছে। আমাদের বাংলাদেশী গ্রাহকদের মান বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং বাংলাদেশের অর্থনীতিও বেড়ে উঠছে। আমাদের অনেক গ্রাহক আরো উন্নত মানের সেবা পেতে বাংলাদেশে অফিস খুলতে আমাদের অনুরোধ জানিয়েছে। ডিলোটি তাদের গ্রাহকদের সেবা প্রদানে গত শনিবার বাংলাদেশে তাদের অফিস উদ্বোধন করেছে।
গুপ্ত বলেন, তাদের ফার্ম বেসরকারি এবং সরকারি প্রতিষ্ঠানকে অডিট, ট্যাক্স,আইন, আর্থিক পরামর্শ, ঝুঁকি পরামর্শসহ বিভিন্ন ধরনের সেবা প্রদান করবে। তিনি বলেন, তারা ওষুধ, চামড়া, বিদ্যুৎ এবং জ্বালানী, ভোগ্যপণ্য ও কৃষি পণ্যসহ বিভিন্ন ধরনের ব্যবসায়ে সেবা প্রদান করবে।
তিনি বলেন, ডিলোটি বাংলাদেশ শতাধিক পেশাদার এবং উঁচুমানের গ্রাহকের কেন্দ্রবিন্দু তৈরি করবে এবং পরবর্তী কয়েক বছরে বিভিন্ন সেক্টরে কর্মশক্তি সৃষ্টি করবে বলেও আশা করছে।
গুপ্ত বলেন, বিশ্বের দেড় শতাধিক দেশে তাদের পদচারণা রয়েছে। তারা বহুজাতিক ফার্মগুলোকে একুইজেশন ও মার্জার জবসহ বাণিজ্য পরামর্শ দিয়ে আসছে।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশী ম্যানেজিং পার্টনার নূরুল হক বলেন, আমরা ডিলোটি নেটওয়ার্কে যোগ দিতে পেরে গর্বিত। এর আন্তর্জাতিক মানের সেবা ইনোভেশন ও নীতির জন্য আমরা শ্রদ্ধা জানাই। ডিলোটি বাংলাদেশের গ্রাহকদের যথাযথ মূল্যায়ন করবে এবং স্থানীয় মেধাসম্পন্ন উদ্যোক্তা বিকাশে ভূমিকা রাখবে বলেও তিনি আস্থা ব্যক্ত করেন।

image_printPrint