বাসস সংসদ-৫ : শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বে একটি আত্মমর্যাদাশীল দেশ করেছেন : আমু

বাসস সংসদ-৫
রাষ্ট্রপতির ভাষণ-আলোচনা
শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বে একটি আত্মমর্যাদাশীল দেশ করেছেন : আমু
সংসদ ভবন, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ (বাসস) : রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারি দলের সিনিয়র সদস্য আমির হোসেন আমু বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্বে একটি আত্মমর্যাদাশীল দেশ করেছেন।
তিনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের লক্ষ্য ছিল একটি উন্নত-সমৃদ্ধ দেশ হিসাবে গড়ে তুলে বাংলাদেশকে বিশ্বে আত্মমর্যাদাশীল দেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠা করা, শেখ হাসিনা সে লক্ষ্য  বাস্তবায়ন করেছেন।
গত ৯ জানুয়ারি চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করলে সরকারি দলের সদস্য আ স ম ফিরোজ তা সমর্থন করেন।
গত ৯ জানুয়ারি একাদশ জাতীয় সংসদের ষষ্ঠ ও এ বছরের প্রথম অধিবেশনের শুরুর দিন সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ সংসদে ভাষণ দেন।
রাষ্ট্রপতির ভাষণে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আজ শেষ দিনে আলোচনায় অংশ নেন চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী ও সরকারি দলের সিনিয়র সদস্য আমির হোসেন আমু।
আলোচনায় অংশ নিয়ে আমির হোসেন আমু বলেন, ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে জাতিসংঘে আমেরিকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরী কিসিঞ্জারের বাংলাদেশের বিরোধীতা করার কথা উলেøখ করে বলেন, আজ সেই হেনরী কিসিঞ্জারই জাতিসংঘে জাতির পিতার সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে শান্তি পুরস্কার তুলে দিয়েছেন। আসলে আমেরিকা এখন শেখ হাসিনার একক কৃতিত্বে পার্বত্র চট্ট্রগ্রাম শান্তি চুক্তি করার জন্য এ শান্তি পুরস্কার দিতে বাধ্য ।
আমু শেখ হাসিনাকে দূরদৃষ্টি সম্পন্ন, সৎ, সাহসি ও পরিশ্রমি রাষ্ট্র নায়ক হিসাবে উলেøখ করে বলেন, ইতোমধ্যে অন্যতম প্রথম সারির বিশ্ব নেতা হিসাবে তিনি স্বকিৃতি পেয়েছেন।
চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নেতৃত্বে সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় ভিশন ২০২১ ও ২০৪১ সালের মধ্যে ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। বাংলাদেশ দীর্ঘমেয়াদি ডেল্টা প্ল্যান প্রণয়নও করেছে।
তিনি বলেন, সরকারের এ কর্মযজ্ঞের ফলে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি ভারত, পাকিস্তানসহ এশিয়ার মধ্যে শীর্ষে রয়েছে।
তিনি সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণে আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নেয়ায় সংসদ সদস্যদের প্রতি ধন্যবাদ জানান।
বাসস/এমআর /২০৪০/-অমি