একনেকে ৩৯ হাজার ২৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পের অনুমোদন

66

ঢাকা, ২২ মে, ২০১৮ (বাসস) : জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) ৩৯ হাজার ২৪৬ কোটি ৮০ লাখ টাকা ব্যয়ে পদ্মা সেতু রেল সংযোগ (১ম সংশোধিত) প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে। বাংলাদেশ রেলওয়ে ২০২৪ সাল নাগাদ এই প্রকল্পের কাজ সম্পন্ন করবে।
মঙ্গলবার রাজধানীর শেরেবাংলানগর এনইসি সম্মেলন কক্ষে একনেক চেয়ারপারসন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে একনেক সভায় পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পসহ ৯৬ হাজার ২৩৪ কোটি ৭৭ টাকা ব্যয়ে মোট ১৬টি প্রকল্পের চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে।
প্রকল্প ব্যয়ের মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে ৫২ হাজার ৬৮৫ কোটি ৫ লাখ টাকা, বৈদেশিক সহায়তা থেকে ৪৩ হাজার ২২১ কোটি ১৭ লাখ এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় হবে ৩২৮ কোটি ৫৫ লাখ টাকা।
একনেক সভা শেষে এক এক ব্রিফিংয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল বলেন, পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পে সরকারি তহবিলের পরিমাণ বৃদ্ধি, বৈদেশিক সহায়তা হ্রাস এবং ভূমি অধিগ্রহণ, পরামর্শক সেবা, নির্মাণ কাজ ও বাস্তবায়ন ইউনিটের জন্য অন্যান্য খরচ বৃদ্ধি, যানবাহন ক্রয় খাতে খরচ কমে যাওয়া এবং প্রকল্পের মেয়াদ ২০২৪ সালের জুন পর্যন্ত অতিরিক্ত দু’বছর বেড়ে যাওয়ায় প্রকল্পটি সংশোধন করা হয়েছে।
চতুর্থ প্রাথমিক শিক্ষা উন্নয়ন কর্মসূচি (পিইডিপি-৪) প্রকল্প সম্পর্কে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে শিক্ষার মানন্নোয়নে ৩৮ হাজার ৩৯৭ কোটি ১৬ লাখ টাকা ব্যয়ে এই প্রকল্পটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। মানবসম্পদ উন্নয়নে প্রাথমিক পর্যায়ে শিক্ষা খাতে বিনিয়োগের বিকল্প নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন।
তিনি জানান, পিইডিপি-৪ প্রকল্পের মোট ব্যয়ের মধ্যে সরকারি তহবিল থেকে পাওয়া যাবে ২৫ হাজার ৫৯১ কোটি ৫৭ লাখ টাকা এবং প্রকল্প সাহায্য হিসেবে বিশ্বব্যাংক, এডিবি, জাইকা, ইউরোপীয় ইউনিয়ন, ডিএফআইডি, অস্ট্রেলিয়ান এইড, কানাডীয় সিডা, সুইডিশ সিডা, ইউনিসেফ ও ইউএসএইচ ঋণ থেকে আসবে ১২ হাজার ৮০৯ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।
একনেক অনুমোদিত অন্য প্রকল্পসমূহ হলো- রূপসা ৮০০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎ কেন্দ্র প্রকল্প, কন্সট্রাকশন অব নিউ ১৩২/৩৩ কেভি অ্যান্ড ৩৩/১১ কেভি সাবস্টেশন আন্ডার ডিপিডিসি প্রকল্প, ১৪টি চিনিকলে বর্জ্য পরিশোধনাগার (ইটিপি) স্থাপন প্রকল্প, যশোরে ৫শ’ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল, কক্সবাজার, পাবনা, ও আব্দুল মালেক উকিল মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড জননেতা নুরুল হক আধুনিক হাসপাতাল প্রকল্প, বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস-এর উন্নয়ন প্রকল্প, তথ্য কমিশন ভবন নির্মাণ প্রকল্প, বাংলাদেশ বেতার, সিলেট কেন্দ্র আধুনিকায়ন ও ডিজিটাল সম্প্রচার যন্ত্রপাতি স্থাপন প্রকল্প।
এ ছাড়া সাতক্ষীরা সড়ক ও সিটি বাইপাস সড়ককে সংযুক্ত করে সংযোগ সড়কসহ তিনটি লিংক রোড নির্মাণ প্রকল্প, ঢাকার তেজগাঁওয়ে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের জন্য বহুতল আবাসিক ফ্ল্যাট নির্মাণ প্রকল্প, আশুগঞ্জ অভ্যন্তরীণ কন্টেইনার নদীবন্দর স্থাপন প্রকল্প, বুড়িগঙ্গা, তুরাগ, শীতলক্ষ্যা ও বালু নদীর তীর ভূমিতে পিলার স্থাপন, তীর রক্ষা,ওয়াকওয়ে ও জেটিসহ আনুষঙ্গিক অবকাঠামো নির্মাণ প্রকল্প, গুরুত্বপূর্ণ ১৯টি পৌরসভা অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্প,ঢাকা মহানগরীর ড্রেনেজ নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণ এবং খাল উন্নয়ন প্রকল্প, ৫টি র‌্যাব ফোর্সেস ট্রেনিং স্কুল কমপ্লেক্স নির্মাণ প্রকল্প।

image_printPrint