কবি রুপা রাহমান মাদার তেরেসা সাহিত্য স্বর্ণপদক পাচ্ছেন

151
image_printPrint

জয়পুরহাট, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ (বাসস) : সাহিত্য চর্চা ও সামাজিক কার্যক্রমে বিশেষ অবদান রাখায় জয়পুরহাটের কৃতী সন্তান কবি রুপা রাহমানকে মাদার তেরেসা সাহিত্য স্বর্ণপদকের জন্য মনোনীত করা হয়েছে। কলকাতা মহাবঙ্গ সাহিত্য পরিষদ আগামী ৫ সেপ্টেম্বর কবির হাতে এ পদক তুলে দেবেন।
কবি রুপা রাহমান জয়পুরহাট জেলার কালাই উপজেলার করিমপুর গ্রামে ১৯৯৪ সালে জন্মগ্রহণ করেন। পিতা আব্দুল ওয়াহেদ খান ও মাতা লুৎফুন নেছার কনিষ্ঠ কন্যা রুপা রাহমান। পিতা-মাতার অনুপ্রেরনায় ৭ম শ্রেণীতে পড়া অবস্থায় লেখা-লেখি শুরু করেন। এ পর্যন্ত যৌথভাবে ১৫টি বই প্রকাশিত হলেও গল্প ও কবিতা নিয়ে এককভাবে রচনা করেন কাব্য কথা। যা ১, ২ ও ৩ খন্ডে প্রকাশিত হয়েছে। এ ছাড়াও স্থানীয়ভাবে গড়ে তুলেছেন মানোবায়ন সমাবসেবা সংঘ।
প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে সমাজের অসহায় ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ায় সহযোগিতাসহ যে কোন বিপদে সাহায্য ও চিকিৎসা সেবায় সহায়তা করে থাকেন। রুপা রাহমান সাহিত্য চর্চা ও সামাজিক কার্যক্রমে বিশেষ অবদানের জন্য ইতোমধ্যে বেশ করেকটি পুরস্কারে ভূষিত হয়েছেন।
উল্লেখ্যযোগ্য হচ্ছে অপরাজিতা সাহিত্য পদক-২০১৪, ক্যাপ্টেন মনসুর আলী সাহিত্য পদক-২০১৫, বঙ্গবন্ধু সাহিত্য পদক-২০১৭ ও জীবনানন্দ দাস সাহিত্য পদক-২০১৮। এবার মনোনীত হয়েছেন মাদার তেরেসা সাহিত্য স্বর্ণপদকে। আগামী ৫ সেপ্টেম্বর কলকাতা বাংলা একাডেমি চত্বরে রবীন্দ্র সদনে কবি রুপা রাহমানের হাতে ওই স্বর্ণপদক তুলে দেওয়া হবে। কলকাতা মহাবঙ্গ সাহিত্য পরিষদ রুপা রাহমানকে এ স্বর্ণপদক প্রদান করবেন। রুপা রাহমান জানান, কাজের স্বীকৃতি অনেক আনন্দের। দেশের বাইরের সম্মাননা অনেক গৌরবের বলে মন্তব্য করেন তিনি। রুপা রাহমান সাহিত্য চর্চার মাধ্যমে দেশের মানুষের জন্য আরো কিছু করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।