দক্ষিণ কোরিয়ার আরো বিনিয়োগ চান প্রধানমন্ত্রী

42
image_printPrint

ঢাকা, ১২ এপ্রিল, ২০১৮ (বাসস) : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুই দেশের পারস্পরিক স্বার্থে বাংলাদেশে আরো বিনিয়োগের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতি আহবান জানিয়েছেন।
আজ সকালে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর সরকারি বাসভবন গণভবনে ঢাকায় নিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার বিদায়ী রাষ্ট্রদূত আন সিওং-দো বিদায়ী সাক্ষাৎ করতে গেলে তিনি এ আহবান জানান। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বৈঠকের পরে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এ কথা জানান।
আইসিটি খাতের ঊল্লেখযোগ্য অগ্রগতির কথা তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর সরকার ভারি শিল্পের পরিবর্তে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠার প্রতি গুরুত্ব দিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ‘লার্নিং এন্ড আর্নিং প্রজেক্ট’ বিষয়টি তুলে ধরলে দক্ষিণ কোরিয়ার দূত তার ভূয়সী প্রশংসা করেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকারের লক্ষ্য হচ্ছে উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণ।
থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম এবং লাওস-সহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর সঙ্গে ভালো যোগাযোগের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার এই দেশগুলোতে ব্যাবসা বাণিজ্য বাড়াতে কাজ করে যাচ্ছে।
দক্ষিণ কোরিয়ার দূত আশা প্রকাশ করেন, রফতানি প্রক্রিয়াকরণ জোন (ইপিজেড) এবং বিশেষ অর্থনৈতিক জোন প্রতিষ্ঠায় এগিয়ে যাওয়ায় বাংলাদেশ বিশ্বের অন্যতম শিল্প উৎপাদনকারী দেশে পরিণত হবে।
তিনি উল্লেখ করেন যে, বাংলাদেশ এবং দক্ষিণ কোরিয়া ইতিমধ্যেই যৌথ উদ্যোগে ইলেকট্রনিক পণ্য উৎপাদন শুরু করেছে। তার দেশ বাংলাদেশের গার্মেন্টস খাতের অন্যতম বিনিয়োগকারী উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশ-কোরিয়া অর্থনৈতিক সহযোগিতার সম্পর্ক সফল।
তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতত্বে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক অগ্রগতির ভূয়সী প্রশংসা করেন। দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের সাত শতাংশ’র বেশি জিডিপি প্রবৃদ্ধি অর্জনের উচ্চ প্রশংসা করেন এবং দেশের আরো অগ্রগতি কামনা করেন।
রাষ্ট্রদূত বলেন, বাংলাদেশে তিনি সফলভাবে তার দায়িত্বকাল পার করেছেন এবং এ সময় আন্তরিক সহযোগিতা প্রদানের জন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানান।
প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রীর সচিব সাজ্জাদুল হাসান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।