২০০৯ সাল থেকে এ পর্যন্ত ৫৬ লক্ষাধিক লোক বিদেশে চাকরি পেয়েছেন

125
image_printPrint

ঢাকা, ৩০ জুলাই, ২০১৮ (বাসস) : এ বছর বিদেশে চাকরি পেয়েছেন ৪ লাখ ৪৪ হাজার ৯০৬ জন। আর ২০০৯ সাল থেকে চলতি বছরের (২০১৮) ২৯ জুলাই নাগাদ বিদেশে চাকরি পেয়েছেন মোট ৫৬ লাখ ৪৩ হাজার ৮২০ জন বাংলাদেশী পুরুষ ও নারী শ্রমিক। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা এ তথ্য জানিয়েছেন।
মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা জানান, সরকার বিদেশে বাংলাদেশের শ্রম বাজার সম্প্রসারণের সম্ভাবনাকে কাজে লাগানোর জন্য একটা বাস্তবসম্মত পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। কারণ, এ খাতকে ইতোমধ্যেই একটি গুরুত্বপূর্ণ সেক্টর হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে।
তিনি জানান, বাংলাদেশ গত বছর বিদেশে চাকরিসহ ১০ লাখ ৮ হাজার ৫২৫ জন শ্রমিক পাঠিয়েছে এবং শ্রমিকদের চাকরি নিয়ে বিদেশ গমনের সংখ্যা বৃদ্ধির প্রেক্ষাপটে ২০০৯ সালের জানুয়ারি থেকে ২০১৮ সালের ২৯ জুলাই নাগাদ বিদেশে গেছেন মোট ৫৬ লাখ ৪৩ হাজার ৮২০ শ্রমিক।
এর আগে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী নূরুল ইসলাম বিএসসি বলেছেন, বর্তমান সরকার ১৬৯টি দেশে শ্রমিক পাঠাচ্ছে। এটা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গতিশীল নেতৃত্বাধীন শ্রম কূটনীতির সাফল্যের ফল। তিনি বলেন, ‘সারা বিশ্বে নতুন শ্রম বাজার খুঁজে দেখা হচ্ছে এবং সরকার দক্ষ ও আধাদক্ষ শ্রমিক তৈরির লক্ষ্যে জেলা সদর দপ্তরগুলোতে কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করেছে।’
তিনি বলেন, সরকার অভিবাসন খরচ হ্রাস করেছে এবং বিদেশে দক্ষ শ্রমিক পাঠাতে শ্রমিকদের প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণের পদক্ষেপ নিয়েছে। ফলে ক্রমান্বয়ে রেমিটেন্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাচ্ছে।
মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুযায়ী, সরকার দক্ষ ও আধাদক্ষ শ্রমিক সৃষ্টির লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন জেলায় ৭০টি প্রশিক্ষণ কেন্দ্র স্থাপন করেছে। এসব কেন্দ্রের মাধ্যমে জাহাজ তৈরি, ফ্রিজ ও এয়ার কন্ডিনশিং, জেনারেল মেকানিক্স, ইলেক্ট্রিক্যাল মেসিন মেন্টেইনেন্স, অটোক্যাড টুডি ও থ্রিডি, ওয়েল্ডিং (৬জি), ক্যাটারিং ইত্যাদি বিষয়ে প্রশিক্ষণ এবং কোরিয়ান, আরবী, জাপানিজ ইত্যাদি ভাষা শিক্ষা দেওয়া হয়।