পুষ্টি চাহিদা মেটাতে জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ধান ৭৪ ধান চাষ করুন : সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

79

লালমনিরহাট, ৮ মে, ২০১৮ (বাসস) : সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ সাধারণ মানুষের পুষ্টি চাহিদা মেটাতে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে অধিকহারে জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ধান৭৪ ধান চাষের আহ্বান জানিয়েছেন।
তিনি আজ মঙ্গলবার জেলার কালিগজ্ঞ উপজেলার কাকিনা এলাকায় কৃষক লোকমান আলীর শষ্য ক্ষেতের নিকট বোরো মৌসুমে জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ধান৭৪ চাষের প্রদর্শণী খামারে আয়োজিত এক কৃষক মাঠ দিবসে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন।
সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, কৃষি বান্ধব বর্তমান সরকার দেশের পৃষ্টি ও খাদ্য নিরাপত্তার লক্ষ্যে গবেষণার মাধ্যমে নতুন নতুন জাত উদ্ভাবন করে কৃষকদের মাঝে তা চাষাবাদের জন্য সম্প্রসারণ করছেন। তিনি কৃষকদেরকে বেশী করে জিংক সমৃদ্ধ ধান চাষাবাদের আহবান জানান।
হার্ভেস্টপ্লাস বাংলাদেশের আর্থিক ও কৌশলগত সহায়তায় এবং কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের সহযোগিতায় স্থানীয় উন্নয়ন সংস্থা ‘নজীর’ জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ধান৭৪ চাষাবাদের কেীশল প্রদর্শন এবং এই জাতের ধান কর্তনের জন্য উক্ত অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
এতে সভাপতিত্ব করেন ’নজীর’ এর নির্বাহী পরিচালক নূরুল হক সরকার। এলাকার প্রায় ৩০০ জন কৃষক-কৃষাণী এতে অংশগ্রহণ করেন।
সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে লালমনিরহাটের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ কাসেম আলী মানব দেহে জিংকের প্রয়োজনীয়তা বিষদভাবে উপস্থাপন করেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক বিধু ভূষণ রায় বলেন, বর্তমানে জলবায়ুর সঙ্গে খাপখাওয়ানো পরিক্ষিত জাত হিসেবে জিংক সমৃদ্ধ ব্রি ধান৭৪ পরিচিতি পেয়েছে। তিনি কৃষকদের এ ধানের চাষ করা ও ভাত খাওয়ার পরামর্শ দেন।
বিশেষ অতিথি কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রবিউল হাসান বলেন, বর্তমান সরকার খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তার নিশ্চিতে বিশেষভাবে জোড় দিয়েছেন। তিনি জিংক সমৃদ্ধ ধান চাষে কৃষকদের উৎসাহিত করেন।
বিশেষ অতিথি অর্থনীতিবিদ ডঃ মোজাম্মেল হক বলেন, বাংলাদেশ আজ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হচ্ছে এবং জিংক সমৃদ্ধ ধানের চাষাবাদেও জন্য গোটা বিশ্বে পরিচিতি পেয়েছে।

image_printPrint