চীনের যুব ক্যাম্পে বাংলাদেশের দেড়শ’ শিক্ষার্থীর যোগদান

170

কুনমিং (চীন), ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বিনিময়ের মাধ্যমে ঢাকা-বেইজিং সম্পর্কোন্নয়নের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ থেকে দেড়শ’ শিক্ষার্থীর একটি যুব ক্যাম্প চীনের পশ্চিমাঞ্চলের বড় শহর কুনমিংয়ে এসে পৌঁছেছে।
২০১৬ সালে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের বাংলাদেশ সফরকালে দু’দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত একটি সমঝোতা স্মারকের আলোকে এই যুব ক্যাম্পের আয়োজন করা হচ্ছে।
সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী ২০১৭ থেকে ২০২০ পর্যন্ত চীন সরকার বাংলাদেশ থেকে ৬শ’ শিক্ষার্থীকে চীন সফরের আনার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
২০১৭ সালের মত এবছর দ্বিতীয়বারের মত চীনের ইউনান বিশ্ববিদ্যালয় ও নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফুসিয়াস ইনিস্টিটিউটের উদ্যোগে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফুসিয়াস ইনিস্টিটিউট, চায়না রেডিও ইন্টারন্যাশনাল ও শান্ত মারিয়াম ফাউন্ডেশন এর কনফুসিয়াস ক্লাসরুম আয়োজন করছে। বাংলাদেশে চীনা দূতাবাস এবং কনফুসিয়াস ইনিস্টিটিউটের প্রধান কার্যালয় এই যুব ক্যাম্পের অর্থায়ন করছে।
ইউনান বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-প্রেসিডেন্ট জাওগ লি বিশ্ববিদ্যালয় প্রাঙ্গণে লাইব্রেরি হলে ক্যাম্পের উদ্বোধন করেন।
এসময় জাওগ লি বলেন, বাংলাদেশ-চীন যুব ক্যাম্প দু’দেশের মানুষে-মানুষে যোগাযোগ বৃদ্ধি করবে যা উভয় দেশের স্বপ্ন বাস্তবায়নে সহায়ক হবে।
এরপর বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ঐতিহ্যবাহী গান এবং চীনের নিত্য পরিবেশন করে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়, কলেজ ও স্কুল থেকে প্রতিনিধিবৃন্দ এতে যোগ দিচ্ছে।
সংস্কৃতি বিনিময়ের অংশ হিসেবে যুব ক্যাম্পের শিক্ষার্থীরা ইউনান প্রদেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সাংস্কৃতিক ও ঐতিহাসিক স্থান এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করবে।

image_printPrint