গুরুতর অসুস্থ ফার্গুসন, ফুটবল বিশ্বের সহানুভূতি

67

ম্যানচেস্টার, ৬ মে ২০১৮ (বাসস) : মতিষ্কে রক্তক্ষরণের কারনে গুরুতর অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক ম্যানেজার স্যার এ্যালেক্স ফার্গুসন। ইতোমধ্যে তার মতিষ্কে অস্ত্রোপচারও করা হয়েছে। প্রিয় এই কোচের অসুস্থতায় পুরো ফুটবল বিশ্বই যেন মুষড়ে পড়েছে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ বিভিন্ন ভাবে ফুটবলের সাথে সংশ্লিষ্টরা ফার্গুসনের আশু রোগ মুক্তির জন্য শুভ কামনা জানিয়েছেন।
সাবেক ক্লাব ইউনাইটেডের এক বিবৃবিতে ফার্গুসনের অস্ত্রোপচারের খবরটি প্রকাশ পায়। বৃটিশ ফুটবল ইতিহাসে সবচেয়ে সফল এই ম্যানেজারের আকস্মিক এই অসুস্থতায় সকলেই সহানভূতি জানিয়েছেন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘মতিষ্কে রক্তক্ষরণের কারনে স্যার এ্যালেক্স ফার্গুসনের আজ জরুরী একটি অস্ত্রোপচার সম্পন্ন হয়েছে। অস্ত্রোপচার সফল হলেও সুস্থতার জন্য তাকে বর্তমানে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে রাখা হয়েছে। তার পরিবারের পক্ষ থেকে বিষয়টিতে গোপনীয়তা রক্ষার অনুরোধ জানানো হয়েছে। এই কঠিন মুহূর্তে আমরা স্যার এ্যালেক্স ও তার পরিবারের সাথে আছি। আমরা সবাই একত্রিত ভাবেই তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।’
এদিকে ডেইলি মেইলের রিপোর্টের সূত্রমতে জানা গেছে শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ৯.০০টায় উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় ইংল্যান্ডে ম্যানচেস্টারের কাছাকাছি চেডেলে ফার্গুসনের বাসায় জরুরী ভিত্তিতে এ্যাম্বুলেন্স ডাকা হয়। এর আগেই অবশ্য ফার্গুসনের অসুস্থতার ইঙ্গিত পাওয়া গিয়েছিল। আগেরদিন উইগানের বিপক্ষে তৃতীয় সারির ক্লাব ডনকাস্টারের ম্যানেজার হিসেবে মাঠে ছিলেননা ফার্গুসনের ছেলে ড্যারেন। পারিবারিক কারনে তিনি ম্যাচটিতে অনুপস্থিত থাকার ঘোষনা দিয়েছিলেন।
ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের বিভিন্ন ক্লাবের ম্যানেজাররা ফার্গুসনের এই অসুস্থতায় সহানভূতি জানিয়েছেন। এভারটনের ম্যানেজার ও ফার্গুসনের দীর্ঘদিনের বন্ধু স্যাম অলিড্রিচ বলেছেন, ‘এটা সত্যিই দু:খজনক। তার দ্রুত রোগমুক্তি কামনা করছি। অবশ্যই আমি জানি তার অসুস্থতা বেশ গুরুতর।’
সাউদাম্পটন ম্যানেজার মার্ক হিউজেস ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ফার্গুসনের অধীনে প্রথম দিকের খেলোয়াড় ছিলেন। হিউজেস বলেছেন, ‘কিছুদিন আগে আমি এ সম্পর্কে কিছুটা ইঙ্গিত পেয়েছিলাম। আশা করছি ঘটনাটা সত্যি নয়। আমি তার দ্রুত সুস্থতা কামনা করছি।’
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফার্গুসনের অতীত ও বর্তমান ইউনাইটেড খেলোয়াড়রা ‘বস’ এর দ্রুত রোগমুক্তির জন্য প্রার্থনা জানিয়েছেন। ফার্গুসনের শিষ্যদের মধ্যে ডেভিড বেকহ্যাম অন্যতম। ইনস্টাগ্রামে ফার্গুসনের সাথে একটি ছবি পোস্ট করে তাতে বেকহ্যাম লিখেছেন, ‘লড়াই চালিয়ে যাও বস..আমাদের প্রার্থনা ও ভালবাসা বসের পুরো পরিবারের প্রতি রয়েছে।’
রিয়াল মাদ্রিদ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডো ২০০৩ সালে মাত্র ১৮ বছর বয়সে ফার্গুসনের সাথে চুক্তি করেছিলেন। সাবেক ম্যানেজারের সাথে একটি ছবি দিয়ে রোনাল্ডো টুইটে লিখেছেন, ‘প্রিয় বন্ধু, আমার সব ভাবনা ও প্রার্থনা তোমার সাথে আছে। শক্ত থাকো, বস।’
ইউনাইটেড ও ইংল্যান্ডের সাবেক অধিনায়ক ওয়েইন রুনি টুইটারে লিখেছেন, ‘দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠো বস। এই দু:খের সময় আমরা তোমার পরিবারের সাথে আছি।’
২০০৯ সালে ইউনাইটেডের গোলরক্ষক এডউইন ভ্যান ডার সারের স্ত্রী এ্যানেমেয়ার মতিষ্কে রক্ষক্ষরণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন। সে কারনে এডউইন ও তার স্ত্রীর কাছ থেকে একটি আবেগঘন বার্তা এসেছে। ফার্গুসনকে উদ্দেশ্য করে তারা বলেছেন, ‘স্যার এ্যালেক্সের এই দু:সংবাদটা শুনে সত্যিই খুব খারাপা লাগছে। এই ধরনের পরিস্থিতি সম্পর্কে আমাদের খুব ভাল ধারণা আছে। সবাইকে শক্ত থেকে তার সুস্থতার জন্য প্রার্থনা করতে হবে।’

image_printPrint