‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’র সুবিধা পেতে দেশীয় টিভি চ্যানেলগুলোকে আর্থ-স্টেশন ইনস্ট্যল করতে হবে না

305

ঢাকা, ১০ নভেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : দেশের প্রথম ভূ-উপগ্রহ স্যাটেলাইট ‘বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১’ থেকে সুবিধা পেতে দেশীয় টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর কোন আর্থ-স্টেশন ইনস্ট্যল করতে হবে না।
বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি (বিসিএসসিএল) লিমিটেডের চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ আজ বাসস’কে বলেন, ‘টেলিভিশন কোম্পানি গুলোর ব্যয় হ্রাসের লক্ষ্যে আমরা বিকল্প সেবা চালু করব।’
‘আর্থ-স্টেশন’ ইনস্ট্যল করতে টেলিভিশন কোম্পানিগুলোকে বিপুল ব্যয় করতে হয়- একথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘তারা অপটিক্যাল ফাইবারের মাধ্যমে টিভি চ্যানেলগুলোকে সেগুলোর গ্রাউন্ড স্টেশনের সাথে যুক্ত করতে পারবেন।’
ড. শাহজাহান মাহমুদ জানান, চার-পাঁচদিনের মাধ্যমে ‘আর্থ-স্টেশন’ ছাড়াই ‘অপটিক ফাইবার ভিত্তিক সার্ভিস’-এর মাধ্যমে তারা পরীক্ষামূলকভাবে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব বাংলাদেশ টেলিভিশন পরিচালনা করবেন। তিনি বলেন, ‘আমরা পর্যায়ক্রমে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলগুলোকে এই সার্ভিসের আওতায় আনব।’
এদিকে, শুক্রবার ফ্রান্সের নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘থেলেস এ্যালেনিয়া স্পেস’ ‘বঙ্গবন্ধু-১’ স্যাটেলাইটের নিয়ন্ত্রন বাংলাদেশ কমিউনিকেশন স্যাটেলাইট কোম্পানি (বিসিএসসিএল)- এর কাছে হস্তান্তর করে।
‘বঙ্গবন্ধু-১’ স্যাটেলাইটটি গত ১২ মে তারিখে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা থেকে ‘স্পেস এক্স’-এর মাধ্যমে কক্ষপথে উৎক্ষেপন করা হয়।
সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশন (সাফ) চ্যাম্পিয়নশিপ-এর খেলাগুলো দেখানোর মাধ্যমে ‘বঙ্গবন্ধু-১’ স্যাটেলাইটের পরীক্ষামূলক সম্প্রচার সাফল্যের সঙ্গে সম্পন্ন হয়।
বানিজ্যিক কার্যক্রম আরম্ভ সম্পর্কে বিসিএসসিএল-এর চেয়ারম্যান বলেন, ‘আমাদের পরামর্শক প্রতিষ্ঠান থাইকম শিগগিরই একটি বাজার সমীক্ষা জমা দেবে এবং তখন আমরা পরবর্তি ব্যবস্থা নেব।’
১১৯ দশমিক ১ পূর্ব জিওস্টেশনারি স্লটে অবস্থানরত বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটটি সার্কভুক্ত দেশসমূহ এবং ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, মিয়ানমার, তাজিকিস্তান, কিরঘিজস্তান, উজবেকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান এবং কাজাখস্তানের অংশবিশেষ কাভার করবে।
তবে, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইন, ভারত, শ্রীলঙ্কা, নেপাল ও ভুটানে কাভারেজ শক্তিশালী হওয়ায় বানিজ্যিক কার্যক্রমের জন্য প্রাথমিকভাবে এই ছয়টি দেশকে বাছাই করা হয়েছে।

image_printPrint