বাধানিষেধ শিথিল করার বিষয়ে উপদেষ্টা এন্থনি ফুচির সাথে ট্রাম্পের তীব্র মতানৈক্য

373

ওয়াশিংটন, ১৪ মে, ২০২০(বাসস ডেস্ক): করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় আরোপিত বাধানিষেধ শিথিল করার বিষয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সাথে বুধবার শীর্ষ মেডিক্যাল উপদেষ্টা এন্থনি ফুচির মতানৈক্য তীব্র রূপ নিয়েছে।
সেপ্টেম্বরে শিক্ষার্থীদের স্কুল ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেরা এবং কতো দ্রুত দেশ পুরো সচল করা যায় তা নিয়ে হোয়াইট হাউস ও মেডিক্যাল বিশেষজ্ঞদের মধ্যে অচলাবস্থা তৈরি হয়েছে।
হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প সাংবাদিকদের বলেন, দেশ পুনরায় সচল করার বিষয়ে ফুচির অত্যন্ত সতর্ক থাকার সর্বশেষ আহ্বান অগ্রহণযোগ্য।
ট্রাম্প বলেন, আমরা আমাদের দেশ খুলে দিতে যাচ্ছি। জনগণ চায় সবকিছু খুলে দেয়া হোক। স্কুলগুলোও খুলে দেয়া হচ্ছে।
আর্ন্তজাতিক খ্যাতি সম্পন্ন সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞ এবং ট্রাম্পের শীর্ষ উপদেষ্টা ফুচি মঙ্গলবার কংগ্রেসকে বলেছেন, লকডাউন দ্রুত তুলে নেয়া হলে এর পরিণাম ভয়াবহ হবে। তিনি বলেন, ভাইরাসটির প্রাদুর্ভাব এমন হবে যা হয়তো আর নিয়ন্ত্রণ করা যাবে না।
কিন্তু এর সাথে দ্বিমত পোষণ করে ট্রাম্প ফক্স বিজনেস নেটওয়ার্ককে দেয়া এক সাক্ষাতকারে বলেন, এন্থনি ভালো মানুষ, খুবই ভালো মানুষ। কিন্তু তার সাথে আমি দ্বিমত পোষণ করি।
সাক্ষাতকারটি বৃহস্পতিবার সকালে প্রচার হওয়ার কথা রয়েছে।
এ সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, আমি মনে করি আমাদের স্কুলসমূহ খুলে দেয়া উচিত। তিনি আরো বলেন, আমাদের দেশ পুনরায় সচল করতে হবে। এখন আমরা চাচ্ছি তা নিরাপদে করতে। কিন্তু আমরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাও করতে চাচ্ছি।
ট্রাম্প বলেন, বিশেষ করে স্কুলের ক্ষেত্রে আমি তার সাথে দ্বিমত পোষণ করছি।
উল্লেখ্য, যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন আসন্ন। নভেম্বরের এই নির্বাচন সামনে রেখে ট্রাম্প অর্থনীতি পুনরায় সচল করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন।

image_printPrint