নাইক্ষ্যংছড়িতে পাহাড় ধসে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু

44
image_printPrint

বান্দরবান, ২১ মে, ২০১৮ (বাসস) : বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নে অবৈধভাবে পাহাড় কাটার সময় মাটি চাপায় একজন নারীসহ ৩ জন শ্রমিক নিহত হয়েছে। ২ জন শ্রমিককে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।
উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ জানায়, সোমবার দুপুরে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের মিয়ানমার সীমান্তবর্তী মনজয় পাড়া এলাকার বড়ইতলী গ্রামে রুপায়ন বড়ুয়ার একটি মৎস্য খামারের নালা নির্মাণে পাহাড়ের মাটি কাটার সময় আকস্মিভাবে পাহাড়ের একাংশ ধসে পড়ে। ফলে মাটিচাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই ৩ শ্রমিক নিহত হয়।
নিহতরা হলেন, আবু আহমেদ,সোনা মেহের ও জয়নাল আবেদীন।
আহতরা হচ্ছে- নুরুল হাকিম এবং নুর মেহাম্মদ। আহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম সরোয়ার কামাল সোমবার রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, তিনটি লাশ উদ্ধারের পর রাত ৮টার দিকে উদ্ধার কার্যক্রম সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়েছে। ওই তিনটি লাশ ময়না তদন্তের জন্যে বান্দরবান সদর হাসাপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
নাইক্ষংছড়ি থানার ভারপ্রপ্ত কর্মকর্তা শেখ আলমগীর রাতে জানান, সোমবার দুপুরে ওই এলাকায় পাহাড় কাটার সময় মাটিচাপা পড়ে একজন নারীসহ ৩ জন নিহত হন। এ সময় দুজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।
জেলা প্রশাসক মো.আসলাম হোসেন জানান, অবৈধভাবে পাহাড়কেটে নালা নির্মাণকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হবে।