সরকার আশ্রয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে ২ লাখ ৬৪ হাজার পরিবারকে পুনর্বাসন করেছে

932

ঢাকা, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ (বাসস): প্রধানমন্ত্রীর দশটি বিশেষ কর্মসূচির আওতায় সরকার আশ্রয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে সারাদেশে ২ লাখ ৬৪ হাজারেরও বেশি ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে পুনর্বাসন এবং জীবিকার ব্যবস্থা করেছে। আশ্রয়ন প্রকল্প-২ এর প্রকল্প পরিচালক আবুল কধরাম শামসুদ্দিন বাসসকে এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, ‘১৯৯৭ সাল থেকে তিনটি ফেজের মাধ্যমে সরকার মোট ২ লাখ ৬৪ হাজার ৪৪২ পরিবারকে পুনর্বাসন করতে সক্ষম হয়েছে। প্রকল্পটি শুরু হয় ১৯৯৭ থেকে এবং প্রথম দু’টি ফেজ শেষ হয় ২০১০ সালে।’
তিনি বলেন, ২০১০ সালে সরকার ২য় ফেজের মাধ্যমে ২ লাখ ৫০ হাজার পরিবারকে আশ্রয় প্রদান করেছে। যাতে খরচ হয়েছে ৪ হাজার ৮৪০ কোটি ২৮ লাখ টাকা। ২০১০ সালের জুলাই এর পর থেকে বর্তমানে প্রকল্পের আওতায় ১ লাখ ৫৮ হাজার ৫২৯ পরিবারকে পুনর্বাসন করা হয়েছে। একই সময় সরকার আশ্রয়ন প্রকল্পের ৮৬৪টি গ্রামকে বিদ্যুৎ সংযোগের আওতায় এনেছে ও ৪ লাখ ৬০ হাজার গাছের চারা রোপণ করেছে। পরিবারগুলোর জীবিকার ব্যবস্থা করেছে। এখন তাদের শিশুরা বিদ্যালয়ে গমন করছে।
সরকার এই প্রকল্পের আওতায় গৃহহীন ১ লাখ ১৫ হাজার ৭৭৫ পরিবারকে গৃহ বরাদ্দ করেছে, তাদের মধ্যে আবার ৬০১টি ভিক্ষুক পরিবার রয়েছে।
তিনি বলেন, গৃহহীনদের জন্য আশ্রয়ন প্রকল্পের আওতায় গৃহ নির্মাণ চলমান রয়েছে এবং ইতিমধ্যে আরো ৩০টি গৃহ নির্মাণ করা হয়েছে। এসব কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে দারিদ্র বিমোচন ও ভিশন-২০২১ এবং ২০৩০ সালের মধ্যে এসডিজির সাফল্য অর্জনের জন্য।
স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় প্রকল্পের পুনর্বাসনকৃত পরিবারকে সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির আওতায় নিজের পায়ে দাঁড়ানো ও প্রশিক্ষণের মাধ্যমে সামাজিক মূলধারায় সম্পৃক্ত করতে কাজ করছে। পুরুষ ও নারীরা বিভিন্ন সামজিক ও স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতনাতা লাভ করছে। মানব সম্পদের জন্য নিজেদেরকে গড়ে তুলছে।
প্রকল্পটির অধীনে সরকার গাজিপুর বান্দর বাড়ি এলাকায় ৭০ লেপরেসি রোগীকে পুনর্বাসন করেছে। দিনাজপুরে হিজড়াদের পুনর্বাসনের জন্য কাজ করছে।

image_printPrint