মুক্তি পেল মিয়ানমারের অধিকাংশ আঞ্চলিক ও রাজ্য প্রধানমন্ত্রী

1248

ইয়াংগুন, ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ (বাসস ডেস্ক) : মিয়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানে আটকের একদিন পর অধিকাংশ আঞ্চলিক ও রাজ্য প্রধানমন্ত্রীকে মুক্তি দেয়া হয়েছে।
সিনিয়র একজন সামরিক কর্মকর্তা এ খবর জানিয়েছেন।
সোমবার ভোরে সেনাবাহিনী মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর অং সান সু চি, প্রেসিডেন্ট ইউ উইন মিন্টসহ ক্ষশতাসীন ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি’র (এনএলডি) বেশ কয়েকজন সিনিয়র নেতাকে আটক করে।
গত নভেম্বরের নির্বাচনে অং সান সুচির এনএলডি সংখ্যাগরিষ্ঠতা লাভ করে। কিন্তু সেনাবাহিনী নির্বাচনে জালিয়াতির অভিযোগ তোলে।
সোমবার নবগঠিত সংসদের প্রথম বৈঠক হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেনাবাহিনী অধিবেশন স্থগিত করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছিল। বৈঠক শুরুর প্রাক্কালে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
সামরিক সূত্র আরো জানায়, যোগ্যতমদের বেছে নিয়ে রাজ্য প্রধানমন্ত্রীদের সম্ভবত নতুন করে নিয়োগ দেয়া হবে।
এদিকে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী নেতৃবৃন্দকে আটকের পর এক বছরের জন্য দেশটিতে জরুরি অবস্থা জারি এবং একজন জেনারেলকে ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে।
সামরিক প্রধান ও অভ্যুত্থান নেতা মিন উং লাইং দেশ পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন। সাবেক জেনারেল মিয়ন্ট সুই ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।
সেনাবাহিনী ঘোষণা করেছে তারা আগামী এক বছর ক্ষমতায় থাকবে। এরপর নতুন নির্বাচন দেবে।
ইতেমধ্যে সেনাবাহিনী কেবিনেটে ব্যাপক রদবদলের ঘোষণা দিয়েছে।