সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নির্বাচনে অংশ না নেয়ার রায়কে নির্বাচন কমিশন অবশ্যই সম্মান করবে : ওবায়দুল কাদের

222

ঢাকা, ২৮ নভেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সাজাপ্রাপ্ত কোন ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ না নেয়ার বিষয়ে আদালত যখন চূড়ান্ত রায় দিয়েছে, তখন নির্বাচন কমিশন অবশ্যই সেই রায়কে সম্মান করবে।
এছাড়াও রাজনৈতিক সমীকরণ কোথাও গিয়ে ঠেকবে তার জন্য আরো অপেক্ষার কথাও বলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের ।
তিনি বলেন, ‘এখন রাজনৈতিক মেরুকরণ নয়, সমীকরণ। এ সমীকরণ কোথাও গিয়ে ঠেকবে তা আরো অপেক্ষা করতে হবে। আওয়ামী লীগ ২৩১ জনকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে। তার মধ্যে ৪৫ জন নতুন মুখ।’
মহাজোটের মনোনয়নের চুড়ান্ত তালিকা প্রকাশ প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রার্থীতা প্রত্যাহারের সময় সীমার আগেই চুড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করতে হবে। তবে মনোনয়ন বাছাইয়ের পরই চুড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করার চেষ্টা করা হবে। তিনি আজ বিকেলে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।
এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, বিজ্ঞাণ ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সবুর, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়–য়া, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য এস এম কামাল হোসেন ও মারুফা আক্তার পপি প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘নির্বাচন নিয়ে বিএনপি কি করবে, কি করতে চায়, সেটা এখনও বোঝা যাচ্ছে না। তারা যে ধরনের প্রার্থী দিচ্ছে, তাতে প্রশ্নই থেকে যায়, তারা আসলে নির্বাচন নিয়ে কি করতে চায়।’
বিএনপি জঙ্গীবাদের পৃষ্ঠপোষক। তাই জঙ্গীবাদের সঙ্গে জড়িত ও যুদ্ধাপরাধীর সন্তানদের দলীয় মনোনয়ন দিয়েছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচন বানচালের ইস্যু তারা করতেই পারে। তারা তো এই মুহুর্তে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি)’র পরিবর্তন চান। আগামী ৩০ ডিসেম্বর নির্বাচন, এই মুহুর্তে তাদের এ ধরনের দাবি কি বাস্তবসম্মত? তিনি এ দাবিকে বাস্তবসম্মত নয় বলে উল্লেখ করেন।
সেতুমন্ত্রী বলেন, দলের পক্ষ থেকে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ ও পরিচালনার জন্য যাদের অভিজ্ঞতা ও সাংগঠনিকভাবে দক্ষ তারাই সাধারণত নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বে থাকেন।
তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের যে চারজন সিনিয়র নেতা দলের মনোনয়ন বঞ্চিত হয়েছেন তারা নির্বাচন পরিচালনার সঙ্গে যুক্ত থাকবেন বলে আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন। আরো নির্দেশনা দেবেন। ‘এ ব্যাপারে নেত্রী গতকাল গণভবনে ডেকে নিয়ে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন। আরো পরামর্শ দেবেন’ বলে জানান তিনি।

image_printPrint