যুক্তরাষ্ট্রে ভোটের আগে ২২ লাখ বিজ্ঞাপন প্রত্যাখান করেছে ফেসবুক ও ইনস্টগ্রাম

624
(FILES) This file photo taken on March 22, 2018 shows a computer screen displaying the logo of the social networking site Facebook, taken in Manchester, England. Facebook on July 18, 2018, built on its campaign to prevent the platform from being used to spread dangerous misinformation, saying it will remove bogus posts likely to spark violence. The new tactic being spread through the global social network was tested in Sri Lanka, which was recently rocked by inter-religious over false information posted on the world's leading online social network. The new policy takes another step back, eliminating content that may not be explicitly violent but which seems likely to encourage such behavior. / AFP PHOTO / Oli SCARFF

প্যারিস, ১৮ অক্টোবর, ২০২০ (বাসস ডেস্ক) : ফেসবুক ও ইনস্টগ্রাম যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে “ভোটে বাধা” দেয়ার চেষ্টা করা হয়েছে এমন ২২ লাখ বিজ্ঞাপন প্রত্যাখান করেছে এবং ১ লাখ ২০ হাজার পোস্ট প্রত্যাহার করা হয়েছে। ফেসবুকের ভাইস প্রেসিডেন্ট নিক ক্লেগ রবিবার প্রকাশিত এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন।
সাবেক ব্রিটিশ উপ-প্রধানমন্ত্রী ফরাসি সাপ্তাহিক জার্নাল ডু ডিম্যানচে পত্রিকাকে জানিয়েছেন, অনলাইনে ১৫ কোটি ভুয়া তথ্যের পোস্টের ব্যাপারে সতর্কতামূলক পোস্ট করা হয়।
ফেসবুক ২০১৬ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকালের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করার চেষ্টা করছে, ওই নির্বাচনে ট্রাম্প বিজয়ী হন। এসময় রাশিয়া থেকে ভোটার মেনিপুলেট করতে এই নেটওয়ার্ক ব্যবহার করা হয়।
ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন থেকে বেরিয়ে আসার জন্য ২০১৬ সালে অনুষ্ঠিত ব্রিটেনের গণভোটের ক্ষেত্রেও একই ঘটনা ঘটেছে।
ফেসবুকের গ্লোবাল এফেয়ার্স এবং কমিউনিকেশন বিষয়ক ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্লিগ বলেন, “৩৫ হাজার কর্মী আমাদের প্লাটফরমের নিরাপত্তা এবং নির্বাচন সম্পর্কিত বিষয় তদারকির দায়িত্ব পালন করছে।”
তিনি বলেন, “তথ্য যাচাইয়ের জন্য ফ্রান্সের ৫ টি সহ ৭০ টি বিশেষ মিডিয়ার সঙ্গে আমরা অংশীদারিত্ব সম্পর্ক স্থাপন করেছি।” এএফপিও এই এর অংশীদার।