সংসদে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল-২০১৮ পাস

90

সংসদ ভবন, ১০ জুলাই, ২০১৮ (বাসস) : চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ অধ্যাদেশ সংশোধন, পরিমার্জন ও যুগোপযোগী করে নতুন আইন প্রণয়নের বিধান করে আজ সংসদে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ বিল-২০১৮ স্থিরকৃত আকারে পাস করা হয়েছে।
গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন।
বিলে উল্লেখিত অধ্যাদেশের অধীন প্রতিষ্ঠিত চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ এমনভাবে বহাল রাখার বিধান করা হয়, যেন তা বিলের বিধান অনুযায়ী প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। কর্তৃপক্ষের কার্যালয় চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এলাকায় থাকবে।
বিলে একজনকে চেয়ারম্যান করে ২১ সদস্যের কর্তৃপক্ষ গঠনের বিধান করা হয়েছে।
বিলে কর্তৃপক্ষের ক্ষমতা ও কার্যাবলী, কর্তৃপক্ষের প্রধান নির্বাহী, কর্তৃপক্ষের সভা, পরামর্শ বা সহযোগিতা, কমিটি গঠন, মহাপরিকল্পনা, উন্নয়ন প্রকল্প, মহাপরিকল্পনা সংশোধন, উন্নয়ন প্রকল্প সংশোধন, জনস্বার্থ অন্তর্বর্তী উন্নয়ন প্রকল্প প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন, বিনোদন ও পর্যটন কেন্দ্র স্থাপন, স্থানীয় কর্তৃপক্ষের মালিকানাধীন ভূমি ও ইমারত ন্যস্তকরণ, ব্যক্তি মালিকানাধীন ভূমি হস্তান্তর, কর্তৃপক্ষের নিকট ন্যস্ত করা সরকারি রাস্তা, নর্দমা, চত্বর, ইমারত, ভূমি অথবা এর অংশ বিশেষ রক্ষণা-বেক্ষণ, উন্নয়ন কর ধার্যের ক্ষমতা, তহবিল, হিসাব রক্ষণ ও নিরীক্ষা, বার্ষিক বাজেট, কর্মচারী নিয়োগ, জনসেবক নিয়োগসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে প্রয়োজনীয় বিধান করা হয়েছে।
বিলের বিধান লংঘনে বিধি-নিষেধ, অবসারণ, দন্ডসহ সংঘটিত অপরাধের বিচার ও শাস্তি প্রদানের বিধান করা হয়েছে।
জাতীয় পার্টির ফখরুল ইমাম, নূরুল ইসলাম ওমর, রুস্তম আলী ফরাজী, কাজী ফিরোজ রশীদ, সেলিম উদ্দিন, আব্দুল মুনিম চৌধুরী, বেগম রওশন আরা মান্নান, শামীম হায়দার পাটোয়ারী বিলের ওপর জনমত যাচাই, বাছাই কমিটিতে প্রেরণ ও সংশোধনী প্রস্তাব আনলে ২টি সংশোধনী প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়। বাকি প্রস্তাবগুলো কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

image_printPrint