সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্র খুঁজে বের করে তা কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্বারোপ ব্রাজিল দূতের

275

ঢাকা, ২ আগস্ট, ২০১৮ (বাসস) : ব্রাজিলের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত জোয়াও তাবাজারা ডি অলিভিয়েরা জুুুনিয়র আজ বাংলাদেশ এবং তাঁর দেশের মধ্যে সম্ভাবনা এবং সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্রসমূহ খুঁজে বের করে তাকে কাজে লাগানোর ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
তিনি বলেন, ‘আমি বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের আরো উন্নয়ন ঘটাতে এবং একে আরো গভীরতর করার জন্য এখানে এসেছি। আমরা আমাদের সম্ভাবনাগুলোকে আরো কাজে লাগাতে পারি এবং সহযোগিতার নতুন ক্ষেত্রসমূহ খুঁজে বের করতে পারি।’
তিনি আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তাঁর তেজগাঁওস্থ কার্যালয়ে সৌজন্য সাক্ষাৎকালে এ কথা বলেন।
প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বলেন, প্রধানমন্ত্রী বৈঠকে দু’দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক সহযোগিতাকে আরো শক্তিশালী করার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ক্ষমতায় আসার পরই তাঁর সরকার ব্রাজিলে বাংলাদেশ দূতাবাস পুনরায় খুলেছে, যেটি বিএনপি সরকারের সময় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল।
ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশে বিপুলসংখ্যক ব্রাজিলের ফুটবল ভক্ত থাকার প্রশংসা করেন এবং গত বিশ্বকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট চলাকালে তাদের দ্ব্যর্থহীন সমর্থনের উল্লেখ করেন।
রাষ্ট্রদূত এ সময় তাঁর বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি) সফরের অভিজ্ঞতা বর্ণনা করেন এবং বাংলাদেশের ফুটবল খেলোয়াড়দের ফুটবল কোচিং এবং প্রশিক্ষণ প্রদানের প্রস্তাব করেন।

প্রধানমন্ত্রী এ সময় ফুটবলের উন্নয়নে এবং নতুন খেলোয়াড় তৈরীর জন্য দেশব্যাপী স্কুল পর্যায়ে ছেলে এবং মেয়েদের জন্য ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজনে তাঁর সরকারের উদ্যোগ তুলে ধরেন।
তিনি বলেন, তাঁদের পরিবারও ফুটবলের সঙ্গে সম্পৃক্ত একটি পরিবার, তাঁর দাদা, বাবা এবং ভাই ফুটবলার ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শীর্ষস্থানীয় তিনটি ফুটবল দল তাঁর তিন ভাইয়ের নামে রয়েছে।
ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত জানান, বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৫শ’ বছর আগে প্রথম গো-সম্পদ ব্রাজিলে যায়। যেটি এখন সে দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ সম্পদ হিসেবে পরিণত হচ্ছে।
‘ব্রাজিলে একটি গরু দিনে এখন ১শ’ লিটার পর্যন্ত দুধ দেয়’, বলেন তিনি।
ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের জনগণের ফুটবল প্রিয়তার প্রশংসা করে বলেন, তাঁদের বিশ্বকাপ দলকে সমর্থনের জন্য বাংলাদেশ ব্রাজিলবাসীর কাছে খুব পরিচিত।
‘গত বিশ্বকাপের সময় ব্রাজিলের একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল বাংলাদেশে ব্রাজিলের ফুটবল দলের জনপ্রিয়তা নিয়ে একটি তথ্যচিত্র প্রচার করে’ উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত যোগ করেন আগামী বছরও সেই টেলিভিশন চ্যানেলটি বাংলাদেশে আসবে বাংলাদেশের মনোজ্ঞ নববর্ষ-পহেলা বৈশাখ উৎসব উদযাপন বিষয়ে তথ্যচিত্র নির্মাণের জন্য।
প্রেস সচিব বলেন, ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত জানিয়েছেন, তিনি বাংলাদেশের রসালো আমের ভক্ত এবং তাঁর ডিপ ফ্রিজে এই আম প্রচুর পরিমাণে সংরক্ষণ করেছেন।
প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

image_printPrint