বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখেছিলেন বলেই দেশ স্বাধীন হয়েছে : নূর

44
image_printPrint

ঢাকা, ১০ এপ্রিল, ২০১৮ (বাসস) : সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখেছিলেন বলেই দীর্ঘ চব্বিশ বছর আপসহীন লড়াই-সংগ্রাম করে বাঙালিকে ঐক্যবদ্ধ করতে পেরেছিলেন এবং নয় মাসের মুক্তিযুদ্ধের মধ্যদিয়ে আমাদের স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে।
মন্ত্রী আজ বিকেলে আলোকচিত্রশিল্পী নাসির আলী মামুনের ৫৭তম একক পোট্রেট প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
জাতীয় জাদুঘরের পক্ষ থেকে আয়োজিত ‘ফটোজিয়াম’ শীর্ষক এই প্রদর্শনী উদ্বোধন করেন অধ্যাপক আনিুসজ্জামান।
তিনি জাদুঘরের নলিনীকান্ত ভট্টশালী গ্যালারিতে ফিতা কেটে প্রদর্শনীর সূচনা করেন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আবুল খায়ের, জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক ফয়জুল লতিফ চৌধুরী, দৈনিক প্রথম আলো সম্পাদক মতিউর রহমান ও শিল্পী নাসির আলী মামুন। সভা পরিচালনা করেন জাদুঘরের কিপার শিহাব শাহরিয়ার।
সংস্কৃতি মন্ত্রী বলেন, স্বপ্ন মানুষকে অনেক দূর নিয়ে যায়। স্বপ্নহীন মানুষের জীবনে কোন টার্গেট থাকে না। যে স্বপ্ন দেখে, সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিতে তিনিই কঠোর পরিশ্রম করেন। শিল্পী নাসির আলী মামুন ছোটবেলা থেকে স্বপ্ন দেখতেন আলোকচিত্রে কাজ করবেন। কাজ করলেন এবং সাঁইত্রিশ বছরে সেই স্বপ্নকে বাস্তবে রূপ দিলেন। প্রদর্শনী সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, প্রদর্শনী দেখে আমি অভিভূত।
আনিসুজ্জামান বলেন, প্রদর্শনীতে দেশের অসংখ্য সফল খ্যাতিমান ব্যক্তিত্বের প্রতিকৃতি স্থান পেয়েছে। নাসির আলী মামুন তার ১৪৬টি সাদা-কালো ছবিতে ১৪৬ বরেণ্য ব্যক্তির ব্যক্তিত্ব ফুটিয়ে তুলেছেন কুশলি মুন্সিযানায়। সাদা-কালো ছবির একটি বিশেষ দিক হচ্ছে- এগুলোর স্থায়িত্ব রঙিন ছবির চেয়ে বেশি।
তিনি বলেন, ছবিগুলোতে আলো ও কালোর সংমিশ্রণে যে অসাধারণ অভিব্যক্তি ফুটে উঠেছে তা শিল্পীর সাধনার অনন্য প্রকাশ।
প্রদর্শনীতে জাতিরজনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী, কমরেড মণি সিংহ, অধ্যাপক মোজাফফর আহমেদ, কাজী নজরুল ইসলাম, কবি সুফিয়া কামালসহ দেশের রাজনীতি, সাহিত্য, সংস্কৃতি, শিল্প ক্ষেত্রের ১৪৬ ব্যক্তিত্বের আলোকচিত্র স্থান পেয়েছে।
প্রদর্শনী চলবে আগামী ৩ মে পর্যন্ত। সকাল সাড়ে দশটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত প্রদর্শনী খোলা থাকবে। তবে শুক্র ও শনিবার দুপুর আড়াইটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত।