২০২১ সালের পর দেশ থেকে দারিদ্র্যতা বিদায় নেবে : খন্দকার মোশাররফ হোসেন

81

ঢাকা, ১৪ আগস্ট, ২০১৮ (বাসস) : স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে বর্তমান সরকার সূচিত উন্নয়নের ধারাবাহিকতায় ’২১ সালের পর দেশ থেকে দারিদ্রতা চিরবিদায় নেবে।
মন্ত্রী আজ রাজধানীর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর মিলনায়তনে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয় আয়োজিত “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস ২০১৮” উপলক্ষে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।
স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব ড. জাফর আহমেদ খানের সভাপতিত্বে সভায় অন্যান্যের মধ্যে পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব এস এম গোলাম ফারুকসহ সংশ্লিষ্ট সংস্থা ও দপ্তর প্রধানগণ বক্তৃতা করেন।
মন্ত্রী বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু দেশ স্বাধীন করার পর মাত্র সাড়ে তিন বছর দেশ পরিচালনা করেছেন। সেই স্বল্প সময়ে তিনি রাষ্ট্রের সকল কাঠামো তৈরি করে দিয়ে গেছেন। আজ আমরা যখনই কোন আইন প্রণয়ন করতে যাই তখনই সেখানে বঙ্গবন্ধুর দূরদর্শিতার প্রমাণ পাই।’
মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা তাঁর সমগ্র জীবনে বাঙালীর জন্য কাজ করে গেছেন। তাঁর জীবনের এক তৃতীয়াংশ সময় তিনি এ জাতির জন্য কারাভোগ করেছেন। তাঁর এসব ত্যাগের উদ্দেশ্য ছিল একটি সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গঠন।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার সর্বশক্তি দিয়ে পল্লী উন্নয়নের মাধ্যমে দেশ থেকে দারিদ্র দূরীকরণে কাজ করছে। ‘একটি বাড়ী একটি খামার’ প্রকল্পের মাধ্যমে ঋণের বেড়াজাল থেকে দরিদ্র মানুষকে মুক্তি দিয়ে সঞ্চয়ী হিসেবে গড়ে তোলা হচ্ছে।
মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু যে বাংলার স্বপ্ন দেখেছেন তা গড়তে দেশের অবকাঠামো উন্নয়নে বর্তমান সরকার সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছে। মন্ত্রী ২০২১ সালের পূর্বেই বাংলাদেশকে দারিদ্র্যমুক্ত একটি সুখী-সমৃদ্ধ দেশে পরিণত করার জন্য বঙ্গবন্ধুর আদর্শে অনুপ্রাণিত হয়ে সকলকে কাজ করার আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানের শুরুতে ১৫ আগস্ট শাহাদত বরণকারী সকল শহীদের আত্মার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট নীরবতা পালন এবং মোনাজাত করা হয়।

image_printPrint