বাসস দেশ-২১ : সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দেশের বিভিন্নস্থানে সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত

বাসস দেশ-২১
সাংস্কৃতিক উৎসব-সারাদেশ
সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দেশের বিভিন্নস্থানে সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত
ঢাকা, ২১ জুলাই, ২০১৮ (বাসস) : ‘সৃজনে উন্নয়নে বাংলাদেশ’ শিরোনামে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও জেলা প্রশাসনের আয়োজনে সারাদেশে দু’দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত সাংস্কৃতিক উৎসব আজ শেষ হয়েছে। এ উপলক্ষে বাসস’র সংবাদদাতাদের পাঠানো কয়েকটি প্রতিবেদন :
গোপালগঞ্জ : গোপালগঞ্জে শেষে হয়েছে দুই দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব। জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। শুক্রবার বিকেলে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি জেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পৌর পার্কে গিয়ে শেষ হয়। পরে সেখানে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আব্দুল্লাহ আল বাকী। এ র‌্যালিতে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, শহরের বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীসহ জেলার বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের শিল্পীরা অংশগ্রহণ করে। পরে সন্ধ্যায় পৌর পার্কের অনুষ্ঠান স্থলে জেলার বিভিন্ন শিল্পীরা নাচ ও গান পরিবেশন করেন। শনিবার সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ সাংস্কৃতিক উৎসব শেষ হয়।
হবিগঞ্জ : সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে প্রাণের ছোঁয়ায় শুরু হওয়া সাংস্কৃতিক উৎসব আনন্দ দিয়েছে সমজদার সাংস্কৃতি প্রেমীদের।
‘সৃজনে উন্নয়নে বাংলাদেশ’ শিরোনামে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শুরু হওয়া দু’দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসবে ছিল জেলার নির্বাচিত শিল্পীদের পরিবেশনায় সঙ্গীত এবং নৃত্য। রবীন্দ্র, নজরুলের পাশাপাশি জেলার ঐতিহ্যবাহী গানও পরিবেশন করা হয় উৎসবে।
উৎসবে অতিথি হিসেবে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন জেলা ও দায়রা জজ আমজাদ হোসেন, জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ, পুলিশ সুপার বিধান ত্রিপুরা পিপিএম বার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কুদ্দুছ আলী সরকার, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক সফিউল আলম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক ফজলুল জাহিদ পাভেল, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তারেক মোহাম্মদ জাকারিয়াসহ জেলার বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
নওগাঁ : জেলায় দু’দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পিটিআই চত্বরে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টায় প্রধান অতিথি হিসেবে এই উৎসবের উদ্বোধন করেন নওগাঁ সদর আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল মালেক।
জেলা প্রশাসক মোঃ মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন পুলিশ সুপার মোঃ ইকবাল হোসেন এবং সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব মোঃ জাহিদুল হাসান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ মাহবুবুর রহামন।
এ সময় জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্যবৃন্দ, স্কুল কলেজের শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
জেলা শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীদের পরিবেশনায় উদ্বোধনী সংগীত ও নৃত্যের মধ্যে দিয়ে দু’দিনব্যপী এই সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু হয়। দু’দিনব্যপী এই উৎসবে সাংগঠনিকভাবে জেলা শিল্পকলা একাডেমী, বাংলাদেশ শিশু একাডেমী নওগাঁ, রবীন্দ্র নজরুল সাংস্কৃতিক পরিষদ, আবৃত্তি পরিষদ, একুশে পরিষদ, নৃত্যাঞ্জলী একাডেমী, রবীন্দ্র সংগীত সম্মিলন পরিষদ, মহাদেবপুর আদিবাসী সংগঠন, মহাদেবপুর মাধবীলতা ও তার দল, সাইদুলের কিস্সা, নৃত্য নিকেতন, নৃত্য রং একাডেমী এবং নওগাঁ ও বদলগাছি’র বাউল দল।
এছাড়াও ব্যক্তিগত পর্যায়ে কবিতা আবৃত্তি ও সংগীত পরিবেশন করেন ড. প্রফেসর হারুন অর রশিদ, তামিম মাহমুদ সিদ্দিক, মাহমুদা খাতুন সিদ্দিকী মায়া, রফিকুদ্দৌলা রাব্বী, নওরিন আকতার শারমিন, শহিদ হোসেন টিটু, ফারহানা ইয়াসমিন শিল্পী, শম্পা ভাট্টাচার্য এবং জয়নাল আবেদীন।
নীলফামারী : জেলায় দু’দিনের সাংস্কৃতিক উৎসব আজ শনিবার সমাপ্ত হয়েছে। জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে সন্ধ্যায় উৎসবের সমাপনী ঘোষণা করেন প্রধান অতিথি সাংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।
গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে শুরু হয় দু’দিনের সাংস্কৃতিক উৎসব। এসময় উৎসবের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খালেদ রহীম। জেলা কালচারাল কর্মকর্তা মো. আরিফুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. এবিএম আতিকুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট খন্দকার নাহিদ হাসান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. আজাহারুল ইসলাম, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মামুন ভুইয়া, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মসফিকুল ইসলাম, সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের আহবায়ক আহসান রহিম
পঞ্চগড় : জেলায় দু’দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব শুরু হয়েছে। শুক্রবার রাত ৯টায় পঞ্চগড় সরকারী অডিটোরিয়ামে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসনের ব্যবস্থাপনায় ও সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আয়োজনে দু’দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধন করেন পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. মোঃ নুরুল ইসলাম সুজন।
পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব মোঃ ফয়জুর রহমান ফারুকী,অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ গোলাম আজম,অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুদর্শন কুমার। দুই দিন ব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসবের উদ্বোধন শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। শনিবার রাতে সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হবে দু’দিনব্যাপী সাংস্কৃতিক উৎসব।
রাঙ্গামাটি : ‘সৃজনে উন্নয়নে বাংলাদেশ’ এ সেøাগানে সারাদেশের মতো রাঙ্গামাটিতে দু’দিনব্যাপী শুরু হয় সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৮।
সংস্কৃতি মন্ত্রণালয় ও রাঙ্গামটি জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শুক্রবার বিকেলে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে আয়োজিত অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন করেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা।
রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জেলা পুলিশ সুপার আলমগীর কবির, রাঙ্গামাটি ডিজিএফআই এর কর্নেল জিএস কর্নেল সামসুল আলম পিএসসি ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক এসএম শফি কামাল বক্তব্য রাখেন।
নৃত্য ও সঙ্গীত শিল্পীদের পরিবেশনায় পরিবেশিত সাংস্কৃকিত অনুষ্ঠান আজ সন্ধ্যায় শেষ হয়।
বাসস/সংবাদদাতা/২০০৩/মরপা