কানাডায় টিকা দান কার্যক্রমের ধীর গতিতে হতাশ জাস্টিন ট্রুডো

144

অটোয়া, ৬ জানুয়ারি, ২০২১ (বাসস ডেস্ক) : কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো নতুন বছরে তার প্রথম ভাষণে মঙ্গলবার বলেছেন, তিনি দেশব্যাপী কোভিড-১৯ টিকাদান কার্যক্রমের ধীর গতি দেখে হতাশ হয়েছেন। দেশটিতে টিকাদান কর্মসূচির তিন সপ্তাহ চলছে। খবর এএফপি’র।
সরকারি পরিসংখ্যান অনুযায়ী, কানাডা সরকার টিকাদান কর্মসূচির আওতায় এ পর্যন্ত দেশটির বিভিন্ন প্রদেশ ও অঞ্চলে ফাইজার-বায়োএনটেক ও মডার্না টিকার ৪ লাখ ২৪ হাজার ৫শ’ ডোজ বিতরণ করেছে। কানাডায় এখন পর্যন্ত কেবলমাত্র এই একটি ভ্যাকসিন প্রয়োগের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।
স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়, কানাডায় এখন পর্যন্ত কেবলমাত্র ১ লাখ ৪৮ হাজার ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে।
ট্রুডো এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমি মনেকরি আমিসহ কানাডার সকল নাগরিক ভ্যাকসিনগুলো মজুদ এবং মানুষের হাতে না পৌঁছানোর বিষয় দেখে হতাশ হয়েছেন।’
খবরে বলা হয়, কানাডার জনগণের কাছে এসব ভ্যাকসিন পৌঁছে দিতে কিভাবে ফেডারেল সরকার সাহায্য ও সহযোগিতা করতে পারে সে ব্যাপারে আলোচনা করতে ট্রুডোর বৃহস্পতিবার প্রাদেশিক ও আঞ্চলিক নেতাদের সঙ্গে সাক্ষাত করার কথা রয়েছে।
তিনি বলেন, টিকা নিতে চাওয়া কানাডার প্রত্যেক নাগরিককে আগামী সেপ্টেম্বর নাগাদ ভ্যাকসিন দেয়ার চূড়ান্ত লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।
কানাডা তাদের ৩ কোটি ৮০ জনসংখ্যার জন্য সাতটি ওষুধ কোম্পানির কাছ থেকে ৪০ কোটিরও বেশি ডোজ ভ্যাকসিনের অর্ডার দিয়েছে।
বড়দিনের ছুটি থেকে কানাডায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক বেড়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। মঙ্গলবার দেশটিতে ৫ হাজার ৬শ’ জনেরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এনিয়ে দেশটিতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে মোট ৬ লাখ ১৭ হাজার ৬৫ জনে দাঁড়িয়েছে এবং মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৬ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।