জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জনমত গঠনে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সক্রিয়তা

80
image_printPrint

ঢাকা, ১০ আগস্ট, ২০১৮ (বাসস) : ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় নতুন প্রজন্মকে সমাজবিরোধী কর্মকান্ড থেকে দূরে রাখতে মসজিদ ও মাদ্রাসাগুলোকে সম্পৃক্ত করে দেশব্যাপী জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে জনমত গঠনের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।
ইসলাম কখনো জঙ্গিবাদকে সমর্থন করেনা, ইসলামের প্রকৃত এই সত্য সম্পর্কে ধারণা দিতে দেশের সব মসজিদে ইতোমধ্যে জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে দু’টি বইয়ের ৫ লাখ কপি বিতরণ করেছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ।
এ লক্ষ্যে ফাউন্ডেশনের মনিটরিং কমিটি উপজেলা ও জেলা পর্যায়ে ইমাম, খতিব ও আলেমদের নিয়ে জঙ্গিবাদ বিরোধী মতবিনিময়, সভা-সমাবেশ এবং সেমিনারের আয়োজন করছে।
এছাড়া, ধর্ম মন্ত্রণালয় বিভাগীয় পর্যায়ে আন্তঃধর্মীয় সংলাপের আয়োজন করছে।
এদিকে, এ লক্ষ্যে ধর্ম মন্ত্রণালয় তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) ব্যবহার করে ৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে দু’বছরের এক পরিকল্পনা নিয়েছে।
ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী প্রধান রেজাউর রহমান বাসসকে বলেন, মূলত: জনগণের মধ্যে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য দু’বছর মেয়াদে ৪৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ‘ধর্মীয় সম্প্রীতি বৃদ্ধি ও সচেতনতা’ শীর্ষক একটি ডিপিপি তৈরি করা হয়েছে। এ প্রকল্প ২০১৭-’১৮ অর্থবছরের সংশোধিত এডিপিতে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। জুলাই থেকে শুরু হয়ে ২০২০ সালের জুনে এর কাজ শেষ হবে।
তিনি বলেন, এই প্রকল্পের মূল লক্ষ্য হচ্ছে- ধর্ম সম্পর্কে মানুষের ভুল ধারণা নিরসন এবং অপপ্রচার প্রতিরোধ করা। প্রকল্পটির সফল বাস্তবায়নে একটি কন্সালটেন্সি ফার্ম নিয়োগেরও উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান রেজাউর রহমান।