হবিগঞ্জে ধান কাটা শুরু

50
image_printPrint

হবিগঞ্জ, ৩০ মার্চ, ২০১৮ (বাসস) : গেল বছর আগাম বন্যায় হবিগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হওয়ায় এবারও ভয় কাজ করছিল কৃষকদের মাঝে। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর একটু আগেই শুরু হয়েছে হবিগঞ্জের হাওরে ধান কাটার কাজ।
শুক্রবার দুপুরে জেলার বানিয়াচং উপজেলার সুবিদপুর ইউনিয়নের ভাটিপাড়া হাওরে ধান কাটার কাজের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোঃ মহসিন ও ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মোঃ শাহজাহান কবীর।
এ উপলক্ষে ভাটি পাড়া হাওরে বানিয়াচং উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উদ্যোগে আয়োজিত শস্য কাটা উৎসবে বক্তব্য রাখেন উল্লেখিত দুই কর্মকর্তা।
বানিয়াচং কৃষি অধিপ্তরের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সঞ্জয় দাশ জানান, শুক্রবার ব্রী ধান-২৮ কর্তনের মধ্য দিয়ে হবিগঞ্জে শুরু হয়েছে ধান কাটার কাজ। শুক্রবারের কর্তন অনুযায়ী ধারণা করা হচ্ছে ব্রী ধান-২৮ প্রতি হেক্টরে ৪.৫২ মেট্রিক টন ধানের ফলন হবে। কিছুদিনের মধ্যেই সারা জেলায় পুরোদমে শুরু হবে ধান কর্তন।
হবিগঞ্জের উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মোঃ জিয়াউর রহমান জানান, জেলায় এবার বোরো ধান আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ১ লাখ ১৫ হাজার ৭৪ হেক্টর। চাষ হয়েছে লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে ১ লাখ ২১ হাজার ৪৩০ হেক্টর। তিনি আরো জানান, এ পর্যন্ত হাওর পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে হাইব্রীডের চেয়ে ব্রী ধান-২৮ এবং ২৯ এর ভাল ফলন হয়েছে। যা বিগত কয়েক বছরের তুলনায় ভাল।
তিনি আরো জানান, শীতকালের শুরু থেকেই কৃষি বিভাগে কৃষকদেরকে নিয়ে আন্তরিকতার সাথে কাজ করেছে। ধান ঘরে তোলার আগ পর্যন্ত ৮ উপজেলার কৃষকদের সাথে তারা থাকবেন ।
শস্য কাটা উৎসবে হবিগঞ্জ জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ মোঃ আলী, জেলা প্রশিক্ষক কর্মকর্তা বশির আহমেদ সরকার, অতিরিক্ত উপ-পরিচালক মজুমদার মোঃ ইলিয়াছসহ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট আঞ্চলিক কার্যালয় নাগুরার কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।