দারিদ্র্য দূর করে গড়ে তোলা হবে সমৃদ্ধ আলোকিত বাংলাদেশ : স্পিকার

86

হবিগঞ্জ, ৩১ মার্চ, ২০১৮ (বাসস) :জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, বর্তমান শিক্ষার্থীদের মাঝেই তৈরী হচ্ছে ভবিষ্যতের নেতৃত্ব। জ্ঞান অর্জনের শ্রেষ্ঠ সময় শিক্ষা জীবন। এসময়কে কাজে লাগিয়ে তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর শিক্ষায় শিক্ষিত হতে তিনি শিক্ষার্থীদের প্রতি উদাত্ত্ব আহবান জানান।
আজ হবিগঞ্জ জেলার শায়েস্তাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে আয়োজিত শায়েস্তাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি’ উৎসবে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।
সাবেক সচিব অশোক মাধব রায় এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন, হবিগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. আবু জাহির, হবিগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য মাহবুব আলী, হবিগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট আব্দুল মজিদ খান ও শায়েস্তাগঞ্জের পৌর মেয়র মো: খালেক মিয়া।
শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। সামাজিক নিরাপত্তা এবং অর্থনৈতিক সকল সূচকে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। নারীর ক্ষমতায়ন ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ইতিমধ্যে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উপনীত হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে২০২১ সালের মধ্যে মধ্যম আয়ের দেশে এবং ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত সমৃদ্ধ দেশে পরিনত হবে। দারিদ্র্য দূর করে গড়ে তোলা হবে সমৃদ্ধ আলোকিত বাংলাদেশ।
তিনি বলেন, মার্চ মাস গৌরব ও অহংকারের মাস। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে দীর্ঘ নয় মাস সশস্ত্র সংগ্রামের মাধ্যমে ৩০ লক্ষ শহীদ ও দুই লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময় বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু এবং বাংলাদেশ একই সূত্রে গাঁথা।
অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন বাংলাদেশের সাবেক প্রধান বিচারপতি ও স্কুলের প্রাক্তন শিক্ষার্থী বিচারপতি সৈয়দ জে আর মোদাচ্ছির হোসেন।
এ সময় তিনি শতবর্ষ পূর্তি উৎসব স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করেন। এর আগে স্পিকার শায়েস্তাগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের বিদ্যমান একাডেমিক ভবন উর্ধ্বমূখী সম্প্রসারণ এবং শতবর্ষ স্বারক ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

image_printPrint